Home /News /sports /
বৃথা সুইস গোলরক্ষকের লড়াই, টাইব্রেকারে বাজিমাত করে সেমিতে স্পেন

বৃথা সুইস গোলরক্ষকের লড়াই, টাইব্রেকারে বাজিমাত করে সেমিতে স্পেন

এভাবেই একার হাতে স্পেনকে প্রায় আটকে দিয়েছিলেন সোমের

এভাবেই একার হাতে স্পেনকে প্রায় আটকে দিয়েছিলেন সোমের

সুইস গোলরক্ষক সমের। গোলের নীচে দুর্ভেদ্য হয়ে ওঠেন তিনি। প্রশংসা করতে হবে ডিফেন্ডার আকেঞ্জির। একের পর এক স্প্যানিশ আক্রমণ আটকানোর ক্ষেত্রে বিরাট ভূমিকা পালন করলেন এই ডিফেন্ডার

  • Share this:
    সুইজারল্যান্ড -১ (শাকিরি) স্পেন -১ ( ডেনিস -আত্মঘাতী) টাইব্রেকারে ৩-১ জয়ী স্পেন

    #সেন্ট পিটার্সবার্গ: খাতায়-কলমে টুর্নামেন্টের হট ফেভারিট দল ফ্রান্সকে হারিয়ে শুক্রবার স্পেনের বিরুদ্ধে খেলতে নেমেছিল সুইজারল্যান্ড। শেষ আটের লড়াইয়ে স্প্যানিশদের যে সহজে ছেড়ে দেবে না সুইসরা জানা ছিল। বিভিন্ন দেশের অভিবাসী ফুটবলারদের নিয়ে তৈরি হওয়া এই সুইজারল্যান্ড দলটা গতি এবং শক্তিকে যে কোনও দলের সঙ্গে লড়াই দিতে পারে। স্পেনের সঙ্গে পার্থক্যটা ছিল স্কিলের দিকে। ম্যাচ শুরুর ৮ মিনিটেই এগিয়ে যায় স্পেন। আবার একটা আত্মঘাতী গোল। এবার করলেন সুইজারল্যান্ড দলের ডেনিস জাকারিয়া।

    অধিনায়ক জাকার জায়গায় দলে এসেছিলেন তিনি। জর্ডি আলবা শট নেন। ডেনিসের পায়ে লেগে দিক পরিবর্তন করে বল জড়িয়ে যায় জলে। কুড়ি মিনিটের মাথায় চোট পেয়ে উঠে যান সুইস স্ট্রাইকার এমবলো। পরিবর্ত হিসেবে নামেন ভারগাস। কিন্তু প্রথমার্ধে স্পেন বলের দখল নিজেদের কাছে রাখায় সুযোগ পায়নি সুইজারল্যান্ড। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই সারাবিয়ার জায়গায় ড্যানি অলমোকে নিয়ে আসেন এনরিকে। আলভারো মোরাতার জায়গায় এলেন জেরার্ড মোরেনো।

    ৬৮ মিনিটে স্প্যানিশ রক্ষণের একটা ছোট্ট ভুলে ম্যাচে সমতা ফিরিয়ে আনল সুইজারল্যান্ড। গোল করে গেলেন শাকিরি। লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হল সুইস দলের ফ্রলারকে। ফলে ডিফেন্স জোরালো করার জন্য শাকিরি এবং সেফেরওভিচকে তুলে নিলেন সুইস ম্যানেজার। অতিরিক্ত সময় শুরু হতেই সহজ সুযোগ হারান জেরার্ড। আলবার ক্রস পা লাগান বটে, কিন্তু নিশানায় অব্যর্থ থাকতে পারেননি। আবার মিনিট ছয়েক পর বলে পা লাগান, কিন্তু পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক সেভ করেন সুইস গোলরক্ষক সমের। গোলের নীচে দুর্ভেদ্য হয়ে ওঠেন তিনি।

    প্রশংসা করতে হবে ডিফেন্ডার আকেঞ্জির। একের  পর এক স্প্যানিশ আক্রমণ আটকানোর ক্ষেত্রে বিরাট ভূমিকা পালন করলেন এই ডিফেন্ডার।স্পেনের দাপট এতটাই ছিল যে সুইজারল্যান্ড সমতা ফেরানোর পর থেকে একটাও শট গোলে রাখতে পারেনি। কিন্তু ফুটবলে দিনের শেষে গোল আসল। দুর্দান্ত ফুটবল খেলা, বলের দখল রাখা, এসব গুরুত্ব রাখে না।

    কিন্তু প্রয়োজনীয় গোলটাই শুধু পাচ্ছিল না স্পেন। সুইজারল্যান্ড একজন কম নিয়ে খেলেও যেভাবে লড়াই করে ম্যাচ টাইব্রেকারে নিয়ে গেল, তা প্রশংসার দাবি রাখে। অতিরিক্ত সময় যা সুযোগ পেয়েছিল স্পেন, তাতে হাটট্রিক করতে পারতেন জেরার্ড মোরেনো। কিন্তু একবারও বল জালে জড়াতে পারলেন না। শেষ মুহূর্তে রদ্রির হেড অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হল।টাইব্রেকারে প্রথম শট পোস্টে লাগে বুসকেটসের।মিস করেন রিদ্রি। কিন্তু সুইস দলের হয়ে তিনজন মিস করেন। বৃথা গেল সুইস গোলরক্ষকের অনবদ্য লড়াই। শেষ শটে গোল করেন মিকেল। ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করল স্প্যানিশ আর্মাডা।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    Tags: EURO 2020 Copa 2021, Euro Cup 2020

    পরবর্তী খবর