Home /News /west-midnapore /
Paschim Medinipur: রাখী ও জাতীয় পতাকা তৈরীর জন্য ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে কর্মশালা

Paschim Medinipur: রাখী ও জাতীয় পতাকা তৈরীর জন্য ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে কর্মশালা

title=

আর দুদিন বাদেই বাংলা তথা বাঙালির আরও এক পার্বণ রাখী বন্ধন উৎসব, পাশাপাশি চলতি মাসেই রয়েছে স্বাধীনতা দিবস।

  • Share this:

    #পশ্চিম মেদিনীপুর : আর দুদিন বাদেই বাংলা তথা বাঙালির আরও এক পার্বণ রাখী বন্ধন উৎসব, পাশাপাশি চলতি মাসেই রয়েছে স্বাধীনতা দিবস। তাই জাতীয় পতাকা সম্পর্কে ছাত্র ছাত্রীদের সাধারণ জ্ঞান দিতে এবং রাখীর মধ্য দিয়ে সাধারন মানুষকে সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও সচেতনতার বার্তা দেওয়ার লক্ষ্যে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার মেদিনীপুর সদর ব্লকের পলাশী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সোমবার জাতীয় পতাকা এবং রাখী তৈরীর কর্মশালার আয়োজন করে স্কুল কর্তৃপক্ষ। প্রতি বছরই এই বিদ্যালয়ের ক্ষুদে ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে এই কর্মশালার আয়োজন করে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কিন্তু করোনা মহামারীর জন্য বিগত দুবছর সেই কর্মশালা করতে পারেনি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তবে এবছর পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হওয়ায় সেই কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছিল। এই কর্মশালায় কমবেশি সমস্ত শ্রেণীর প্রায় ১২৫ জন ছাত্রছাত্রী অংশ নেয়। তাদের হাতে কলমে শেখানো হয় ভারতের জাতীয় পতাকা তৈরী, একই সাথে শেখানো হয় রাখী তৈরী করা।

    বিদ্যালয়ের সহ শিক্ষক অসীম কুমার মন্ডল জানান, এই কর্মশালার মাধ্যমে একদিকে ছাত্রছাত্রীরা যেমন স্কুল স্তর থেকে জাতীয় পতাকায় কিকি রঙ থাকে, কোন রঙ উপরে, মাঝে এবং নীচে থাকে, সে সম্পর্কে যেমন ছাত্রছাত্রীদের নূন্যতম ধারনা তৈরি হবে।

    আরও পড়ুনঃ হাজারও চেষ্টা সত্ত্বেও নিষিদ্ধ পলিব্যাগ ব্যবহারে নেই সম্পূর্ন লাগাম!

    তেমনই ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রাম, স্বাধীনতা সংগ্রামে শহীদ বীর বিপ্লবীদের ভুমিকা, দেশের প্রতি সম্মানবোধ, দেশাত্মবোধ তৈরি হবে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে। পাশাপাশি রাখী তৈরীর মাধ্যমে মানুষকে গাছ লাগানো, পরিবেশ দূষণ রোধ, সবুজায়ন, প্লাষ্টিক বর্জন সম্পর্কে সচেতন করার প্রচেষ্টা করা হবে বলে মনে করেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষিকারা।

    আরও পড়ুনঃ গ্রামীন হাটে হাতি! দেখেই দৌড়ে ছুটোছুটি

    স্কুলের তরফে আরও জানানো হয়, এবার ছাত্রছাত্রীরা প্রায় ২০০০ রাখী তৈরীর লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে। এই সমস্ত রাখী তারা ঐদিন আত্মীয় স্বজন, বন্ধুবান্ধব, পরিচিত, গ্রামবাসীদের পরিয়ে দেবেন বলে জানিয়েছেন স্কুল কর্তৃপক্ষ।

    Partha Mukherjee
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Paschim medinipur

    পরবর্তী খবর