Home /News /west-bardhaman /
Paschim Bardhaman: পুলিশের গাড়ির সঙ্গে সংঘর্ষে মৃত্যু আরপিএফ কর্মীর

Paschim Bardhaman: পুলিশের গাড়ির সঙ্গে সংঘর্ষে মৃত্যু আরপিএফ কর্মীর

পুলিশের গাড়ির সঙ্গে সংঘর্ষে মর্মান্তিক মৃত্যু হল এক আরপিএফ কর্মীর। থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিকের গাড়ির সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় আরসিএফ এর হেড কনস্টেবল পদে কর্মরত বিশ্বজিৎ দাসের।

  • Share this:

    পশ্চিম বর্ধমান : পুলিশের গাড়ির সঙ্গে সংঘর্ষে মর্মান্তিক মৃত্যু হল এক আরপিএফ কর্মীর। থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিকের গাড়ির সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় আরসিএফ এর হেড কনস্টেবল পদে কর্মরত বিশ্বজিৎ দাসের। সংঘর্ষের জেরে গুরুতরভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হন তিনি। তারপর সঙ্গে সঙ্গে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু সেখানে তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। জানা গিয়েছে, কাজ থেকে ব্যারাকে ফেরার পথেই দুর্ঘটনার কবলে পড়েন আরপিএফ এর হেড কনস্টেবল পদে কর্মরত বিশ্বজিৎ দাস। তার বয়স ৫২ বছর বলে জানা গিয়েছে। জানা গিয়েছে, চিত্তরঞ্জনের শ্রীলতা স্টেডিয়ামের কাছে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা হয়েছে। স্টেডিয়ামের কাছে অবস্থিত ইয়ং এটলেটিক ক্লাবের সামনে চৌরাস্তার মোড়ে এই দুর্ঘটনা হয়েছে বলে খবর। পুলিশ আধিকারিকের গাড়ির সঙ্গে আরপিএফ কর্মীর স্কুটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়েছে তাতেই গুরুতর ভাবে আঘাত পেয়েছিলেন বিশ্বজিৎ দাস। তার পায়ে গুরুতর ভাবে আঘাত লেগেছিল।

    পাশাপাশি তার মাথায় আঘাত লেগেছিল বলেও খবর পাওয়া যাচ্ছে। জানা গিয়েছে, বিশ্বজিৎবাবুর বাড়ি শ্যামনগরে। তিনি চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানা জিএম অফিস সংলগ্ন আরপিএফ টাউন পোস্টে হেড কনস্টেবল পদে কর্মরত ছিলেন। ইতিমধ্যেই মৃত আরপিএফ কর্মীর দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

    আরও পড়ুনঃ জরুরি ভিত্তিতে অন্ডাল বিমানবন্দরে এলেন মুখ্যমন্ত্রী

    পাশাপাশি শ্যামনগরে তার বাড়িতে খবর দেওয়া হয়েছে। আরপিএফ কর্মীর মৃত্যুর খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে সেখানে হাজির হন আরপিএফ এর সিনিয়র সিকিউরিটি কমিশনার, অ্যাসিস্ট্যান্ট সিকিউরিটি কমিশনার। পাশাপাশি রাজ্য পুলিশের তরফ থেকে সেখানে হাজির হন এসিপি কুলটি, রূপনারায়ণ ফাঁড়ির ইনচার্জ।

    আরও পড়ুনঃ ছোটদের মাঠমুখী করতে আয়োজিত ক্রিকেট টুর্নামেন্ট

    তাছাড়াও ঘটনার সময় থেকেই সেখানে উপস্থিত ছিলেন চিত্তরঞ্জন থানার আধিকারিক। তবে পুলিশের গাড়ি সঙ্গে আরপিএফ কর্মীর দুর্ঘটনায় মৃত্যুতে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। পাশাপাশি মৃত আরপিএফ কর্মীর পরিবার ও সহকর্মীদের মধ্যে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

    Nayan Ghosh
    First published:

    Tags: Asansol, Chittaranjan Locomotive Works, Paschim bardhaman

    পরবর্তী খবর