• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • FOOTBALL LIONEL MESSI NOT BOTHERED ABOUT BREAKING PELE RECORD BUT STRESSES ON WINNING TROPHY RRC

পেলে ৭৭, মেসি ৭৬! রেকর্ড নয়, দেশকে চ্যাম্পিয়ন করাই লক্ষ্য লিওর

আর্জেন্টিনার চ্যাম্পিয়ন হওয়া আসল মেসির কাছে

আন্তর্জাতিক গোলের সংখ্যা ৭৬-এ তুলে নিয়েছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলে তাঁর সামনে শুধু একজন, পেলে। তিনবারের বিশ্বকাপজয়ী ব্রাজিলের হয়ে ৭৭ গোল করেছেন

  • Share this:

    #ব্রাসিলিয়া: আর্জেন্টিনার ফুটবল ইতিহাসে হয়তো দিয়েগো মারাদোনার ঠিক পরের আসনটাই তাঁর জন্য রাখা আছে। সেই সার্টিফিকেট দিয়ে দিয়েছেন স্বয়ং আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি। কিন্তু দেশের মানুষ লিও মেসি সম্পর্কে দু'ভাগে বিভক্ত। একদল মেসিকে প্রবল সমালোচনা করেন। অন্য দল মনে করেন তিনি যতক্ষণ মাঠে আছেন ততক্ষণ সবকিছুই সম্ভব। অতীতে দেশের মানুষের বিভিন্ন অপমানকর মন্তব্যে বারবার রক্তাক্ত হয়েছেন। একটা বিশ্বকাপ ফাইনাল, দুটো কোপা আমেরিকা ফাইনাল থেকে খালি হাতে ফিরতে হয়েছিল রানার্স ট্রফি নিয়ে।

    তাই এবার জীবনের শেষ কোপা আমেরিকা টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার অঙ্গীকার করে এসেছেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা। আর্জেন্টিনার জার্সিতে একটা ট্রফি জয়ের জন্য ছাড়তে রাজি আছেন বার্সেলোনার হয়ে জেতা সব ট্রফি। মাঠে জীবন দিতেও প্রস্তুত। আজ সকালে কোপা আমেরিকার কোয়ার্টার ফাইনালে ইকুয়েডরের বিপক্ষে আর্জেন্টিনাকে ৩-০ ব্যবধানে জেতাতে নিজের সেরা রূপটা দেখিয়েছেন অধিনায়ক। দুই সতীর্থকে দিয়ে গোল করিয়েছেন, নিজে করেছেন ফ্রি-কিক থেকে দুর্দান্ত এক গোল।

    এই গোলেই পেলের রেকর্ডের একদম কাছে চলে গিয়েছেন। আর এক গোল করলেই দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলে সর্বোচ্চ গোলদাতা পেলেকে ছুঁয়ে ফেলবেন এই আর্জেন্টাইন। তবে ব্রাজিল কিংবদন্তির রেকর্ড নিয়ে একদমই ভাবছেন না। তাঁর সব চিন্তা আর্জেন্টিনাকে নিয়ে। এই কোপাতেই ফ্রি-কিক থেকে একবার গোল করে দেখিয়েছেন মেসি। এরই মধ্যে হেরে বসা ইকুয়েডর তাই বেশ ভালোভাবেই মানব প্রাচীর সাজিয়েছিল। কিন্তু মেসির বাঁকানো ফ্রি-কিক সেই প্রাচীর আটকাতে পারেনি। ঝাঁপিয়ে পড়েও ইকুয়েডর গোলকিপার গালিন্দেজ জালে যাওয়া ঠেকাতে পারেননি।

    এই টুর্নামেন্টে এটি মেসির চতুর্থ গোল। এই মুহূর্তে টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতা মেসিই। এই গোলেই নিজের আন্তর্জাতিক গোলের সংখ্যা ৭৬-এ তুলে নিয়েছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলে তাঁর সামনে শুধু একজন, পেলে। তিনবারের বিশ্বকাপজয়ী ব্রাজিলের হয়ে ৭৭ গোল করেছেন। ম্যাচ শেষে তাই এ ব্যাপারে প্রশ্ন রাখা হয়েছিল মেসির কাছে। সেমিফাইনালে কলম্বিয়ার বিপক্ষেই রেকর্ডটি ছোঁয়ার বা ছাড়িয়ে সম্ভাবনা যে ভালোভাবেই আছে তাঁর।

    মেসির অবশ্য এ নিয়ে ভাবতে বয়েই গেছে। আর্জেন্টিনার হয়ে কিছু জেতার আকাঙ্ক্ষাই বেশি টের পাওয়া গেছে। ‘আমি সব সময়ই বলেছি ব্যক্তিগত পুরস্কার সব সময় পরে। আমরা এখানে অন্য কিছুর জন্য এসেছি। আমাদের একটা লক্ষ্য আছে এবং আমরা সেখানেই দৃষ্টি রাখছি।’ সেমিফাইনালে কলম্বিয়াকে পাচ্ছে আর্জেন্টিনা। উরুগুয়েকে হারাতে কলম্বিয়াকে টাইব্রেকারের ওপর নির্ভর করতে হয়েছে। কিন্তু একটা দল হিসেবে ম্যানেজার লিওনেল স্কালোনি যেভাবে পরিচালনা করছেন তাতে খুশি আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি। জানিয়ে গেলেন দেশকে চ্যাম্পিয়ন করা ছাড়া বাকি সব রেকর্ড মূল্যহীন।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: