Home /News /west-bardhaman /
Paschim Bardhaman: পুলিশ বাগানের পাশেই ফের নির্বিচারে বৃক্ষ নিধন!

Paschim Bardhaman: পুলিশ বাগানের পাশেই ফের নির্বিচারে বৃক্ষ নিধন!

title=

ফের নির্বিচারে বৃক্ষ নিধনের অভিযোগ উঠল আসানসোলে। তাও আবার পুলিশ বাগানের পাশেই জঙ্গল থেকে উঠেছে গাছ কাটার অভিযোগ।

  • Share this:

    #আসানসোল : ফের নির্বিচারে বৃক্ষ নিধনের অভিযোগ উঠল আসানসোলে। তাও আবার পুলিশ বাগানের পাশেই জঙ্গল থেকে উঠেছে গাছ কাটার অভিযোগ। মাস খানেক ওই এলাকা থেকে বারোটি অর্জুন গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। আবার সেই জায়গা থেকেই নির্বিচারে গাছ কেটে নেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয় মানুষজন। তারা বলছেন, এইভাবে যদি এলাকার গাছ কেটে নেওয়া হয় তাহলে একদিকে যেমন সবুজ ধ্বংস হয়ে পরিবেশের ক্ষতি হবে, তেমনভাবেই এলাকার সৌন্দর্য নষ্ট হবে। মাইথন সংলগ্ন এলাকায় ঘুরতে বহু মানুষ আসেন প্রকৃতির টানে। এভাবে বৃক্ষনিধন চলতে থাকলে পর্যটন ক্ষেত্রটিও নষ্ট হয়ে যেতে পারে বলে তারা ধারণা করছেন। আসানসোল সালানপুর থানার কল্যানেশ্বরী ফাঁড়ির অন্তর্গত মাইথনের রাস্তার উপর পুলিশ বাগানের ঠিক পাশেই অনায়াসে বিনা অনুমতিতে দিনের আলোয় কেটে ফেলা হচ্ছে গাছগুলি। অভিযোগ উঠেছে এমনটাই। সেখান থেকে বিভিন্ন প্রজাতির বহু গাছ কেটে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ। ওই জায়গায় এর আগেও গাছ কাটার খবর সামনে এসেছিল কিছুদিন আগে।

    প্রায় এক মাস আগে পুলিশ বাগানের পাশে হদলা মৌজার ১০১/১০৩ নাম্বার দাগে উপর ৩৪ কাঠা জায়গায় দেওয়াল ঘেরার সময়, প্রায় ১২টি বড় অর্জুন গাছ কেটে নেন জমির মালিক তথা এলাকার শাসক দলের নেতা জয়দেব গরাই। তখন বন দফতরের আধিকারিক জানিয়েছিলেন, দোষীদের বিরুদ্ধে আইনত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

    আরও পড়ুনঃ সালানপুরে নির্মীয়মান কারখানাকে কেন্দ্র করে দুশ্চিন্তায় কৃষকরা

    যদিও স্থানীয়দের অভিযোগ, কিন্তু কোনও পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি দোষীর বিরুদ্ধে। এই ঘটনার ঠিক এক মাসের মধ্যে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি। ওই জায়গার রাস্তা তৈরির করার জন্য বিনা অনুমতিতে বহু ছোট ছোট গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। পুনরায় গাছ কাটার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন হোদলা বন দফতরের কর্মী রিন্টু খাঁড়া এবং সুব্রত ভট্টাচার্য।

    আরও পড়ুনঃ পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারির প্রতিবাদে পথে তৃণমূল

    তাছাড়া কল্যানেশ্বরী ফাঁড়ির ইনচার্জ উজ্জ্বল সাহা এবং এসআই সঞ্জয় সিংহ দলবল নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। সদ্য কেটে ফেলা গাছগুলির ছবি তুলে নিয়ে যান। এই ঘটনা প্রসঙ্গে, দুর্গাপুর ডিভিশনালের ডি.এফ.ও বুদ্ধদেব মন্ডল জানিয়েছেন, ঘটনার খবর পেয়ে বন দফতর থেকে টিম গিয়ে তদন্ত শুরু করেছে। দোষীদের বিরুদ্ধে এবার কড়া আইনত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    Nayan Ghosh
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Asansol, Paschim bardhaman

    পরবর্তী খবর