• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • FOOTBALL FIND OUT THE TOP GOAL POACHERS OF COPA AMERICA IN LAST 8 PHASE RRC

Copa America : লাতিন ফুটবলের সেরা শার্প শুটার কারা ? দেখুন

কোপা আমেরিকার শেষ আটের লড়াই জমজমাট

লিওনেল মেসি, নেইমার, সুয়ারেজ, কাভানি যেমন পরিচিত ফুটবলার। কারণ এরা প্রত্যেকেই ইউরোপে খেলেন, তেমনই চিলির এডওয়ার্ডো ভারগাসকেও কিন্তু হিসেবের বাইরে রাখলে হবে না

  • Share this:

    #ব্রাসিলিয়া: লাতিন আমেরিকার সেরা ফুটবল টুর্নামেন্ট কোপা আমেরিকার শেষ আটের লড়াই শুরু হবে দুদিন পরেই। লিওনেল মেসি, নেইমার, সুয়ারেজ, কাভানি যেমন পরিচিত ফুটবলার। কারণ এরা প্রত্যেকেই ইউরোপে খেলেন, তেমনই চিলির এডওয়ার্ডো ভারগাসকেও কিন্তু হিসেবের বাইরে রাখলে হবে না। ব্রাজিলের অ্যাথলেটিক মিনেরও ক্লাবে খেলেন তিনি। এছাড়াও ইকুয়েডরের এনার ভ্যালেন্সিয়া এবং কলম্বিয়ার কুয়ারদাদোর কথাও উল্লেখ করতে হয়। এরা কিন্তু বক্সে বল পেলে গোল করতে ওস্তাদ। নিজেদের গ্রুপের শেষ ম্যাচে বলিভিয়াকে বড় ব্যবধানে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা।

    জোড়া গোল করেছেন লিওনেল মেসি। শীর্ষে থেকেই শেষ আটে নীল-সাদা জার্সি। প্রতিপক্ষ হিসেবে ইকুয়েডরকে খেলতে হবে তাঁদের। এই ইকুয়েডর ব্রাজিলের বিরুদ্ধে ড্র করেছিল। তাই রীতিমতো সতর্ক আর্জেন্টিনা শিবির। ২০১৫ এবং ২০১৬ সালের চ্যাম্পিয়ন দল চিলির চ্যালেঞ্জ সামলাতে হবে ব্রাজিলকে। যদিও আগের জায়গায় নেই ভিদাল, মেডেল, ভারাহাসরা, তবুও চিলির লড়াকু মনোভাবের মোকাবিলা করতে হবে নেইমারদের। ব্রাজিল বিশ্বকাপে চিলির বিরুদ্ধে মাথার ঘাম পায়ে ফেলে জিততে হয়েছিল সেলেকাওদের।

    ব্রাজিলের সঙ্গে শক্তির বিচারে অনেকটা পিছিয়ে থাকলেও চিলি সহজে লড়াই ছাড়ে না। কোপা আমেরিকার গ্রুপ পর্ব শেষ। আর্জেন্টনা-বলিভিয়া এবং উরুগুয়ে প্যারাগুয়ের ম্যাচ দিয়ে শেষ হয়ে গেল গ্রুপ পর্বের জমজমাট লড়াই।   গ্রুপ ‘বি’ এর চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কারণে কোয়ার্টারে ব্রাজিল প্রতিপক্ষ হিসেবে পেলো ‘এ’ গ্রুপের চতুর্থ হওয়া দল চিলিকে। বলা যায়, কোয়ার্টারে সবচেয়ে কঠিন প্রতিপক্ষকেই পেলো ব্রাজিল।

    কোচ তিতে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে ব্রাজিল প্রচন্ড ধারাবাহিক। ফুটবলারদের সঙ্গে যেমন বন্ধুর মতন মিশতে পারেন, তেমনই ম্যাচের প্ল্যানিং তৈরির ক্ষেত্রেও তাঁর জুড়ি মেলা ভার। তার ওপর ঘরের মাঠে খেলছে ব্রাজিল। দু'বছর আগে এই কোচের হাত ধরেই কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল হলুদ সবুজ জার্সিধারীরা। তাই প্রত্যাশার চাপ ব্রাজিলের ওপর বাকিদের তুলনায় অনেক বেশি।

    অন্যদিকে জীবনের শেষ কোপা আমেরিকা খেলা লিওনেল মেসি চাইবেন যে কোনও মূল্যে স্বপ্ন সফল করতে। অতীতে ফাইনালে উঠে দু বার হেরেছেন। এই ব্রাজিলের মাটিতেই ৭ বছর আগে বিশ্বকাপ ফাইনালে শেষ মুহূর্তের গোলে স্বপ্ন ভেঙে গিয়েছিল জার্মানির বিরুদ্ধে। তাই অতীতের স্মৃতি মুছে নতুন ইতিহাস লিখতে মরিয়া এল এম টেন। দুই চিরশত্রু ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনার দেখা হলে সেটা হবে স্বপ্নের ফাইনাল। কিন্তু তার আগে চিনি এবং ইকুয়েডরের চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করতে হবে লাতিন ফুটবলের দুই মহা শক্তিকে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: