Home /News /alipurduar /
Alipurduar: রোজ রাত বাড়লেই হাতির হানা! আতঙ্কে ঘুম উড়েছে আলিপুরদুয়ারবাসীর

Alipurduar: রোজ রাত বাড়লেই হাতির হানা! আতঙ্কে ঘুম উড়েছে আলিপুরদুয়ারবাসীর

title=

বৃষ্টি শুরু হতেই হাতির হানার ঘটনা ঘটছে আলিপুরদুয়ার জেলার বিভিন্ন ব্লকে। সবচাইতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত বীরপাড়া-মাদারিহাট ব্লকের শতাধিক মানুষ।

  • Share this:

    আলিপুরদুয়ার: বৃষ্টি শুরু হতেই হাতির হানার ঘটনা ঘটছে আলিপুরদুয়ার জেলার বিভিন্ন ব্লকে। সবচাইতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত বীরপাড়া-মাদারিহাট ব্লকের শতাধিক মানুষ। মে মাসে হাতির হানার ঘটনা খুব কম হলেও,জুন মাস পড়তেই প্রতিরাতে লোকালয়ে হানা দিচ্ছে হাতির দল। ঘরবাড়ি ভাঙচুরের পাশাপাশি,ভুট্টা ক্ষেতে তাণ্ডব চালাচ্ছে হাতির দল। বনদফতর সূত্রে জানা গিয়েছে জুন মাসের তিন তারিখ থেকে হাতিদের তাণ্ডব শুরু হয়েছে লোকালয়ে। কখনো একটি বুনো হাতি,আবার কখনো কুড়িটি হাতির একটি দল তাণ্ডব চালাচ্ছে এলাকায়। হাতির হানার ঘটনা সবচাইতে বেশি আলিপুরদুয়ার জেলার মাদারিহাট বীরপাড়া ফালাকাটা ব্লকে। প্রতি রাতেই খয়েরবাড়ি ফরেস্ট থেকে বেরিয়ে গ্রামে হানা দিচ্ছে হাতির পাল। জানা যায়,সম্প্রতী ফালাকাটার পূর্ব দেওগাঁওয়ে প্রায় ৫০টি হাতি হানা দেয়। ওই এলাকার মঞ্জু অধিকারী মনিলাল বর্মনের বাড়িতে ভাঙচুর চালায় হাতি। তছনছ হয়ে গিয়েছে সুশীল বর্মন, জহিরউদ্দিন মিয়াঁ, উকিল বর্মন, নুর আলম, দীনবন্ধু বর্মন, সফিকুল হক, বিসাদু বর্মন সহ অনেকেরই পাটখেত ভুট্টাখেত।এরমধ্যেই দক্ষিণ মাদারিহাট এলাকায় চলেছে হাতির হানা। বনকর্মীদের দেরিতে আসার কারণে দুজন বাসিন্দার ঘর ভেঙে দেয় হাতির দল।

     

     

    মাদারিহাটের মেঘনাদ সরণীতে মাঝেমধ্যেই চলে হাতির হানা। হাতি হানা দিয়ে নষ্ট করে দেয় ভুট্টা ক্ষেত।ক্ষোভে অবশিষ্ট ভুট্টা উঠিয়ে দেন চাষীরা।কালচিনি ব্লকের ভারত-ভুটান সীমান্তবর্তী জয়গাঁ,দক্ষিণ লতাবাড়ি,মধু চা বাগান এলাকায় প্রতিরাতে বক্সার জঙ্গল জলদাপাড়া জঙ্গল থেকে বুনো হাতি বেরিয়ে তাণ্ডব চালাচ্ছে। বনকর্মীদের টহলের দাবি প্রতিবার জানাচ্ছেন এলাকাবাসীরা। আলিপুরদুয়ারের ফালাকাটা ব্লকের সরুগাঁও চা বাগান এলাকায় হাতির হানার ঘটনা ঘটে গত বুধবার গভীর রাতে। একপাল হাতি হানা দেয় ওই এলাকায়।সারা রাত গোটা এলাকায় তাণ্ডব চালিয়ে এখনও এলাকা ছাড়েনি ওই হাতির পালটি।

    আরও পড়ুনঃ অবিরাম বৃষ্টি আলিপুরদুয়ারে! জারি লাল সতর্কতা

     

     

    খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন দলগাঁও রেঞ্জের বন কর্মীরা।বন দফতর হাতির গতিবিধির উপর নজর রাখছে। এদিকে গত বৃহস্পতিবার একটি হাতির দল ডুয়ার্সের জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যান চিলাপাতা রেঞ্জের জঙ্গল থেকে বেরিয়ে লোকালয়ে প্রবেশ করে। এর পরেই মথুরা চা বাগান ঢুকে চকোয়াখেতি ডব্বর হাট গ্রামে প্রবেশ করে পরবর্তীতে বিভিন্ন এলাকায় দাপিয়ে বেড়ায়, স্থানীয় সূত্রে জানা যায় কয়েকটি বাড়ি কলা বাগান তছনছ করে হাতির দলটি।

    আরও পড়ুনঃ বৃষ্টিতে প্রাচীর ভেঙে আলিপুরদুয়ার-ফালাকাটার সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন 

     

     

    ক্ষতিগ্রস্তদের কথায়,বর্ষাকালে হাতির হানা এলাকায় বেশি হয় জেনেই তারা সতর্ক থাকেন।রাত হলে সজাগ থাকেন তারা।হাতি এলাকায় প্রবেশ করলেই ফোনে যোগাযোগ করা হয় নিকটবর্তী রেঞ্জ অফিসে।কিন্তু যখন বনকর্মীরা আসেন তখন সব শেষ হয়ে যায়।এলাকায় বনকর্মীদের টহল প্রতিদিন থাকলে এমন ঘটনা ঘটে না।

     

     

    *যোগাযোগের ঠিকানা-GG3H 5Q8, আলিপুরদুয়ার পশ্চিমবঙ্গ। 736121*

     

     

     

    অফিসের গুগল ম্যাপ- Divisional Forest Office       Ananya Dey
    First published:

    Tags: Alipurduar, Elephant Attack

    পরবর্তী খবর