Home /News /west-bardhaman /
Paschim Bardhaman: হিংসুটে চোরের এ কি কাণ্ড! টাকা না পাওয়ার রাগে নষ্ট বহু মিষ্টি!

Paschim Bardhaman: হিংসুটে চোরের এ কি কাণ্ড! টাকা না পাওয়ার রাগে নষ্ট বহু মিষ্টি!

ঝুঁকি নিয়ে করা পরিশ্রমের ফল শূন্য। স্বাভাবিকভাবে রাগ হওয়ারই কথা। তাই রাগে এমন কাণ্ড ঘটাল চোরের দল, যা শুনে আপনি হেঁসে লুটোপুটি খাবেন।

  • Share this:

    #পশ্চিম বর্ধমান : ঝুঁকি নিয়ে করা পরিশ্রমের ফল শূন্য। স্বাভাবিকভাবে রাগ হওয়ারই কথা। তাই রাগে এমন কাণ্ড ঘটাল চোরের দল, যা শুনে আপনি হেঁসে লুটোপুটি খাবেন। মিষ্টির দোকানে চুরি করতে গিয়ে পাওয়া যায়নি টাকা পয়সা তাই রাগের চোটে দোকানে থাকা মিষ্টির ওপর ডিটারজেন্ট ছড়িয়ে দিয়ে গিয়েছে চোরের দল এমনই কাণ্ড ঘটেছে পাণ্ডবেশ্বরের একটি মিষ্টির দোকানে। তবে এই ঘটনায় আপনার হাঁসি পেলেও, চোরের কাণ্ড দেখে মাথায় হাত এক ব্যবসায়ীর। রাগের বশে চোরের দল যে ঘটনা ঘটিয়েছে, তাতে বিরক্ত তদন্তকারী পুলিশ কর্মীরা। আর অর্ডার সাপ্লাই দেওয়ার চিন্তায় মাথা খারাপ হওয়ার জোগাড় মিষ্টি ব্যবসায়ীর। উল্টোদিকে আবার, চোরের দল টাকা পয়সা না পেয়ে লুট করে নিয়ে গেছে পাঁচ টিন তেল আর দুটি গ্যাসের সিলিন্ডার। এমনই কাণ্ড হয়েছে পশ্চিম বর্ধমান জেলার পাণ্ডবেশ্বরে। একটি মিষ্টির দোকানে চোর দলের তাণ্ডবকে কেন্দ্র করে সামনে এসেছে এই ঘটনা। পাণ্ডবেশ্বর রেলস্টেশন সংলগ্ন একটি মিষ্টির দোকানে চুরির ঘটনা হয়েছে গতকাল রাতে। সেখানেই এমন অদ্ভুত কাণ্ড ঘটিয়েছে চোরের দল।

    দোকানে চুরি করতে ঢুকে টাকা পয়সা না পেয়ে, খালি হাতে ফিরতে হয়েছে চোরের দলকে। যদিও একেবারে খালি হাতে ফিরতে হয়েছে বললে ভুল হবে। কারণ টাকা পয়সা না পেয়ে মিষ্টি তৈরীর বিভিন্ন কাঁচামাল তুলে নিয়ে গিয়েছে চোরের দল। সঙ্গে দোকানে থাকা অর্ডারের মিষ্টি নষ্ট করে দিয়ে গিয়েছে ক্ষোভ প্রশমন করতে। মিষ্টির মধ্যে মিশিয়ে দিয়ে গিয়েছে ডিটারজেন্ট। ফলে ওই সমস্ত মিষ্টিগুলি খাবার অযোগ্য হয়ে গিয়েছে। বিপুল পরিমাণ মিষ্টি অর্ডার থাকায়, সেই মিষ্টি এখন সময়মতো পৌঁছে দেওয়ার নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন দোকানের মালিক এবং কারিগররা। এদিন সকালে দোকান খুলতে এসে এক কর্মচারী দেখেন দোকানের শাটার নামানো অবস্থায় রয়েছে।

    আরও পড়ুনঃ যাত্রাশিল্পের উন্নতির জন্য বুকিং সেন্টার বাড়ানোর নিদান

    কিন্তু তালাটি ভেঙ্গে অন্য পাশে নামানো আছে। দোকানের ভেতরে ঢুকেই তিনি দেখতে পান পিছনের দরজাটি খোলা অবস্থায় পড়ে রয়েছে। আর দোকানের রান্নাঘরে থাকা সমস্ত কাঁচামাল উধাও। সেখান থেকে দুটি গ্যাসের সিলিন্ডার, ৫ টিন তেল, এক জার ডালডা, আর একটি গুঁড়ো দুধের জার তুলে নিয়ে গিয়েছে চোরের দল। সঙ্গে দোকানে বাসন পরিষ্কার করার জন্য ব্যবহৃত ডিটারজেন্ট মিশিয়ে দিয়ে গিয়েছে মিষ্টির মধ্যে। দোকানে থাকা সমস্ত মিষ্টির পাত্র গুলিতে ডিটারজেন্ট মেশানো অবস্থায় পাওয়া গিয়েছে।

    আরও পড়ুনঃ জলেই জন্ম নেবে গাছ! হাইড্রোফোনিক পদ্ধতি সম্বন্ধে জানুন...

    মিষ্টির বাটি থেকে তা তুলতে গিয়ে বিষয়টি প্রত্যক্ষ করেন কর্মচারী। অর্ডারের ভিত্তিতে তৈরি করা ওই মিষ্টিগুলি নষ্ট হয়ে যাওয়ার ফলে, তা ডেলিভারি দেওয়া নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন দোকানের মালিক এবং কারিগররা। কারণ মিষ্টিগুলি থেকে ডিটারজেন্টের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। এই ঘটনার পর খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। পুলিশ কর্মীরা এসে পুরো ঘটনাস্থল খতিয়ে দেখেন এবং মিষ্টির পাত্র পরীক্ষা করে দেখেন। চোরের এমন কান্ড থেকে বিরক্ত পুলিশকর্মীরা। তবে এমন হিংসুটে চোরের দলকে পাকড়াও করতে পুলিশকর্মীরা তদন্ত শুরু করেছেন। অন্যদিকে এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

    Nayan Ghosh
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Pandabeswar, Paschim bardhaman

    পরবর্তী খবর