Tokyo Olympics: আরও একবার অলিম্পিক পিছিয়ে দেওয়া অসম্ভব...! স্পষ্ট জানালেন সংগঠকরা

Photo Courtesy: IOC

সংগঠকরা এখনও অনঢ় ৷ তাঁদের মতে গেমস একবার পিছিয়েছে, আর নয় ৷ অলিম্পিক আয়োজন হবে এ বছরই ৷

  • Share this:

    টোকিও: শেষ পর্যন্ত কি বাতিল হয়ে যাবে টোকিও অলিম্পিক?‌ এমন আশঙ্কা অনেকদিন ধরেই করা হচ্ছে ৷ জাপানে বসবাসকারী অধিকাংশ মানুষই এই অতিমারীর মধ্যে অলিম্পিক আয়োজনের পক্ষপাতী নয় ৷ সংক্রমণ এতটাই বেড়েছে যে জাপান সরকার জরুরি অবস্থা ঘোষণা করতে বাধ্য হয়েছে। এই অবস্থায় জুলাইয়ে আদৌও অলিম্পিক আয়োজন করা সম্ভব হবে কিনা , তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। যদিও আন্তর্জাতিক অলিম্পিক সংস্থার প্রধান টমাস বাখ নির্দিষ্ট সময়ে অলিম্পিক আয়োজনের ব্যাপারে আশাবাদী। পাশাপাশি টোকিও অলিম্পিকের অর্গানাইজিং কমিটির প্রেসিডেন্ট শিকো হাশিমোতো সম্প্রতি নিক্কান স্পোর্টস সংবাদপত্রকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে স্পষ্ট জানিয়েছেন, আরও একবার অলিম্পিক পিছিয়ে দেওয়া তাঁদের পক্ষে সম্ভব নয় ৷

    এ বারের অলিম্পিকে বিদেশি দর্শকদের প্রবেশ নিষেধের কথা আগেই ঘোষণা হয়েছে ৷ অর্থাৎ অলিম্পিক স্টেডিয়ামে জাপানের বাসিন্দারা ছাড়া আর কোনও দেশের দর্শককেই এ বছর গেমসে দেখা যাবে না ৷  করোনা আবহে জাপানি দর্শকদেরও কতটা গেমস দেখার অনুমতি মিলবে, তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে ৷ তাই এই অবস্থায় আগামী ২৩ জুলাই থেকে অলিম্পিক আয়োজনের কী প্রয়োজন আছে, তা নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে ৷ অধিকাংশেরই মত, পিছিয়ে দেওয়া হোক এ বারের গেমস ৷ কিন্তু সংগঠকরা এখনও অনঢ় ৷ তাঁদের মতে গেমস একবার পিছিয়েছে, আর নয় ৷ অলিম্পিক আয়োজন হবে এ বছরই ৷

    করোনার বাড়বাড়ন্তের জন্য গত ২৫ এপ্রিল থেকে জরুরি অবস্থা জারি করেছে জাপান সরকার। প্রাথমিকভাবে ১৫ দিনের জন্য এই জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছিল। কিন্তু পরিস্থিতি যেভাবে ভয়ঙ্কর অবস্থা ধারণ করছে, জরুরি অবস্থার মেয়াদ আরও বাড়ানোর কথা ভাবছে জাপান সরকার। টোকিও ছাড়াও হুয়োগো, ওসাকা, কিয়োতো শহরেও প্রবলভাবে বেড়ে গেছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। কীভাবে এই সংক্রমণ আটকানো যায়, তা নিয়ে যথেষ্ট চিন্তিত জাপান প্রশাসন।

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: