• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • FOOTBALL EURO 2020 WATCH THOMAS MULLER GOAL MISS MOMENT VS ENGLAND SMJ

Euro 2020: মাঠের 'ছায়ামানব' থেকে ট্র্যাজিক নায়ক! শেষ ইউরোয় মুলারের সেই গোল মিসের মুহূর্ত দেখুন

৭৫ মিনিটে মুলার যখন গোল মিস করলেন তখন জার্মানি ১-০ তে পিছিয়ে।

৭৫ মিনিটে মুলার যখন গোল মিস করলেন তখন জার্মানি ১-০ তে পিছিয়ে।

  • Share this:

    #লন্ডন:

    মিস্টার রমডয়টার। এই নামেই তো তাঁকে ডাকে ফুটবল বিশ্ব। লেখাটা পড়ার আগে আপনাকে একবার গুগলে গিয়ে রমডয়টার শব্দটার মানে দেখে নিতে হবে। গুগল অবশ্য দেখাবে থমাস মুলারকে। আসলে ফুটবলে রমডয়টার শব্দের কোনও সামঞ্জস্যপূর্ণ বাংলা প্রতিশব্দ নেই। বলতে পারেন, ছায়ামানব। হ্যাঁ, থমাল মুলার মাঠে ছায়ামানব বটে! তিনি মাঠে সশরীরে ছায়ার মতোই ঘুরে বেড়ান। রমডয়টার পজিশন-এর ফুটবলারের আসলে কোনও পজিশন হয় না। সেই ফুটবলার মাঝমাঠ বা আক্রমণভাগ থেকে খেলতে শুরু করেন বটে। তবে তাঁর আসল কাজ সারা মাঠের যে কোনও জায়গায় স্পেস খুঁজে বের করা। ফলে রমডয়টার বা ছায়ামানব মুলারকে সামলাতে হিমশিম খায় বিপক্ষ দলের রক্ষণভাগ। এদিনও সেটাই হয়েছিল। মুলার যে কোথা থেকে উদয় হলেন! বল পেলেন, প্রায় একাই এগোলেন। তাঁর গা ছুঁয়ে ছিলেন বিপক্ষের দুই ফুটবলার। একটু যেন তাড়াহুড়ো করে ফেললেন জার্মান গোলমেশিন। সহজ গোলের সুযোগ মিস।

    জার্মানদের তখন চোখ ছলছল। জার্মানদের মতো বজ্রকঠিন মানসিকতার সমর্থকরাও এমন বাস্তব মেনে নিতে পারছিলেন না। ৭৫ মিনিটে মুলার যখন গোল মিস করলেন তখন জার্মানি ১-০ তে পিছিয়ে। মুলার গোল করলেই হত ১-১। অর্থাত, আবার ম্য়াচে ফিরত জার্মানরা। কিন্তু জীবনের শেষ ইউরোয় নেমে এ কেমন মিস করে বসলেন মিস্টার রমডয়টার! এত সহজ সুযোগ মুলার জীবনে কখনও ফস্কেছেন কি না সন্দেহ। কিন্তু জীবনের সব দিন রোববার হয় না। সেটা হয়তো এদিন বুঝলেন মুলার। ইংল্যান্ডের গোলকিপার জর্ডন পিকফোর্ডকে একা পেয়েও বাইরে মারেন মুলার। ওয়েম্বলিতে তখন ইংল্যান্ডের সমর্থকরা প্রায় থ মেরে গিয়েছিলেন। আসলে তাঁরাও ভেবে পাচ্ছিলেন না, মুলারের মতো একজন কী করে এত সহজ সুযোগ মিস করলেন!

    মাত্র ২০ বছর বয়সে জীবনের প্রথম বিশ্বকাপে পাঁচ গোল। ২৯ বছর বয়সে যখন একজন ফুটবলারের ঝকঝকে কেরিয়ার তখন তিনি জুনিয়রদের জায়গা করে দিতে চাইছেন। এমন একজন ফুটবলার হয়তো শতাব্দীতে একজনই আসেন। আর এমন কিংবদন্তি ফুটবলারেও খারাপ দিন যায়। এদিন সেটাই প্রমাণ হল আবার। তবে একটা খারাপ দিন বা একটা সহজ সুযোগ কাজে লাগাতে না পারার ব্যর্থতা তাঁকে সারা জীবনের সমস্ত উপার্জনে ছায়া ফেলতে পারে না। আবার এটাও ঠিক, জীবনের শেষ ইউরো কাপে ভাগ্যদেবী তাঁর সঙ্গে এমন ছেলেখেলা না খেললেই পারত। এক ফোঁটা কালিও তো দাগের মতোই, তাই না!

    Published by:Suman Majumder
    First published: