• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • Shahid Afridi on Shaheen Afridi : শুধু হাসান আলি নন, পাকিস্তানের হারে সমান দায়ী হবু জামাই শাহিন, মত আফ্রিদির

Shahid Afridi on Shaheen Afridi : শুধু হাসান আলি নন, পাকিস্তানের হারে সমান দায়ী হবু জামাই শাহিন, মত আফ্রিদির

শাহিন আফ্রিদির বোলিংয়ে সন্তুষ্ট নন হবু শ্বশুর শাহিদ আফ্রিদি

শাহিন আফ্রিদির বোলিংয়ে সন্তুষ্ট নন হবু শ্বশুর শাহিদ আফ্রিদি

Shahid Afridi not at all happy with Shaheen Afridi. শাহিদ আফ্রিদি বলেন, শাহিনের একটি বিষয়ে আমি অসন্তুষ্ট। হাসান ক্যাচ ছেড়েছে ঠিক আছে, কিন্তু তার মানে এই নয় যে সে (শাহিন) টানা তিন ছক্কা হজম করবে।

  • Share this:

    #দুবাই: পাকিস্তানের জার্সিতে তিনি ছিলেন দলের অন্যতম ভরসা। যদি ক্লিক করে যেতেন তাহলে মুশকিল অবস্থা থেকেও পাকিস্তানকে ম্যাচ জিতিয়েছেন। শেষদিকে ব্যাট হাতে পারফরম্যান্স নীচে নেমে গেলেও, বল হাতে ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছিলেন। নিজের মনের কথা সব সময় খোলাখুলি বলতে পছন্দ করেন শাহিদ আফ্রিদি। শাহিদ আফ্রিদি ও শাহিন আফ্রিদির মধ্যে এমনিতেই কিছু মিল আছে। উইকেট নিয়ে এই পেসারের উদ্‌যাপন প্রায় শাহিদ আফ্রিদির মতোই। পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়কের মতোই ১০ নম্বর জার্সি পরেন শাহিন আফ্রিদি।

    আরও পড়ুন - Rizwan treated by Indian doctor: সুস্থ করে তোলা ভারতীয় ডাক্তারকে জার্সি উপহার পাকিস্তানের রিজওয়ানের

    শুধু কী তা–ই, শাহিদ আফ্রিদির মেয়েকে বিয়ের প্রস্তাবও দিয়েছেন পাকিস্তান দলের এই তারকা পেসার। গত মার্চে শাহিনের বাবা সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, শাহিদ আফ্রিদির মেয়ের সঙ্গে বাগদান হতে যাচ্ছে শাহিনের। যে কারণে শহীদ আফ্রিদিকে অনেকে শাহিনের হবু শ্বশুর হিসেবেই দেখেন। এমনিতে সোজা কথাটা সোজা করেই বলতে অভ্যস্ত শাহিদ আফ্রিদি তাঁর হবু জামাইয়ের ভুল ধরতেও কার্পণ্য করেননি।

    ম্যাথু ওয়েড শাহিনের সে ওভারে টানা তিন ছক্কায় অস্ট্রেলিয়াকে জেতান। অবশ্য ওই তিন ছক্কার আগের বলেই শাহিনের বলে ওয়েডের ক্যাচ হাতছাড়া করেন পাকিস্তানের আরেক পেসার হাসান আলি। ম্যাচ শেষে হাসানের ওই ক্যাচ মিস নিয়েই যত আলোচনা হয়েছে। কিন্তু পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ‘সামা টিভি’কে এ নিয়ে শাহিদ আফ্রিদি বলেন, শাহিনের একটি বিষয়ে আমি অসন্তুষ্ট। হাসান ক্যাচ ছেড়েছে ঠিক আছে, কিন্তু তার মানে এই নয় যে সে (শাহিন) টানা তিন ছক্কা হজম করবে।

    শাহিনের বলে অনেক গতি আছে। বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে তার এটা ব্যবহার করা উচিত ছিল। ক্যাচ ছাড়ার পর অফ স্টাম্পের বাইরে গতিময় ইয়র্কার করা উচিত ছিল তার। সে এভাবে মার খাওয়ার মতো বোলার নয়। ৪৬ বছর বয়সী শাহিদ আফ্রিদি মনে করেন, কাল সেমিফাইনাল ম্যাচটি থেকে শেখার আছে শাহিন আফ্রিদির। গোটা টুর্নামেন্টে তাঁর ভালোবল করার প্রশংসা করলেন তিনি, ‘টুর্নামেন্টজুড়েই সে দারুণ ছিল। নতুন বলে তার বোলিং দেখে ওয়াসিম আক্রম ও মোহাম্মদ আমিরকে মনে পড়েছে। আশা করি সে তার ক্রিকেটীয় অভিজ্ঞতা থেকে শিখবে ও জীবনের ক্ষেত্রে তা কাজে লাগাবে।’
    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: