• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • BFC vs NEUFC match: গোল পেলেন না সুনীল, নর্থইস্টকে হারিয়ে আইএসএলে যাত্রা শুরু বেঙ্গালুরুর

BFC vs NEUFC match: গোল পেলেন না সুনীল, নর্থইস্টকে হারিয়ে আইএসএলে যাত্রা শুরু বেঙ্গালুরুর

বল দখলের লড়াইয়ে বেঙ্গালুরু এবং নর্থইস্টর দুই ফুটবলার

বল দখলের লড়াইয়ে বেঙ্গালুরু এবং নর্থইস্টর দুই ফুটবলার

Bengaluru FC beat North East United 4-2 to start ISL campaign. ১৩ মিনিটের মাথায় বেঙ্গালুরুকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ব্রাজিলীয় ফুটবলার ক্লেটন। উদন্তর পাস ধরে গোলরক্ষককে কাটিয়ে নিয়ে জালে বল খেলতে ভুল করেননি তিনি।

  • Share this:

    বেঙ্গালুরু -৪ নর্থইস্ট -২

    #গোয়া: বেঙ্গালুরু কোচ মার্কো পেজ্জাইয়ুলি বলে দিয়েছিলেন ‍প্রথম লক্ষ্য হল সেমিফাইনালে যাওয়া। কারণ, গত দু’মরসুম ধরে সেমিফাইনাল যেতে পারেনি দল। সেভাবে সাফল্যও মেলেনি। আমাদের কিছু পরিবর্তন ধীরে ধীরে করতে হবে। তবে সবার আগে প্রথম ম্যাচে মাঠে নেমে লড়ে তিন পয়েন্ট আনতে হবে। বেঙ্গালুরু এফসি অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী, যিনি আন্তর্জাতিক ম্যাচে গোলসংখ্যায় লিয়োনেল মেসিকে স্পর্শ করার পাশাপাশি ‍‘খেলরত্ন’ সম্মান পেয়েছেন।

    আরও পড়ুন - Ballon d Or 2021 nominee: নতুন বছরের ব্যালন ডি ওরের দৌড়ে চার মহারথী, শেষ পর্যন্ত জিতবে কে? জানুন

    খালিদ জামিল। যিনি কলকাতায় প্রশিক্ষক হিসেবে সাড়া না পেলেও প্রতিবেশী রাজ্যের রাজধানী গুয়াহাটিতে গিয়ে সাফল্য পেয়েছেন। গত বছর দলের প্রধান কোচ হিসেবে নর্থ ইস্ট ইউনাইটেডকে সেমিফাইনালে নিয়ে গিয়েছিলেন। এ পর্যন্ত দু’দলের সাক্ষাতে ১০ বারের মধ্যে মাত্র এক বার বেঙ্গালুরুকে হারিয়েছে নর্থ ইস্ট। কিন্তু সেই রেকর্ডকে ধর্তব্যের মধ্যেই আনতে চাননি বেঙ্গালুরু কোচ।

    কোচের এই ধারণা কতটা সঠিক বোঝা গেল ম্যাচ শুরু হতেই। প্রথম থেকেই বৃষ্টি হচ্ছিল। গোলও হল বৃষ্টির মত।শনিবার গোয়ার বাম্বোলিমের মাঠে বেঙ্গালুরু বনাম নর্থইস্ট ইউনাইটেড ম্যাচটা প্রথম থেকেই ওপেন ফুটবলের দেখা মিলল। দুই দলই গুটিয়ে থেকে নয়, আক্রমনাত্মক ফুটবল উপহার দিল। ১৩ মিনিটের মাথায় বেঙ্গালুরুকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ব্রাজিলীয় ফুটবলার ক্লেটন। উদন্তর পাস ধরে গোলরক্ষককে কাটিয়ে নিয়ে জালে বল খেলতে ভুল করেননি তিনি।

    ১৭ মিনিটে সমতা ফিরিয়ে আনে নর্থইস্ট। সুহেরের পাস থেকে গোল করেন জামাইকান স্ট্রাইকার দেশন ব্রাউন। আবার এগিয়ে যায় বেঙ্গালুরু। আত্মঘাতী গোল করেন নর্থইস্ট ডিফেন্ডার মাশুর শারিফ। আবার নর্থইস্টকে সমতায় ফিরিয়ে আনেন কুরিয়ার। প্রথমার্ধেই পাঁচটি গোল। কিন্তু সুনীল ছেত্রী ছিলেন একেবারেই ম্রিয়মাণ। বলের সাপ্লাই আসছিল না তার কাছে। অনেকটা নীচ থেকে খেলছিলেন তিনি।

    ৪২ মিনিটে ডিফেন্স থেকে একটা বল এলে দুরন্ত ফ্লিক করে দেন ক্লেটন। জয়েস রানের শট গোলরক্ষক শুভাশিসকে পরাস্ত করে আশ্রয় নেয় জালে। ৩-২ এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় বেঙ্গালুরু। দ্বিতীয়ার্ধে মশুরকে তুলে নিয়ে শাহনাজ সিং কে নামালেন খালিদ। বেঙ্গালুরুর দুই প্রান্তে আশিক এবং অজিত চাপ তৈরি করছিলেন নর্থইস্ট ডিফেন্সে। প্রেসিং ফুটবল বাড়িয়ে দিল বেঙ্গালুরু।

    মিডফিল্ডে ব্রাজিলীয় ফুটবলার রামিরেজ খেলাটা নিয়ন্ত্রণ করছিলেন। বেঙ্গালুরু দুটো পরিবর্তন করল। প্রতিক চৌধুরি এবং লিওন অগাস্টিনকে নামালেন বেঙ্গালুরু কোচ। কিন্তু ভাগ্য খারাপ লিওনের। চোট পেয়ে বাইরে চলে গেলেন। তার জায়গায় নামলেন কঙ্গোর প্রিন্স ইবারা। ৮০ মিনিটে গোল করলেন দুরন্ত শটে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: