Home /News /west-midnapore /
West Medinipur News|| সাত সকালেই উদ্ধার হাত-পা বাঁধা বৃদ্ধের দগ্ধ মৃতদেহ, চাঞ্চল্য দাসপুরে

West Medinipur News|| সাত সকালেই উদ্ধার হাত-পা বাঁধা বৃদ্ধের দগ্ধ মৃতদেহ, চাঞ্চল্য দাসপুরে

title=

Half-burnt body found at West Medinipur: স্থানীয়দের অনুমান পারিবারিক বিবাদের জেরেই খুন।তবে পূর্ণাঙ্গ তদন্তের আগে মৃত্যু সম্পর্কে বয়ান দিতে নারাজ পুলিশ।

  • Share this:

    #পশ্চিম মেদিনীপুর: বৃহস্পতিবার ভোরে প্রায় একশ পাঁচ বছর বয়সী এক বৃদ্ধের হাত পা বাঁধা অর্দ্ধদগ্ধ মৃতদেহ উদ্ধারকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকায়। মৃতদেহের পাশে থাকা একটি হাতে লেখা, "বেইমানের প্রায়শ্চিত্ত" বয়ানকে ঘিরে ঘনালো রহস্য। তদন্তে নামল পুলিশ। নিজের বাড়ির পাশে থাকা একটি কুঁড়ে ঘরের ভেতরে প্রায় পুড়ে ছাই হয়ে যাওয়া দেহ উদ্ধার করেছেন স্থানীয়রা। স্থানীয়দের অনুমান পারিবারিক বিবাদের জেরেই খুন।তবে পূর্ণাঙ্গ তদন্তের আগে মৃত্যু সম্পর্কে বয়ান দিতে নারাজ পুলিশ।

    চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুর থানার রানিচক এলাকায়। মৃত বৃদ্ধের নাম নন্দ মন্ডল (১০৫বছর)। প্রতিবেশীদের দাবি ভোরের দিকে বাড়ির পাশে থাকা একটি কুঁড়ে ঘরের মধ্যে তার হাত পা বেঁধে কেউ বা কারা আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে মেরেছে তাকে। ওই বৃদ্ধ যে হুইল চেয়ারে করে ঘোরাফেরা করতেন সেটি পাশেই পড়ে রয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে ওই কুঁড়ে থেকে ধোঁয়া দুর্গন্ধ বেরোতে দেখে স্থানীয়রা ভেতরে ঢুকে ছিলেন। সেখানে দেখা যায় পুড়ে ছাই হয়ে যাওয়া দেহ পড়ে রয়েছে। পাশেই একটি চিরকুটে লিখে রাখা হয়েছে "বেইমানের প্রায়শ্চিত্ত"।

    আরও পড়ুন: ১৪ বার গর্ভপাতে বাধ্য, তাতেও বিয়েতে রাজি নন প্রেমিক! প্রেমিকার পরিণতি চোখে জল এনে দেবে

    স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, নন্দ বাবুর চার ছেলে। বড় ছেলে মারা গিয়েছে অনেক আগেই। দুই ছেলে চেন্নাইয়ে থাকেন কর্মসূত্রে। মেজ ছেলে রানীচকের বাড়িতে থাকেন। চেন্নাইয়ে থাকা ছেলেরাই বাবাকে বেশিরভাগ দেখভাল করতেন। মেজ ছেলের পরিবারের সঙ্গেই স্ত্রীকে নিয়ে থাকতেন নন্দ মন্ডল। প্রতিবেশীদের অনুমান, "সম্পত্তি সংক্রান্ত বিবাদ চলছিল পরিবারে। তা থেকে এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।" ঘটনার খবর পেয়ে দাসপুর থানার পুলিশ সেখানে হাজির হয় । শুরু করেছে তদন্ত।

    Partha Mukherjee

    Published by:Shubhagata Dey
    First published:

    Tags: West Medinipur

    পরবর্তী খবর