মোহনবাগানের দৃষ্টান্ত টেনে আত্মসমালোচনায় ইস্টবেঙ্গল

মোহনবাগানের দৃষ্টান্ত টেনে আত্মসমালোচনায় ইস্টবেঙ্গল

মরশুম শেষে কোয়েস বিদায়। সোমবার কি তারই প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেল লাল-হলুদে?

  • Share this:
  Paradip Ghosh  

#কলকাতা: দৃষ্টান্ত মোহনবাগান। ইস্টবেঙ্গলের জরুরি বৈঠকে পড়শি ক্লাবের উদাহরণ টানলেন ক্লাবকর্তারা। একসঙ্গে আই লিগ শুরু করেও ট্রান্সফার উইনডো-তে বিদেশি বদলে দলের ফুটোফাটা ঢেকে ফেলেছেন সৃঞ্জয় বোস, দেবাশিস দত্তরা। অথচ আলেজান্দ্রোর দলে খামতি রয়েছে জেনেও ট্রান্সফার উইনডো-তে হাত গুটিয়ে বসে আছেন কোয়েস কর্তারা। আর তাতেই ক্ষোভ বেড়েছে লাল-হলুদের অন্দরে।

শতবর্ষে এখনও পর্যন্ত ট্রফি নেই ক্লাবে। আর সেটাই ভাবাচ্ছে ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের। আলেজান্দ্রোর দলে যে ভারসাম্যের ঘাটতি রয়েছে সেটা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে চার্চিল ম্যাচ। দলে স্ট্রাইকার সমস্যা রয়েছে। বিদেশি মার্কোসে আস্থা হারিয়েছে লাল-হলুদ জনতা। ডিফেন্স চলছে জোড়াতালি দিয়ে। জানুয়ারির ট্রান্সফার উইনডো-তে ভাল মানের বিদেশি এনে দলে ভারসাম্য ফেরানোর কাজটা সহজেই করতে পারত টিম ম্যানেজমেন্ট। কিন্তু সেই বিষয়ে উচ্চবাচ্য নেই কোয়েস কর্তাদের। আর তাতেই ধৈর্যের বাঁধ ভেঙেছে শতবর্ষে পা রাখা ক্লাবের কর্মকর্তাদের। দলের রাশ নিজেদের হাতে তুলে নিতে মঙ্গলবার থেকে আলেজান্দ্রোর অনুশীলনে হাজির থাকবেন ক্লাব সভাপতি প্রণব দাশগুপ্ত, শীর্ষকর্তা দেবব্রত সরকাররা। সোমবার সন্ধ্যায় সভাপতির ডাকা ক্লাবতাঁবুতে জরুরি বৈঠকে দল পরিচালনা নিয়ে কোয়েসের ঔদাসীন্যের সমালোচনায় সোচ্চার হন ক্লাবকর্তারা।

আরও পড়ুন আঙ্গুলের চোট সারিয়ে কবে মাঠে ফিরছেন ঋদ্ধিমান সাহা ?

মরশুম শেষে কোয়েস বিদায়। সোমবার কি তারই প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেল লাল-হলুদে? মঙ্গলবার থেকে আলেজান্দ্রোর অনুশীলনে ক্লাবকর্তাদের নজরদারি, ঘরোয়া বৈঠকে মোহনবাগানের উদাহরণ টেনে আত্মসমালোচনায় মেতে ওঠা। এসব তো তারই ইঙ্গিত। ক্লাব সভাপতি প্রণব দাশগুপ্ত, শীর্ষকর্তা দেবব্রত সরকার ছাড়াও বৈঠকে ছিলেন বোর্ড সদস্য সৈকত গঙ্গোপাধ্যায়, সচিব কল্যাণ মজুমদাররা। পয়েন্ট টেবিলের পয়লা থেকে চার্চিলের বিরুদ্ধে হার চার নম্বরে নামিয়ে এনেছে ইস্টবেঙ্গলকে। পরিস্থিতির গুরূত্ব বিচারে কোয়েস চেয়ারম্যান অজিত আইজ্যাককে চিঠিও দেওয়া হচ্ছে। চিঠিতেও পড়শি ক্লাব মোহনবাগানের উদাহরণ টেনে নতুন ফুটবলার রিক্রুটের আবেদন জানাচ্ছেন ইস্টবেঙ্গল সভাপতি। প্রয়োজনে ক্লাবের পক্ষ থেকে আর্থিক সাহায্যের প্রতিশ্রুতিও দেওয়া হয়েছে। শীর্ষকর্তা দেবব্রত সরকার জানান,‘‘আমরা কোয়েসের কাছে আবেদনটুকু করতে পারি মাত্র। ক্লাবের ভালোর জন্য সব রকম সাহায্য করতে তৈরি।’’

First published: January 6, 2020, 11:58 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर