Home /News /sports /

Tokyo Olympic Games 2020: নিজের দেশেই হার ওসাকার, বিদায় নিলেন তৃতীয় রাউন্ডে

Tokyo Olympic Games 2020: নিজের দেশেই হার ওসাকার, বিদায় নিলেন তৃতীয় রাউন্ডে

ইন্দ্রপতন! তৃতীয় রাউন্ডেই বিদায় ওসাকার

ইন্দ্রপতন! তৃতীয় রাউন্ডেই বিদায় ওসাকার

Naomi Osaka lost to former French Open finalist Marketa Vondrousova. দেশের মাটিতে খালি হাতেই থাকতে হল নাওমি ওসাকাকে। অলিম্পিকে সোনা জেতার স্বপ্নটা পূরণ হল না জাপানের এই মহিলা টেনিস তারকার

  • Share this:

    #টোকিও: এমনটা হবে আন্দাজ করতে পারেননি অনেকেই। ঘরের মাঠে ঘরের মেয়ে দাপট দেখাবে সেটাই প্রত্যাশা করেছিলেন জাপানিরা। কিন্তু হতাশ করলেন ওসাকা। দেশের মাটিতে খালি হাতেই থাকতে হল নাওমি ওসাকাকে। অলিম্পিকে সোনা জেতার স্বপ্নটা পূরণ হল না জাপানের এই মহিলা টেনিস তারকার। তৃতীয় রাউন্ডে চেক প্রজাতন্ত্রের মারকেতা ভোন্দ্রুসোভার বিপক্ষে স্ট্রেট সেটে হেরে অলিম্পিক-স্বপ্ন জলাঞ্জলি দিয়েছেন ওসাকা। ওসাকা হেরেছেন ৬-১, ৬-৪ গেমে।

    ২০১৯ ফ্রেঞ্চ ওপেনের রানার আপ হয়েছিলেন এই ভোন্দ্রুসোভা। গোটা ম্যাচেই ওসাকা ঠিক ছন্দে ছিলেন না। ৩২টি আনফোর্সড এরর ছিল। বিপরীতে ভোন্দ্রুসোভার আনফোর্সড এরর মাত্র ১০টি। এটাই মূলত কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে জাপানি তারকার জন্য। হেরে এতটাই মন খারাপ হয়েছে তাঁর, মিডিয়ার সঙ্গে কথাও বলেননি। অন্য পথ দিয়ে কোর্ট থেকে বেরিয়ে গেছেন।

    নারী টেনিসের ১ নম্বর তারকা অ্যাশলি বার্টি প্রথম রাউন্ডেই হেরে বসেছিলেন স্পেনের সারা সোরিবেসের বিপক্ষে। গতকাল ৩ নম্বর তারকা আরিনা সাবালেঙ্কা হেরেছেন দোন্না ভেকিচের বিপক্ষে, আজ হারলেন ২ নম্বর তারকা ওসাকা। সোফিয়া কেনিন ও বিয়াঙ্কা আন্দ্রিস্কু অলিম্পিকে খেলছেন না। ফলে র‍্যাঙ্কিংয়ের চারে থাকা এলিনা সভিতোলিনাই এখন সবচেয়ে বড় ফেবারিট এই ইভেন্টে।

    ২০২০ অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের পর এই প্রথম কোনো হার্ডকোর্ট ইভেন্টে কোয়ার্টার ফাইনালের আগেই বিদায় নিলেন ওসাকা।পদবীতে ওসাকা থাকলেও তিনি মোটেই জাপানের ওসাকায় জন্মগ্রহণ করেননি। কিন্তু তাঁকে ঘিরেই অলিম্পিক্সে সাফল্যের স্বপ্ন দেখছে জাপান। নেয়োমি ওসাকার বেড়ে ওঠা এবং টেনিস শেখা আমেরিকার ফ্লোরিডায়। কিন্তু জাপানের সঙ্গে তাঁর আত্মিক যোগ বরাবর।

    বছর দুয়েক আগে আমেরিকা তাঁকে নাগরিকত্ব দিতে চাইলেও তিনি নেননি। অলিম্পিক্সে তিনি খেলবেন জাপানের হয়েই। আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন। এমনকি ফরাসি ওপেন, উইম্বলেডন না খেললেও, অলিম্পিকে দেশের হয়ে নামবেন, সে ব্যাপারে অন্তত মানসিক কোন সমস্যা ছিল না ওসাকার। এর আগে জাপানের লোকেরা মানসিক সমস্যা নিয়ে চুপ থাকতেন। ওসাকাই তাঁদের উৎসাহ দেন নিজের মনের কথা খুলে বলতে।

    অলিম্পিক্সের আগে তাই ঘরের মেয়েকেই প্রচারের মুখ করে তুলেছিল মাউন্ট ফুজিয়ামার দেশ। তার এই হারে বিরাট ধাক্কা খেল জাপানের টেনিস। যদিও দেশের মাটিতে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী চিনের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে পদক জিতে চলেছে জাপান। কিন্তু ওসাকার বিদায় এত তাড়াতাড়ি হবে ভাবতে পারেনি তারা।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    Tags: Tokyo OIympics 2020

    পরবর্তী খবর