ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ডে এই বিশেষ সুবিধাও পাওয়া যায়, জেনে নিন বিস্তারিত....

ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ডের ভেরিয়েন্টের উপর নির্ভর করে ৫০ হাজার থেকে ১০ লক্ষ টাকার ইনস্যুরেন্স কভারেজ ৷

ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ডের ভেরিয়েন্টের উপর নির্ভর করে ৫০ হাজার থেকে ১০ লক্ষ টাকার ইনস্যুরেন্স কভারেজ ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: বর্তমানে বেশির ভাগ মানুষ ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ড ব্যবহার করে থাকেন ৷ তবে শুধু টাকা তোলা বা পেমেন্ট ছাড়াও একাধিক সুবিধা পাওয়া যায় এই কার্ডে ৷ কিন্তু আমরা অনেকেই সে বিষয়ে জানি না ৷ একাধিক ব্যাঙ্ক ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড ইনস্যুরেন্স কভার দিয়ে থাকে ৷ আপনার কাছে কী ধরনের কার্ড রয়েছে তার উপর নির্ভর করবে কত টাকা ইনস্যুরেন্স কভার মিলবে ৷

    চেন্নাইয়ের ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্কের (Indian Bank) এক শীর্ষ আধিকারিক জানিয়েছেন ব্যাঙ্ক রুপে কার্ড প্রোগ্রাম অনুযায়ী, ডেবিট কার্ডে ইস্যুরেন্স কভার দেওয়া হয় ৷ তিনি আরও জানান, ব্যাঙ্কের তরফে জারি সমস্ত ক্রেডিট কার্ডে বিমা কভার মিলবে ৷ গ্রাহকের দুর্ঘটনায় মৃত্যু বা বিকলাঙ্গ হয়ে গেলে তাঁদের ইনস্যুরেন্স দেওয়া হয়ে থাকে ৷

    ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ডের ভেরিয়েন্টের উপর নির্ভর করে ৫০ হাজার থেকে ১০ লক্ষ টাকার ইনস্যুরেন্স কভারেজ ৷ পার্সোনাল অ্যাক্সিডেন্ট পলিসি কেবল দুর্ঘটনায় মৃত্যু বা আহত হয়ে মৃত্যু হলে কভার দিয়ে থাকে ৷

    এইচডিএফসি ব্যাঙ্কের সূত্রের খবর, ইনস্যুরেন্স কভারেজ নির্ভর করে গ্রাহকের ব্যাঙ্কের সঙ্গে কেমন সম্পর্ক ৷ ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড দুইয়ের জন্য বিমা কভারেজ ২ লক্ষ থেকে শুরু হয় ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ৷

    তবে গ্রাহকরা এই সমস্ত সুবিধার বিষয়ে বেশির ভাগ সময়ই জানেন না ৷ এটা ব্যাঙ্কের দায়িত্ব গ্রাহকদের সমস্ত পরিষেবার বিষয়ে সচেতন করা ৷ ব্যাঙ্কের তরফে জানানো হয়েছে, ইনস্যুরেন্স কভার দাবি করার জন্য একটি শর্ত হচ্ছে কার্ড অ্যাক্টিভ থাকতে হবে এবং একটি বিশেষ টাইম ফ্রেমের মধ্যে ক্লেম করতে হবে ৷

    রুপে ইনস্যুরেন্স প্রোগ্রাম অনুযায়ী, দুর্ঘটনার দিন থেকে ৯০ দিনের মধ্যে ক্লেম করতে হবে ৷ এবং ক্লেমের সঙ্গে সমস্ত তথ্য জমা দিতে হবে ৷ পাশাপাশি দুর্ঘটনার ৯০ দিন আগে কার্ড থেকে অ্যাক্টিভ ট্রানজাকশন থাকতে হবে ৷

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published: