ইংল্যান্ডেরই জয় প্রাপ্য ছিল, এই হার থেকেই শিক্ষা নিতে হবে: কোহলি

ইংল্যান্ডেরই জয় প্রাপ্য ছিল, এই হার থেকেই শিক্ষা নিতে হবে: কোহলি

Photo Courtesy: ECB Twitter Handle

ভারত: ২৫৬/৮ (৫০ ওভার), ইংল্যান্ড: ২৬০/২ ( ৪৪.৩ ওভার)

  • Share this:

    ভারত: ২৫৬/৮ (৫০ ওভার) ইংল্যান্ড: ২৬০/২ ( ৪৪.৩ ওভার) ৩৩ বল বাকী থাকতেই ৮ উইকেটে জয়ী ইংল্যান্ড

    #লিডস: অবশেষে বিলেতের মাটিতে থামল কোহলি ব্রিগেডের অশ্বমেধের ঘোড়া ৷ টি২০ সিরিজের পর এবার ওয়ান ডে-তেও ভারত হেলায় হারাবে ইংল্যান্ডকে, এমনটা হয়তো অনেকেই ভেবে নিয়েছিলেন ৷ কিন্তু মঙ্গলবার লিডসে সবাইকে ভুল প্রমাণিত করল মর্গ্যানের ইংল্যান্ড ৷ টানা ন’টি সিরিজ জেতার পরে থামল ভারতের বিজয় রথ।

    আড়াই বছরেরও বেশি সময় ধরে ওয়ান ডে-তে অপরাজিত ছিল টিম ইন্ডিয়া ৷ এদিন ৩৩ বল  বাকী থাকতেই ৮ উইকেটে ম্যাচ এবং সিরিজ জিতে নিতে সফল ইংল্যান্ড ৷ কোহলিদের মতোই ব্রিটিশরাও দুরন্ত ফর্মে রয়েছেন ৷ এই নিয়ে টানা আটটা সিরিজ জিতল ইংল্যান্ড ৷ ভারত শেষবার দ্বিপাক্ষিক ওয়ান ডে সিরিজ হেরেছিল অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ২০১৬-এ ৷ তারপর থেকে কোহলির টিম ইন্ডিয়াকে থামানো যায়নি ৷ সেই কাজটাই এবার নিজেদের দেশে করে দেখাতে সফল ইংল্যান্ড ৷ সিরিজ হারের পর কোহলি স্বীকারও করে নেন, ‘‘ যাদের জয় প্রাপ্য ছিল, তারাই জিতেছে। আমরা আজ কখনও জেতার জায়গায় যেতে পারিনি।’’ বিরাটের নেতৃত্বে এটাই প্রথমবার ভারতের দ্বিপাক্ষিক ওয়ান ডে সিরিজ হার ৷

    DiVLBk_WsAEZmEy

    প্রথমে ব্যাট করে এদিন নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৫৬ রান তোলে ভারত ৷ কোহলি (৭১), ধাওয়ান (৪৪) এবং ধোনি (৪১) বাদে এদিন রান পাননি প্রায় কেউই ৷ শেষদিকে শার্দুল ঠাকুর (২১ নট আউট) চালিয়ে খেলে ভারতের রানকে কোনওরকমে আড়াইশোর গণ্ডী টপকান ৷ রান তাড়া করতে নেমে কখনই সমস্যায় পড়তে হয়নি ইংল্যান্ডকে ৷ জো রুটের (১০০) অনবদ্য অপরাজিত সেঞ্চুরি এবং অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান (৮৮ নট আউট) ব্যাটে ভর করেই ম্যাচ সহজে জিতে নেয় ইংল্যান্ড ৷

    পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে বিরাট এদিন আরও বলেন, ‘‘ ইংল্যান্ড দারুণ ফর্মে রয়েছে ৷ ওদেরকে হারাতে গেলে আমাদের সেরা পারফরম্যান্সটাই দিতে হবে ৷ ইংল্যান্ডের বোলিং অসাধারণ ৷ বিশেষ করে ওদের স্পিনাররা দারুণ বল করেছে ৷ আমাদের ব্যাটিং অর্ডার বদলে কোনও আফসোস নেই। কার্তিক শুরুটা ভাল করেও তা ধরে রাখতে পারল না । আসলে পরিবর্তন করে তা কাজে না এলে তখন মনে হয়, এটা না করলেও হত। আর এই ধরনের ম্যাচগুলোই শিখিয়ে দেয়, কোন কোন জায়গায় উন্নতি করার প্রয়োজন রয়েছে।’’

    First published: