• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • দৈনিক মাত্র ২ টাকা জমা দিলেও পাওয়া যাবে ৩৬,০০০ টাকা সরকারি পেনশন, জানুন বিস্তারিত

দৈনিক মাত্র ২ টাকা জমা দিলেও পাওয়া যাবে ৩৬,০০০ টাকা সরকারি পেনশন, জানুন বিস্তারিত

Representative Image

Representative Image

PM Shram Yogi Mandhan Yojana: এই প্রকল্পের অধীনে কেন্দ্রীয় সরকার অসংগঠিত ক্ষেত্রে কর্মীদের পেনশনের নিশ্চয়তা প্রদান করে হবে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: কেন্দ্রীয় সরকার অসংগঠিত ক্ষেত্রে শ্রমিকদের জন্য একাধিক পরিকল্পনা চালু করেছে যার মধ্যে অন্যতম হল প্রধানমন্ত্রী শ্রম যোগী মানধন যোজনা (PM Shram Yogi Mandhan Yojana)। এই পরিকল্পনায় রাস্তার পাশের বিক্রেতা, রিকশাচালক, নির্মাণ শ্রমিক এবং অসংগঠিত সেক্টরের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের বার্ধক্য জীবন সুরক্ষিত করতে সরকারের তরফে সহায়তা করা হবে।

এই প্রকল্পের অধীনে কেন্দ্রীয় সরকার অসংগঠিত ক্ষেত্রে কর্মীদের পেনশনের নিশ্চয়তা প্রদান করে হবে। এই স্কিমে একজন ব্যক্তি প্রতি দিন মাত্র ২ টাকা বাঁচিয়ে বার্ষিক ৩৬,০০০ টাকা পেনশন পেতে পারেন। কী ভাবে এই প্রকল্পের সুবিধা নেওয়া যাবে, নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হল।

আরও পড়ুন-প্রতি মাসে সামান্য বিনিয়োগেই পাওয়া যেতে পারে প্রায় ৩৫ লাখ টাকা; জানুন পোস্ট অফিসের এই স্কিম নিয়ে বিশদে

প্রতি মাসে ৫৫ টাকা জমা দিতে হবে

এই স্কিম শুরু করতে প্রতি মাসে ৫৫ টাকা অর্থাৎ দৈনিক ২ টাকা করে জমা করতে হবে। ১৮ বছর বয়স থেকে প্রতি দিন প্রায় ২ টাকা করে সঞ্চয় করে বার্ধক্য বয়সে বার্ষিক ৩৬,০০০ টাকা টাকা পেনশন পাওয়া যেতে পারে।

যদি কোনও ব্যক্তি ৪০ বছর বয়স থেকে এই প্রকল্পটি শুরু করেন তবে তাঁকে প্রতি মাসে ২০০ টাকা করে জমা দিতে হবে। ৬০ বছর পূর্ণ হওয়ার পরই পেনশন শুরু হয়ে যাবে। ৬০ বছর অবধি টাকা জমা দেওয়ার পর প্রতি মাসে ৩,০০০ টাকা করে অর্থাৎ বছরে বছরে মোট ৩৬,০০০ টাকা পেনশন পাওয়া যাবে।

কী কী নথির প্রয়োজন হবে?

এই স্কিমে আবেদন করার জন্য একটি সেভিংস ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এবং আধার কার্ড থাকতে হবে। আবেদনকারীর বয়স ১৮ বছর থেকে ৪০ বছরের মধ্যে হতে হবে।

কী ভাবে আবেদন করা যায়?

এই স্কিমের জন্য আবেদনকারীকে কমন সার্ভিস সেন্টারে (CSC) রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। CSC পোর্টালে গিয়ে অনলাইনে এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করা যাবে। সরকার শুধুমাত্র এই প্রকল্পের জন্য একটি ওয়েব পোর্টাল তৈরি করেছে। একটি আবেদন ফর্মে সমস্ত তথ্য যথাযথ ভাবে পূরণ করে প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।

আরও পড়ুন- ঝুঁকি এড়িয়ে বেশি রিটার্ন, এক নজরে দেখে নিন সুরক্ষিত বিনিয়োগের সেরা ৫ উপায়

আবেদন ফর্মে কী কী তথ্য দিতে হবে?

এই স্কিমে রেজিস্ট্রেশনের জন্য আধার কার্ড নম্বর, সেভিংস বা জন ধন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের পাসবুক এবং একটি মোবাইল নম্বরের প্রয়োজন হবে। এছাড়া, সরকার যাতে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে মাসিক টাকা কেটে নিতে পারে সেই মর্মে ব্যাঙ্কের থেকে একটি সম্মতিপত্র নিতে হবে।

First published: