Home /News /technology /
আজ ভারতে আসছে Xiaomi 12 Pro, এক নজরে দেখে নিন দাম ও স্পেসিফিকেশন

আজ ভারতে আসছে Xiaomi 12 Pro, এক নজরে দেখে নিন দাম ও স্পেসিফিকেশন

ওয়াকিবহাল মহলের দাবি Xiaomi 12 Pro-এর দাম ভারতীয় বাজারে OnePlus 10 Pro থেকে কম হবে।

  • Share this:

Xiaomi 12 Pro launch: Xiaomi 12 Pro ভারতে লঞ্চ করছে ২৭ এপ্রিল। এটি Xiaomi-র ফ্ল্যাগশিপ ফোন। মনে করা হচ্ছে সদ্য লঞ্চ হওয়া OnePlus 10 Pro স্মার্টফোনের কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে উঠতে পারে এই ফোনটি। এর দাম থাকতে পারে ৭০ হাজার টাকার অনেক নীচে।

সূত্রের খবর এই দু’টি ফোনেই রয়েছে Qualcomm Snapdragon 8 Gen 1 চিপ। Xiaomi 12 Pro ইতিমধ্যেই ইউরোপের বাজারে বিক্রি হতে শুরু করেছে, তাই স্পেসিফিকেশন এবং ডিজাইন সবই আপাতত প্রকাশ্যে।

Xiaomi 12 Pro: ভারতে প্রত্যাশিত মূল্য

ওয়াকিবহাল মহলের দাবি Xiaomi 12 Pro-এর দাম ভারতীয় বাজারে OnePlus 10 Pro থেকে কম হবে। OnePlus 10 Pro ফোনটির দাম এই মুহূর্তে ৬৬,৯৯৯ টাকা থেকে শুরু হচ্ছে। টিপস্টার যোগেশ ব্রার দাবি করছেন যে আসন্ন Xiaomi ফোনটির দাম ভারতে শুরু হবে ৬৫,০০০ টাকা হবে। OnePlus তার ফ্ল্যাগশিপ ফোনটি লঞ্চ করার সময়ও Samsung Galaxy S22 5G সিরিজের তুলনায় বেশ কিছুটা কম রেখেছিল।

আরও পড়ুন - এই গ্রীষ্মে গরম হয়ে যাচ্ছে সাধের স্মার্টফোন? দেখে নিন গরম থেকে ফোন বাঁচানোর ৫টি উপায়

চিনে Xiaomi 12 Pro-এর দাম শুরু হচ্ছিল CNY ৪,৬৯৯ থেকে ভারতীয় মুদ্রায় যার মূল্য প্রায় ৫৬,৩০০ টাকা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, এর দাম শুরু হচ্ছে ৯৯৯ ডলার বা প্রায় ৭৬,৩০০ টাকা থেকে। ভারতীয় বাজের ঠিক কত দামে বিক্রি হবে তা জানতে আর সামান্য অপেক্ষা করতে হবে। এই ফোনটি পাওয়া যাবে Amazon-এ। ইতিমধ্যেই ফোনটি অ্যামাজনের সাইটে দেখা যাচ্ছে।

স্পেসিফিকেশন

Xiaomi 12 Pro-তে রয়েছে WQHD+ রেজোলিউশন-সহ একটি ৬.৭৩ ইঞ্চি স্ক্রিন, একটি E5 AMOLED প্যানেল যার সর্বোচ্চ উজ্জ্বলতা ১,৫০০nits এবং ১২০Hz ডাইনামিক রিফ্রেশ রেট। এতে রয়েছে 240Hz টাচ স্যাম্পলিং রেট এবং প্যানেলে কর্নিং গরিলা গ্লাস ভিক্টাসের একটি স্তর রয়েছে যা স্ক্র্যাচ থেকে সুরক্ষা দেবে। এই ফোনে রয়েছে LTPO ডিসপ্লে, যার অর্থ হল গ্রাহক তার পছন্দ মতো রিফ্রেশ রেটকে ১২০Hz থেকে ১০Hz এর মধ্যে রাখতে পারবেন৷ তাতে ব্যাটারি ভাল থাকবে।

আরও পড়ুন - অল্পতেই অত্যন্ত ঠান্ডা, সামান্য বিদ্যুতের বিল? স্টাইলিশ লুক, হাজার কামাল

Xiaomi 12 Pro-তে রয়েছে স্যামসাং-এর মতো সেন্ট্রালাইজ পাঞ্চ-হোল ডিসপ্লে ডিজাইন। এর IP রেটিং নেই বলেই মনে করা হচ্ছে, কারণ গ্লোবাল লঞ্চ ইভেন্টের সময় Xiaome এ সম্পর্কে প্রায় কিছুই বলেনি।

ফোনের পিছনে রয়েছে একটি ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ, এতে অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন (OIS)-সহ ৫০ মেগাপিক্সেল Sony IMX707 প্রাইমারি সেন্সর রয়েছে। রয়েছে দুটি ৫০-মেগাপিক্সেল পোর্ট্রেট এবং ম্যাক্রো সেন্সরও। সেলফির জন্য রয়েছে ৩২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ৪,৬০০mAh ব্যাটারি দ্রুত চার্জিং প্রযুক্তি-সহ। ১২০W দ্রুত চার্জার-সহ পাওয়া যাবে এই ফোনটি। এতে ৫০W ওয়্যারলেস এবং ১০W রিভার্স চার্জিংয়ের ব্যবস্থাও রয়েছে। রয়েছে একটি চার-ইউনিট স্পিকার সিস্টেম।

Published by:Ananya Chakraborty
First published:

Tags: Xiaomi

পরবর্তী খবর