Home /News /sports /
জার্মান জাতীয় দল থেকে অবসর গ্রহণ করে ফেললেন টনি ক্রুস

জার্মান জাতীয় দল থেকে অবসর গ্রহণ করে ফেললেন টনি ক্রুস

১১ বছর পর জার্মান দলকে বিদায় জানালেন ক্রুস

১১ বছর পর জার্মান দলকে বিদায় জানালেন ক্রুস

অবশেষে জাতীয় দল থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন বিশ্বকাপজয়ী জার্মান মিডফিল্ডার টনি ক্রুস। ওয়েম্বলিতে ইংল্যান্ডের কাছে ইউরোর শেষ ষোলোর ম্যাচে হারের পর এমন সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ তারকা

  • Share this:

    #মিউনিখ: তিনি লিওনেল, মেসি ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো নন। পল পগবা বা রহিম স্টার্লিং নন। প্রচারের আড়ালে থাকতেই পছন্দ করেন। কিন্তু ফুটবল মাঠে তাঁর মত ইউটিলিটি ফুটবলার খুব কম এসেছে গত দশ বছরে। দেশ বা ক্লাব, যেখানেই খেলেছেন চুপিসারে নিজের ভূমিকা পালন করে গিয়েছেন। বিপক্ষ দলের পা থেকে বল কেড়ে নেওয়া হোক, বা নিজের দলের স্ট্রাইকারদের বল সাপ্লাই করা, টনি ক্রুস, দুটো ভূমিকাতেই সমান সাবলীল। অবশেষে জাতীয় দল থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন বিশ্বকাপজয়ী জার্মান মিডফিল্ডার টনি ক্রুস।

    ওয়েম্বলিতে ইংল্যান্ডের কাছে ইউরোর শেষ ষোলোর ম্যাচে হারের পর এমন সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ তারকা। ২-০ গোলে হারা সেই ম্যাচটি ছিল তাঁদের দীর্ঘদিনের কোচ জোয়াকিম লো র শেষ ম্যাচ। যে কোচকে ক্রুস বলেছেন ‘তাঁকে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বানানোর কারিগর’, সেই লোর সঙ্গে সঙ্গেই জাতীয় দলকে বিদায় বললেন ৩১ বছর বয়সী টনি ক্রুস। আপাতত রিয়াল মাদ্রিদের হয়েই খেলা চালিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য ক্রুসের। স্পেনের ক্লাবটির হয়ে ২০২৩ সাল পর্যন্ত চুক্তি আছে তাঁর।

    অবশ্য জাতীয় দল থেকে অবসরের কারণ হিসেবে পরিবারকে সময় দেওয়ার কথাও বলেছেন তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেওয়া এক পোস্টে, ‘বিশেষ করে আমি রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে খেলার দিকেই নজর দিতে চাই এখন। বাড়তি হিসেবে এখন থেকে ছুটি পাব আমি, গত ১১ বছর জাতীয় দলের খেলোয়াড় হিসেবে যে সুযোগটা ছিল না। আর একজন স্বামী এবং বাবা হিসেবে আমার স্ত্রী ও তিন সন্তানের পাশেও থাকতে চাই।’

    ২০১০ সালে জার্মানির হয়ে অভিষেক হয়েছিল ক্রুসের। জার্মানির হয়ে তাঁর চেয়ে বেশি খেলেছেন আর মাত্র ছয়জন। এবারের ইউরোর পরই অবসর নেবেন, এমন সিদ্ধান্ত আগেই নিয়ে রেখেছিলেন বলে জানিয়েছেন তিনি। ২০১৪ বিশ্বকাপজয়ী জার্মানি দলের সদস্য ক্রুস সব মিলিয়ে খেলেছেন তিনটি করে বিশ্বকাপ ও ইউরো। জাতীয় দলের হয়ে করেছেন ১৭ গোল।

    তিনি আশাবাদী ব্যর্থতা কাটিয়ে কাতার বিশ্বকাপের ঘুরে দাঁড়াবে জার্মানি। হাতে যেটুকু সময় আছে, তাতে নতুন ম্যানেজার হতে চলা হ্যান্স ফ্লিক ঠিক গুছিয়ে নিতে পারবেন বলে আশাবাদী তিনি। ইউরো কাপ থেকে বিদায় নেওয়ার পর জার্মানির জাতীয় দলে একাধিক পরিবর্তন হওয়াটা শুধু সময়ের অপেক্ষা।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    Tags: EURO 2020 Copa 2021, Euro Cup 2020

    পরবর্তী খবর