রবিবার সুপার লিগের মেগা সেমিফাইনাল, মুখোমুখি এটিকে-বেঙ্গালুরু

রবিবার সুপার লিগের মেগা সেমিফাইনাল, মুখোমুখি এটিকে-বেঙ্গালুরু

অ্যাওয়ে সেমিফাইনালে গোল পার্থক্যে নজর হাবাসের। এটিকে-র তুরুপের তাস উইলিয়ামস-রয় কৃষ্ণা। ব্যাকফুটে সুনীল ছেত্রীর বেঙ্গালুরু।

  • Share this:

#কলকাতা : আক্ষেপ আর আফশোস। তাড়া করে বেড়াচ্ছে গোটা দলটাকে। মরশুমভর দুরন্ত খেলেও টেবিল শীর্ষে থেকে লিগ শেষ করা যায়নি। হাতছাড়া হয়েছে এফসি চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলার সুযোগ। চেন্নাইয়িন এফসি-র বিরুদ্ধে একটা হারে শেষ হয়ে গেছে গোটা মরসুমের স্বপ্নটা। আর সেখান থেকেই জন্ম নিয়েছে জেদ আর প্রবল ইচ্ছাশক্তি। এই দুয়ের কম্বোতে ভর করেই শনিবার বেঙ্গালুরুর পথে টিম এটিকে। রবিবার আইএসএল-র দ্বিতীয় সেমিফাইনালের প্রথম পর্বের ম্যাচে হাবাসের এটিকের সামনে সুনীল ছেত্রীর বেঙ্গালুরু এফসি। লিগের দুই সাক্ষাতে স্কোরলাইন এটিকে-র পক্ষে ১-০ ও ২-২। অর্থাৎ একবার জয় একবার ড্র। মার্চ পয়লার মেগা সেমিফাইনালের মাইন্ডগেমে রবিবার এগিয়ে থেকেই কান্তিরাভা স্টেডিয়ামে নামবে রয় কৃষ্ণা, এডু গার্সিয়ারা। চেন্নাইয়িনের বিরুদ্ধে হার টা নড়িয়ে দিয়েছে পুরো দলটাকে। কোচ অ্যান্তোনিও লোপেজ হাবাস বলছিলেন, "বেঙ্গালুরু ভাল দল। আমাদের জন্য ম্যাচটা কঠিন হবে। লিগের দুই ম্যাচে স্কোরলাইন যাই হয়ে থাক, নকআউট পর্বের ম্যাচ সব সময় আলাদা। এই ধরনের ম্যাচে অ্যাওয়ে গোল গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়ায়। সেটা মাথায় রেখেই রবিবার মাঠে নামব।"

ঘরের মাঠে সুনীল ছেত্রী, নিশু কুমার, দেলগাদো, পার্তালুরা যে ছেড়ে কথা বলবে না সে তো জানা কথাই। তবে এটিকে-র সুবিধে রবিবার কান্তিরোভার প্রথম পর্বের লড়াইয়ের পর ৮ মার্চ যুবভারতীতে ফিরতি সেমিফাইনালে সামনে পাবে সুনীলদের। অর্থাৎ রবিবার কান্তিরাভায় ম্যাচ ড্র রাখতে পারলেও সুবিধাজনক জায়গায় থাকবে দুবারের আইএসএল চ্যাম্পিয়নরা। খাতায়-কলমে তো বটেই, ধারে-ভারে কার্লোস কুয়াদ্রাতের বেঙ্গালুরুর থেকে এগিয়ে থেকেই শুরু করবে হাবাসের এটিকে। রয় কৃষ্ণা, ডেভিড উইলিয়ামস এবারের সুপার লিগের সেরা স্ট্রাইকার জুটি। মাঝমাঠে কার্যকরী ফুটবল খেলছেন এডু গার্সিয়া। দুরন্ত ছন্দে আছেন প্রবীর দাস, প্রীতম কোটাল, জয়েশ রানে, প্রণয় হালদাররা। গোলের মধ্যে রয়েছেন সুশিইরাজও। রবিবার অ্যাওয়ে ম্যাচ হলেও তাই অ্যাডভান্টেজ কলকাতা। চেন্নাইয়িনের এর বিরুদ্ধে হার শাপে বর হল কী না, বোঝা যাবে মার্চ পয়লার কান্তিরাভার স্কোরলাইনেই।

PARADIP GHOSH

First published: February 29, 2020, 12:05 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर