Home /News /west-midnapore /
Paschim Medinipur: গানে গানে প্রিয় গায়ক কেকে-কে শ্রদ্ধাঞ্জলি শহর মেদিনীপুরে

Paschim Medinipur: গানে গানে প্রিয় গায়ক কেকে-কে শ্রদ্ধাঞ্জলি শহর মেদিনীপুরে

title=

প্রিয় গায়ক কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ (Krishna Kumar Kunnath) ওরফে কে কে 'না ফেরার দেশে', তবে তাঁর প্রতিটি গান আজও শ্রোতাদের মনে-প্রাণে-হৃদয় জুড়ে।

  • Share this:

    পশ্চিম মেদিনীপুরঃ প্রিয় গায়ক কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ (Krishna Kumar Kunnath) ওরফে কে কে 'না ফেরার দেশে', তবে তাঁর প্রতিটি গান আজও শ্রোতাদের মনে-প্রাণে-হৃদয় জুড়ে। প্রেমে কিংবা বিরহে আজও তরুণ-তরুণীরা গেয়ে ওঠেন- 'ক্যায়া ইয়ে প্যায়ার হ্যায়' কিংবা 'তুহি মেরি সব হ্যায়' অথবা 'তড়প তড়প কে ইস দিল সে আহে নিকলতি রহি'। প্রিয় সেই গায়ককে তাঁর গানেই শ্রদ্ধা জানালেন শহর মেদিনীপুরের ৬০ জন তরুণ সঙ্গীতশিল্পী। রবিবার সন্ধ্যায় পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে এই অনন্য শ্রদ্ধাঞ্জলি অনুষ্ঠান 'সব হারানোর মাঝেও' মন ভালো করে দিল সঙ্গীতানুরাগী শহরবাসীর। মাত্র সাত দিন আগে গিটার শিল্পী সায়ন দে (স্যান্ডি) এই আহ্বান জানিয়েছিলেন ফেসবুকে।

    এভাবে সাড়া পাবেন ভাবেননি! রবিবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার মধ্যে গিটার সহ নানা বাদ্যযন্ত্র নিয়ে জেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে সায়ন ছাড়াও পৌঁছে যান এই শহর মেদিনীপুরের এই প্রজন্মের সঙ্গীতশিল্পীদের মধ্যে অন্যতম- সৌনক ব্যানার্জি, রাজা দাস, সৌম্যদীপ দাস মহাপাত্র, রিও নন্দ, দেবীপদ পান্ডা সহ অনেকেই।‌

    আরও পড়ুনঃ রাস্তার জল জমা গর্তে ছিপ ফেলে মাছ ধরার ভঙ্গিতে অভিনব প্রতিবাদ!

    সবমিলিয়ে ৬০ জন সঙ্গীত শিল্পী এবং গীটার শিল্পী এদিন পৌঁছান বলে জানিয়েছেন সায়ন। এছাড়াও, অসংখ্য তরুণ-তরুণী সহ কে.কে অনুরাগীরা ছিলেন। প্রায় ৪০-৫০ জন শিল্পী একসঙ্গে গাইলেন, 'তুহি মেরি সব হ্যায়', 'ক্যায়া ইয়ে প্যায়ার হ্যায়', 'ইয়ারো দোস্তি বড়ি হসিন হ্যায়' থেকে 'হম রহে ইয়া না রহে কাল'।

    আরও পড়ুনঃ গ্রামে হাতির হামলায় এক ব্যক্তির মৃত্যু, এলাকা জুড়ে উত্তেজনা

    গিটারে সঙ্গত করলেন একসাথে প্রায় ২০ জন শিল্পী। অভিনব এই আয়োজনে অভিভূত হলেন জেলা শহরের সঙ্গীতানুরাগীরা মানুষেরা। গানে গানে স্মরন করলেন KK কে।

    Partha Mukherjee
    First published:

    Tags: KK, Medinipur, Paschim medinipur

    পরবর্তী খবর