Home /News /west-midnapore /
IIT Kharagpur: IIT খড়গপুর RuTAG প্রকল্পের অধীনে এক NGO-কে স্থানান্তর করল IIT তে তৈরি ৫ টি মেশিন

IIT Kharagpur: IIT খড়গপুর RuTAG প্রকল্পের অধীনে এক NGO-কে স্থানান্তর করল IIT তে তৈরি ৫ টি মেশিন

IIT খড়্গপুর

IIT খড়্গপুর

নতুন প্রযুক্তিগত উদ্ভাবনের সাথে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে খড়গপুর আইআইটির তৈরি পাঁচটি বিশেষ যন্ত্র তুলে দেওয়া হল একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাকে আইআইটি খড়গপুর।

  • Share this:

    #পশ্চিম মেদিনীপুর: IIT খড়গপুরের কৃষি ও খাদ্য প্রকৌশল বিভাগ সম্প্রতি ঝাড়খণ্ডের "সেন্টার ফর ওয়ার্ল্ড সলিডারিটি" নামে এনজিওতকে পাঁচটি ভিন্ন মেশিন হস্তান্তর করল। ৫টি মেশিনই আইআইটি খড়গপুরে তৈরি করা হয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে দুটি ইলেকট্রিফাইড মেকানাইজড ঢেঁকি, একটি পাফড রাইস (মুড়ি) মেকিং মেশিন, একটি সাবাইরো মেকিং মেশিন, একটি রাইস গ্রেডিং মেশিন এবং একটি সাল লিফ প্লেট মেকিং মেশিন৷ আইআইটি খড়গপুরের ক্রমাগত পর্যবেক্ষণ এবং প্রযুক্তিগত সহায়তায় এই মেশিনগুলি ইনস্টল করা হবে ঐ NGO তে। মেশিনগুলো গ্রামীণ খাতে স্থাপন করা হবে এবং এর ব্যবহার অনুযায়ী সুবিধাভোগীদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

    RuTAG পশ্চিমবঙ্গ, ওড়িশা, ঝাড়খণ্ড, এবং বিহারে ৫০ টিরও বেশি NGO র সাথে যুক্ত হয়েছে যারা প্রযুক্তিগত উদ্ভাবন বাস্তবায়ন করছে যা গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর জীবনযাত্রার উন্নতি ঘটাবে। এই প্রসঙ্গে আইআইটি খড়গপুরের ডিরেক্টর অধ্যাপক ভি কে তেওয়ারি জানান, এই ধরণের সংস্থা গুলিকে আধুনিক প্রযুক্তির সাথে দক্ষ করে তুলতে এবং গ্রামীণ উন্নয়নকে উত্সাহিত করতে খড়্গপুর IIT র এই উদ্যোগ৷ নতুন গৃহস্থালী প্রযুক্তি, গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর আশেপাশে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য উৎপাদনের দক্ষতা বাড়াবে।কৃষি ও খাদ্য প্রকৌশল বিভাগের প্রধানপ্রফেসর রিন্টু ব্যানার্জী বলেন, এই নতুন প্রযুক্তিগত উদ্ভাবনের সাথে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর ক্ষমতায়নের দিকে প্রকৃতপক্ষে এটি একটি প্রগতিশীল পদক্ষেপ যা উত্পাদনশীলতা বাড়াবে এবং মানুষের দৈনন্দিন কঠোর শ্রমের বোঝা কমিয়ে দেবে।'

    আরও পড়ুন - প্রেমের টানে বারাসাত থেকে দাসপুরে এসে প্রেমিকের খোঁজে ধর্ণায় প্রেমিকা

    আরও পড়ুন - মাধ্যমিক মেধা তালিকায় রাজ্যের টপ টেন-এ পশ্চিম মেদিনীপুরের সাত পড়ুয়া

    প্রসঙ্গত, ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি খড়গপুর (IIT, KHARAGPUR) একটি উচ্চশিক্ষাগত এবং একাডেমিক প্রতিষ্ঠান, যা বিশ্বব্যাপী তার স্নাতক আউটপুট এবং সাশ্রয়ী মূল্যের প্রযুক্তি উদ্ভাবনের জন্য পরিচিত। ১৯৫১ সালে একটি ডিটেনশন ক্যাম্পে ন্যাশনাল ইমপোর্টেন্স ইনস্টিটিউট হিসাবে প্রতিষ্ঠিত, ইনস্টিটিউটটি ভারতের শীর্ষ পাঁচটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে স্থান করে নেয় এবং ভারত সরকার কর্তৃক "দ্য ইনস্টিটিউট অফ এমিনেন্স" পুরস্কৃত হয় ২০১৯ সালে। ইনস্টিটিউটটি বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক এবং জাতীয় মিশন প্রকল্পে নিযুক্ত রয়েছে এবং গবেষণার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য জায়গা পেয়েছে। বছরের পর বছর ধরে IIT খড়গপুর বিশ্বের জন্য শিল্প প্রস্তুত পেশাদারদের উন্নয়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করছে এবং শিক্ষার ক্ষেত্রে শ্রেষ্ঠত্ব প্রদানের জন্য একটি অগ্রগামী প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে উঠেছে।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: IIT KHARAGPUR, West Midnapore

    পরবর্তী খবর