corona virus btn
corona virus btn
Loading

"....কাল সকালে তাড়াতাড়ি উঠে আবার বিশ্রাম নিতে হবে।" সোশ্যাল মিডিয়ায় মজার পোস্ট সৌরভের

  • Share this:

ERON ROY BURMAN

#কলকাতা: করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে চলছে লকডাউন। নির্দেশ মেনে মানুষ গৃহবন্দী। সেই গৃহবন্দী দশায় সাধারণ মানুষকে কিছুটা হাসিখুশি রাখতে এগিয়ে এলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। অনেকটা নিজের স্বভাব বিরুদ্ধ ভাবেই সোশ্যাল মিডিয়ায় কমিক রিলিফ বিষয়ক কিছু লাইন পোস্ট করলেন মহারাজ। ঘড়ির কাঁটা বুধবার রাত বারোটায় পৌঁছানোর মিনিট কয়েক আগে একটি লেখা পোস্ট করেন সৌরভ। সেখানে লেখা ছিল, "আজ সবাই তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়ো। কাল সকালে তাড়াতাড়ি উঠে আবার বিশ্রাম নিতে হবে।" বাংলাতে এই লেখা পোস্ট করেন সৌরভ। লেখার সাথে হাই তোলার ইমোজিও পোস্ট করেন দাদা।                                                                            এই লেখা পোস্ট করার সঙ্গে নিচে সৌরভ লেখেন, "আজ রাতে সবাই ঘুমোতে যাওয়ার আগে মনে রাখবেন.. গুড নাইট।" পোস্টটি সৌরভের ইনস্ট্রাগ্রামের ভেরিফাইড একাউন্ট থেকে করা হয়। সৌরভের তরফে এই ধরনের পোস্ট হওয়ার পরই তা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায়। পোস্টটি বাংলায় হওয়ায় অনেকেই তার ইংরেজি অনুবাদ চান। অনেক বিভিন্ন মতামত দিতে থাকেন। হাসির ছবি পোস্ট করেন অনেকে। বেশ কিছু উত্তর দেন সৌরভ। পরিবারের এক সদস্যকে সৌরভ পরামর্শ দেন শরীর চর্চার।      সাধারণত সৌরভকে এই ধরনের পোস্ট করতে দেখা না। তবে দাদার ঘনিষ্ঠদের মতে, করোনা নিয়ে চিন্তায় থাকা মানুষদের একটু আনন্দ দিতেই এই ধরনের পোস্ট। সৌরভ নিজেও গৃহবন্দী। দিন কয়েক বেরিয়েছিলেন দুঃস্থ মানুষদের জন্য অনুদানের চাল তুলে দিতে। প্রথমে বেলুড় মঠ ও পরে গিয়ে ইসকন মন্দিরে অনুদান দিয়ে আসেন দাদা। ৫০ লক্ষ টাকার চাল অনুদানের পাশাপশি ইসকন মন্দিরেেের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে লকডাউন না উঠা পর্যন্ত প্রত্যেকদিন ১০ হাজার প্রান্তিক মানুষের খাবার ব্যবস্থা করেন সৌরভ।

 
View this post on Instagram
 

Aaj raate sobai ghumote jabar agey.. mone rakhben...good nite

A post shared by SOURAV GANGULY (@souravganguly) on

বুধবার সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ফাউন্ডেশনের তরফে ইডেন থেকে চাল বিতরণ করা হয়। তবে সেখানে বোর্ড প্রেসিডেন্ট ছিলেন না। উপস্থিত ছিলেন সিএবি সচিব তথা সৌরভের দাদা স্নেহাশীষ গঙ্গোপাধ্যায়। মোট ১০টি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার হাতে ৩১০০ কেজি চাল তুলে দেন সিএবি সচিব। "ইন্টারন্যাশনাল হিউম্যান রাইটস আ্যসোসিয়েশন" নামক একটি সংস্থার হাতে চাল তুলে দেওয়া হয়। এছাড়া বারুইপুর-আনন্দপুর অঞ্চলে ‘অফার’ নামক একটি সংস্থায় একাধিক ‘এইচআইভি’ আক্রান্ত ছেলে-মেয়েদের জন্যও চালের ব্যবস্থা করা হল। এছাড়াও আরও আটটি সংস্থার হাতে অনুদান তুলে দেওয়া হয়। দেড় লক্ষ কেজি চাল অনুদান হিসেবে দেওয়া হবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ফাউন্ডেশনের তরফে। প্রয়োজনে আরও সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন সৌরভ। ইতিমধ্যেই একাধিকবার সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেদন করেছেন লকডাউনে সাধারণ মানুষের ঘরে থাকার জন্য। করোনা যুদ্ধে কোমর বেঁধে নেমে লড়াই করছেন সৌরভ। তার মধ্যেই বুধবার রাতে মজার পোস্ট করে নিজে এবং নিজের ফ্যানদের হালকা করলেন দাদা।

Published by: Simli Raha
First published: April 9, 2020, 8:39 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर