হোম » ছবি » ভারত-চিন » আলোচনায় কোনও লাভ হচ্ছে না,সীমান্তে নিজেদের জোর কীভাবে বাড়িয়ে যাচ্ছে চিন,জানুন

আলোচনায় কোনও লাভই হচ্ছে না, সীমান্তে নিজেদের জোর কীভাবে বাড়িয়ে যাচ্ছে চিন, জানুন...

  • Bangla Editor

  • 18

    আলোচনায় কোনও লাভই হচ্ছে না, সীমান্তে নিজেদের জোর কীভাবে বাড়িয়ে যাচ্ছে চিন, জানুন...

    •পূর্ব লাদাখে ভারত (India) ও চিনা (China) সেনাবাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনার পর দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। দুই দেশের সেনাবাহিনীই প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা (LAC) বরাবর দাঁড়িয়ে রয়েছে৷ সোমবার ভারত ও চিনের মধ্যে সপ্তম দফার সামরিক ও কূটনৈতিক আলোচনা চললেও, খবর পাওয়া গিয়েছে যে, পাঙ্গংয়ের উত্তর উপকূলে চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি (PLA)যথেষ্ট তৎপর।Representative Image

    MORE
    GALLERIES

  • 28

    আলোচনায় কোনও লাভই হচ্ছে না, সীমান্তে নিজেদের জোর কীভাবে বাড়িয়ে যাচ্ছে চিন, জানুন...

    •প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার ভারতের দিকে আরও এগিয়ে আসার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের৷ চিনের এই পদক্ষেপে অনুমান করা হচ্ছে যে, সীমান্তে অচলাবস্থা জিইয়ে রাখতে চাইছে চিন৷ দুই দেশের মধ্যে স্থিতাবস্থা বজায় রাখার কোনও পরিকল্পনা নেই চিনের৷ এমনই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা৷Representative Image

    MORE
    GALLERIES

  • 38

    আলোচনায় কোনও লাভই হচ্ছে না, সীমান্তে নিজেদের জোর কীভাবে বাড়িয়ে যাচ্ছে চিন, জানুন...

    •সূত্রের খবর, পিএলএ একাধিক ফিঙ্গার পয়েন্টে প্যাংগং-এর উত্তরে মোতায়েন সেনার মনোবল বাড়ানোর জন্য অতিরিক্ত ব্রিগেড মোতায়েন করা হয়েছে। আর্মি কমান্ডারদের মতে, এখানকার আবহাওয়া দ্রুত পরিবর্তিত হচ্ছে দেখে চিন একের পর এক সেনাবাহিনী বদল করে চলেছে৷ এর ফলে তাদের উপর আবহাওয়ার প্রভাব কম পড়বে। এবং তাঁদের কর্মক্ষমতায় কোনও বাধা আসবে না৷ Representative Image

    MORE
    GALLERIES

  • 48

    আলোচনায় কোনও লাভই হচ্ছে না, সীমান্তে নিজেদের জোর কীভাবে বাড়িয়ে যাচ্ছে চিন, জানুন...

    •চিনা সেনারা ফিংগার পয়েন্ট ফোরে ১৮ হাজার ফুটে লাগাতার সেনাকর্মীদের রোটেশন পদ্ধতিতে কাজ ডিউটে দিচ্ছে। সামনের সারির সেনাদের মনোবল বাড়ানোর জন্য পিএলএ একই সময়ে একসঙ্গে এখানে ২০০ সেনা মোতায়েন করছে। চিনের প্রস্তুতির দিকে লক্ষ্য রেখে বলা যেতে পারে যে, এই শীতে চিনা সেনাবাহিনী কোনও ক্ষেত্রেই পিছপা হতে প্রস্তুত নয়।Representative Image

    MORE
    GALLERIES

  • 58

    আলোচনায় কোনও লাভই হচ্ছে না, সীমান্তে নিজেদের জোর কীভাবে বাড়িয়ে যাচ্ছে চিন, জানুন...

    •কর্পস কমান্ডার পর্যায়ে সপ্তমবারের জন্য ভারত ও চিনের মধ্যে সোমবার বৈঠক হচ্ছে। এই বৈঠকে ভারত সেনা প্রত্যাহার করতে চিনকে চাপ দিতে চলেছে। দু'দেশের মধ্যে পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় (LAC) বেশ কয়েক মাস ধরে আশান্তি চলছে ।Representative Image

    MORE
    GALLERIES

  • 68

    আলোচনায় কোনও লাভই হচ্ছে না, সীমান্তে নিজেদের জোর কীভাবে বাড়িয়ে যাচ্ছে চিন, জানুন...

    •ভারতের পক্ষ থেকে এই বৈঠকে লেহ-তে ১৪ তম কর্পসের ('ফায়ার অ্যান্ড ফিউরি') এর কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল হরিন্দর সিংয়ের এটি শেষ বৈঠক। ১৪ অক্টোবর থেকে তাঁর স্থলাভিষিক্ত হলেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল পিজিকে মেনন। কর্পস কমান্ডার স্তরে মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে হরিন্দর সিংয়ের৷ এর পর তাঁকে দেরাদুনের আইএমএ-এ কমান্ড্যান্ট হিসেবে নিযুক্ত করা হয়েছে। সোমবার অনুষ্ঠিত বৈঠকে লেফটেন্যান্ট জেনারেল মেননও ভারতীয় প্রতিনিধি দলের সঙ্গে উপস্থিত থাকবেন।Representative Image

    MORE
    GALLERIES

  • 78

    আলোচনায় কোনও লাভই হচ্ছে না, সীমান্তে নিজেদের জোর কীভাবে বাড়িয়ে যাচ্ছে চিন, জানুন...

    •এর আগে, ২১ শে সেপ্টেম্বর মোলডোর চিনা অঞ্চলে, দুই দেশের মধ্যে কর্পস কমান্ডার স্তরের ষষ্ঠ দফার আলোচনা হয়েছিল। এই বৈঠক প্রায় ১৪ ঘণ্টা চলে। এতে বিদেশ মন্ত্রকের আধিকারিকরাও অংশ নিয়েছিলেন। বৈঠকে মানসিক চাপ কমানোর উপায় নিয়ে আলোচনা করা হয়।Representative Image

    MORE
    GALLERIES

  • 88

    আলোচনায় কোনও লাভই হচ্ছে না, সীমান্তে নিজেদের জোর কীভাবে বাড়িয়ে যাচ্ছে চিন, জানুন...

    •ভারতীয় প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে ছিলেন লেহের ভারতীয় সেনাবাহিনীর ১৪ তম কর্পসের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল হরিদার সিং। সামরিক আলোচনার জন্য ভারতীয় প্রতিনিধি দলের মধ্যে প্রথমবারের মতো, বিদেশ মন্ত্রকের এক উচ্চপর্যায়ের আধিকারিকও উপস্থিত ছিলেন।Representative Image

    MORE
    GALLERIES