• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • FOOTBALL PAUL POGBA SIDES BEER BOTTLE IN EURO CUP PRESS CONFERENCE SMJ

Euro 2020: রোনাল্ডোর মতো কাণ্ড ঘটালেন পোগবা, টেবিল থেকে সরালেন বিয়ারের বোতল

২০১৯ সালে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন পোগবা।

২০১৯ সালে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন পোগবা।

  • Share this:

    #প্যারিস:

    ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর পর এবার পল পগবাও একই কাণ্ড ঘটালেন। মঙ্গলবার পর্তুগাল বনাম হাঙ্গেরি ম্যাচের আগে সাংবাদিক বৈঠকে এসেছিলেন রোনাল্ডো। টেবিলের উপর রাখা ছিল দুটি কোল্ড ড্রিঙ্কসের বোতল। সেই ঠাণ্ডা পানীয় প্রস্তুতকারক সংস্থাটি ইউরো কাপের অন্যতম স্পনসর। টেবিলের ওপর রাখা দুটি ঠান্ডা পানীয়র বোতল দেখেই চটে যান সিআরসেভেন। তার পর দুটি বোতল সরিয়ে রাখেন। এর পরই মাইকের সামনে হঠাৎ বলেন, জল খান। এবার রোনাল্ডোর মতো একই কাণ্ড ঘটালেন ফরাসি তারকা পল পোগবা। তিনিও সাংবাদিক বৈঠকে এসে টেবিলের ওপর রাখা বিয়ারের বোতল সরিয়ে রাখলেন। সেই বিয়ার প্রস্তুতকারক সংস্থাটি এবার ইউরোপের অন্যতম স্পনসর। রোনাল্ডোর বোতল সরিয়ে রাখার ঘটনার পর ঠান্ডা পানীয় প্রস্তুতকারক সংস্থাটির ৩৩ হাজার কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে। এই নিয়ে ব্যাপক হইচই পড়েছে গোটা বিশ্বে। এবার পল পোগবার সাংবাদিক সম্মেলনের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

    একের পর এক স্পনসর সংস্থার সঙ্গে ফুটবলারদের এই বিরোধ যেন আরও তীব্র হচ্ছে। আসলে পল পোগবা ইসলাম ধর্মাবলম্বী। ফলে অ্যালকোহল জাতীয় দ্রব্য সেবন তাঁর কাছে ধর্মবিরোধী। সেই জন্যই চোখের সামনে থেকে বিয়ারের বোতল পাশে সরিয়ে রেখেছিলেন পোগবা। যদিও সংস্থাটি দাবি করেছে, সাংবাদিক বৈঠকে বিয়ারের যে বোতলটি রাখা হয়েছিল সেটি আসলে অ্যালকোহল ফ্রি। তবে ২৮ বছর বয়সী পোগবা হয়তো সেটা জানতেন না। তাই তিনি আগে পরে কিছু না ভেবেই সামনে থেকে বিয়ারের বোতলটি সরিয়ে রাখেন। যদিও তাঁর পাশে দুটি কোল্ড ড্রিঙ্কসের বোতলও ছিল। তিনি সেগুলি সরিয়ে রাখেননি।

    ২০১৯ সালে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন পোগবা। এর পর থেকেই একের পর এক ইসলামিক অনুষ্ঠান তাঁকে উদযাপন করতে দেখা যায়। ধার্মিক হিসেবে একনিষ্ঠভাবে রমজান মাসের যাবতীয় উপাচারও পালন করতে দেখা যায় পোগবাকে। এর আগে ২০১৭ সালে পোগবা ট্যুইট করে জানিয়েছিলেন, তিনি সবরকম অ্যালকোহল জাতীয় দ্রব্য থেকে দূরে থাকেন। এদিন তাই চোখের সামনে বিয়ারের বোতল দেখে কিছুটা বিরক্ত হন ফরাসী তারকা। ইউরো কাপে জার্মানির বিরুদ্ধে ম্যাচে পল পোগবা ম্যান অব দ্য ম্যাচ হয়েছিলেন। জার্মানির বিরুদ্ধে এক গোলে জেতে ফ্রান্স। ম্যাট হামেলস-এর আত্মঘাতী গোল ফরাসিদের প্রথম ম্যাচ জিততে সাহায্য করে।

    Published by:Suman Majumder
    First published: