Home /News /technology /
Internet Safety: অনলাইনে থাকুন নিরাপদে, এক নজরে দেখে নিন ইন্টারনেট দিবসে সুরক্ষিত থাকার কয়েকটি উপায়

Internet Safety: অনলাইনে থাকুন নিরাপদে, এক নজরে দেখে নিন ইন্টারনেট দিবসে সুরক্ষিত থাকার কয়েকটি উপায়

Internet Safety Rules & What Not to Do Online

Internet Safety Rules & What Not to Do Online

Internet Safety: জেনে নেওয়া যাক কীভাবে সুরক্ষিত উপায়ে ব্যবহার করা যায় ইন্টারনেট।

  • Share this:

Internet Safety: করোনা মহামারীর ফলে বেড়ে গিয়েছে ইন্টারনেটের ব্যবহার। কারণ করোনা মহামারীর কারণে স্কুলের ক্লাস থেকে শুরু করে অফিস সব কিছুই ঘরে বসে অনলাইনে করতে হচ্ছে। কিন্তু ইন্টারনেটের ব্যবহার বেড়ে যাওয়ার ফলে, একই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে বিভিন্ন ধরনের জালিয়াতির সংখ্যা। এর ফলে এই ধরনের জালিয়াতি থেকে বাঁচার জন্য সবসময় সতর্ক থাকার প্রয়োজন রয়েছে। জেনে নেওয়া যাক কীভাবে সুরক্ষিত উপায়ে ব্যবহার করা যায় ইন্টারনেট (Internet Safety Rules) ।

গুরুত্বপূর্ণ তথ্য -

সবসময় মনে রাখা দরকার যে, কোনও সময় নিজেদের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য অন্যের সঙ্গে শেয়ার করা উচিত নয়। নিজেদের ব্যক্তিগত তথ্য, ব্যাঙ্কের ডিটেলস ইত্যাদি অন্যদের সঙ্গে শেয়ার করা উচিত নয়। এই ক্ষেত্রে কেউ ফোন করে ওটিপি চাইলেও তাকে সেটি দেওয়া উচিত নয়। কেউ ফোন করে ব্যাঙ্কের ডিটেল এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ তথ্য চাইলেও তা শেয়ার করা উচিত নয়। সাইবার ক্রিমিনালরা বিভিন্ন ধরনের লোভ দেখিয়ে সেগুলো নেওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের ফাঁদ বিছিয়ে রেখেছে। কিন্তু সবসময় সতর্ক হয়ে সেই সকল ফাঁদ এড়িয়ে চলা দরকার।

পাসওয়ার্ডের পরিবর্তন -

অনলাইনে বিভিন্ন কাজ করার সময় বিভিন্ন ধরনের অ্যাকাউন্ট খোলার দরকার হয়। প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রেই একটি পাসওয়ার্ড তৈরি করে সেই অ্যাকাউন্ট খুলতে হয়। সেই পাসওয়ার্ডের মাধ্যমেই সবসময় সেটির মাধ্যমে কাজ করা যায়। কিন্তু এই পাসওয়ার্ড অন্য কারও সঙ্গে শেয়ার করা উচিত নয়। এছাড়াও খুবই গুরুত্বপূর্ণ হল একটি শক্তিশালী পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা। কারণ হ্যাকাররা খুব সহজেই হ্যাক করতে পারে পাসওয়ার্ড। এর ফলে এমন শক্তিশালী পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা উচিত, কেউ যেন সহজেই সেটি ধরতে না পারে।

আরও পড়ুন - Samsung Galaxy Tab S8: ভারতে আসছে Samsung Galaxy-র নতুন S8 সিরিজের ট্যাব, দেখে নিন তার ফিচার!

টু-ফ্যাক্টর ভেরিফিকেশন -

নিজেদের অনলাইন অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত রাখার জন্য এই টু-ফ্যাক্টর ভেরিফিকেশন হল আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ উপায়। এই টু-ফ্যাক্টর ভেরিফিকেশনের মাধ্যমে নিজেদের বিভিন্ন ধরনের অনলাইন অ্যাকাউন্ট খুব সহজেই সুরক্ষিত রাখা সম্ভব।

সোশ্যাল মিডিয়া -

নিজেদের বিভিন্ন ধরনের অনলাইন অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত রাখার জন্য সতর্ক ভাবে ব্যবহার করা উচিত বিভিন্ন ধরনের সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম। বিভিন্ন ধরনের সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে অজানা বন্ধুদের ফাঁদ এড়িয়ে চলা দরকার। প্রয়োজন হলে তাদের সম্পর্কে রিপোর্ট করা দরকার। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন ধরনের ফাঁদ এড়িয়ে চলা প্রয়োজন।

আরও পড়ুন - iPhone 13-কে সত্যিই টেক্কা দিতে পারবে Samsung Galaxy S22? দেখে নিন তুলনা করে!

হাইড কমেন্ট -

সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে বিভিন্ন ধরনের কমেন্ট করা হয়। সেই সকল কমেন্টের ফাঁদে পা না দিয়ে তা এড়িয়ে যাওয়া উচিত। প্রয়োজন হলে সেই সকল কমেন্ট হাইড করে দেওয়া দরকার। কারণ নিজের সুরক্ষা নিজের হাতেই!

Published by:Ananya Chakraborty
First published:

Tags: Internet safety, Online Scams, Tech tips

পরবর্তী খবর