Home /News /technology /
Desi Operating System: বিদেশি ফোনের একচেটিয়া আধিপত্য কমাতে দেশি অপারেটিং সিস্টেম চালু করতে চায় সরকার

Desi Operating System: বিদেশি ফোনের একচেটিয়া আধিপত্য কমাতে দেশি অপারেটিং সিস্টেম চালু করতে চায় সরকার

ভারতের ফোনের বাজারে অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস অপারেটিং সিস্টেমের আধিপত্য কমিয়ে ভারসাম্য ফিরিয়ে আনার জন্য একটি পলিসি নিয়ে আসা হতে পারে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বর্তমানে ভারতের ফোনের বাজারে একচেটিয়া আধিপত্য অ্যান্ড্রয়েড (Android) এবং আইওএস (iOS) অপারেটিং সিস্টেমের। কিন্তু ভারত সরকার চায়, ভারতের ফোনের বাজারে অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস অপারেটিং সিস্টেমের একচেটিয়া আধিপত্য কমাতে। এর জন্য দেশি অপারেটিং সিস্টেম চালু করার উপর জোর দিয়েছে ভারত সরকার। ইলেকট্রনিক্স এবং আইটি-র কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর (Rajeev Chandrasekhar) জানিয়েছেন যে, ভারত সরকার একটি পলিসি নিয়ে আসার প্ল্যান করছে। ভারতের ফোনের বাজারে অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস অপারেটিং সিস্টেমের আধিপত্য কমিয়ে ভারসাম্য ফিরিয়ে আনার জন্য একটি পলিসি নিয়ে আসা হতে পারে। কারণ ভারত সরকার জোর দিতে চায় দেশি অপারেটিং সিস্টেম চালু করার উপরে।

ইলেকট্রনিক্স এবং আইটির কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর জানিয়েছেন যে, অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস ছাড়া তৃতীয় কোনও অপারেটিং সিস্টেম নেই। এর জন্য ভারত সরকার জোর দিতে চলেছে দেশি অপারেটিং সিস্টেম তৈরি করার জন্য। এর জন্য একটি পলিসি নিয়ে আসার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। আর তার জন্য ভারতের বিভিন্ন স্টার্ট-আপ কোম্পানির সঙ্গে আলোচনা করা হচ্ছে। ভারতের নিজস্ব একটি অপারেটিং সিস্টেম ব্র্যান্ড গড়ে তোলাই হল প্রধান লক্ষ্য।

আরও পড়ুন - Jio Cheapest Prepaid Plan: সবচেয়ে সস্তা প্ল্যানের ধামাকা! ৩০০ টাকারও কম প্ল্যানে Free Calling! 42GB Data

ইলেকট্রনিক্স এবং আইটির কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর জানিয়েছেন যে, ভারতের ফোনের বাজার খুব বড়। বিভিন্ন ধরনের বিদেশি কোম্পানি ভারতের বাজারে ব্যবসা করে চলেছে এই বড় বাজারের উপর ভিত্তি করে। ২০২৬ সালের মধ্যে ভারতের ইলেকট্রনিক ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের ক্ষমতা ৩০০ বিলিয়ন ইউএসডিতে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে। এখন এর পরিমাণ হল প্রায় ৭৫ বিলিয়ন ইউএসডি। ভারতের এই বৃহৎ বাজারের দিকে তাকিয়ে একটি ভারতীয় অপারেটিং সিস্টেমের খুব প্রয়োজন। ভারতে একটি দেশি অপারেটিং সিস্টেম লঞ্চ করা হলে অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস অপারেটিং সিস্টেমের একচেটিয়া আধিপত্য কিছুটা হলেও কমানো সম্ভব হবে।

আরও পড়ুন - COVID-19 Test Mail Scam: কোভিড পরীক্ষার মেল থেকে সাবধান, হয়ে যেতে পারেন সর্বস্বান্তও

ব্রাটা থেকে বাঁচার উপায় -

ভারতে বিভিন্ন ধরনের ছোট বড় কোম্পানি তাদের বিভিন্ন ধরনের ফোন লঞ্চ করে থাকে। সেই সকল ফোনের ক্ষেত্রে একচেটিয়া আধিপত্য বজায় রেখেছে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম। ভারতের বাজারে আইফোনের চাহিদাও বেশ ভালো, যা আইওএস অপারেটিং সিস্টেম দ্বারা চালিত। এর ফলে ভারতের নিজস্ব একটি অপারেটিং সিস্টেম চালু করা গেলে, মেড ইন ইন্ডিয়া ফোনের আধিপত্য বিস্তার করা সম্ভব হবে। বর্তমানে ভারতের ফোনের বাজারের অনেকটা জুড়েই রয়েছে বিদেশি কোম্পানির ফোন। তাই দেশি অপারেটিং সিস্টেম বাজারে এলে তার মাধ্যমেই দখল করা যেতে পারে এই বাজার।

Published by:Ananya Chakraborty
First published:

Tags: Android, Government, IOS, Tech news

পরবর্তী খবর