লকডাউনে ঘরের কাজে ব্যস্ত "সুপারম্যান", টেবিলে উঠে ঋদ্ধিমানের ফ্যান পরিষ্কারের ছবি ভাইরাল

লকডাউনে ঘরের কাজে ব্যস্ত "সুপারম্যান", টেবিলে উঠে ঋদ্ধিমানের ফ্যান পরিষ্কারের ছবি ভাইরাল

দেখা যাচ্ছে টেবিলে উঠে কাপড় দিয়ে ফ্যান পরিষ্কার করছেন ঋদ্ধিমান সাহা।

দেখা যাচ্ছে টেবিলে উঠে কাপড় দিয়ে ফ্যান পরিষ্কার করছেন ঋদ্ধিমান সাহা।

  • Share this:

#কলকাতা: কথায় বলে যে রাঁধে, সে চুলও বাঁধে। তা বলে যে ভালো উইকেটকিপিং করেন, সে ভালো ফ্যান পরিষ্কার করতে পারেন কী? আসলে ঋদ্ধিমান সাহার ছবি দেখলে সেই প্রশ্নটাই উঠে আসছে। সোমবার সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি আপলোড করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে টেবিলে উঠে কাপড় দিয়ে ফ্যান পরিষ্কার করছেন ঋদ্ধিমান সাহা। "সুপারম্যান" ঋদ্ধি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন,"দেখুন লকডাউনে পরিবার ও কাজের সঙ্গে সামঞ্জস্য বজায় রেখে চলছি।" পাপালি পোস্টটি ট্যাগ করেছেন স্ত্রী রোমিকে। সঙ্গে হাসিমুখে চোখ থেকে জল বেরোনোর একটি ইমোজিও রয়েছে।

আসলে এই মুহূর্তে আইপিএল নেই। কোনও ক্রিকেট নেই। লকডাউনে গৃহবন্দি রয়েছে ভারতীয় দলের সব ক্রিকেটার। বাইরে গিয়ে অনুশীলনও নেই। তাই বিরাট থেকে বুমরা, ধাওয়ান থেকে শ্রেয়াস আইয়ার প্রত্যেকেই বাড়ির কাজে হাত লাগিয়েছেন। ঘর মোছা থেকে রান্না করা। ঝাড়ু দেওয়া থেকে বাসন ধোয়া। ঘরের সব কাজ করতে ব্যস্ত ভারতীয় ক্রিকেটাররা। সেই সব ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেছেন প্রত্যেকেই। কয়েক মুহূর্তের মধ্যেই সব ছবি ভাইরাল হয়ে গেছে। এবার লকডাউনে ঘরের কাজ করা ছবি পোস্ট করলেন ঋদ্ধি। গত ৭ মার্চ দ্বিতীয়বার বাবা হয়েছেন। ছেলের নাম রেখেছেন আনভয়। সাউথ সিটির ফ্ল্যাটে সদ্যজাত পুত্র সন্তান ও পরিবার নিয়েই লকডাউনে ব্যস্ত রয়েছেন ঋদ্ধি। স্ত্রী রোমি, মেয়ে আনভি-র সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন বিরাট সতীর্থ। বাড়িতেই চলছে ফিজিক্যাল ট্রেনিং। শিলিগুড়ি থেকে মা-বাবা লকডাউনের আগে কলকাতায় এসেছিলেন। তাঁরাও এই মুহূর্তে সাউথ সিটিতে সঙ্গে রয়েছেন। এমনিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব বেশি ব্যক্তিগত বিষয়ে পোস্ট করেন না ঋদ্ধি। তবে দিন কয়েক আগে মেয়ে আনভির একটি ভিডিও পোস্ট করেন পাপালি। সেখানে দেখা যায়, করোনা ভাইরাসের মোকাবিলায় লকডাউন মানা নিয়ে বার্তা দিচ্ছেন ছোট্ট আনভি। তারও আগে ছেলে আনভয়ের সঙ্গে ছবি পোস্ট করেন ঋদ্ধি। করোনা যুদ্ধে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে ঋদ্ধিমান শামিল হয়েছেন। তবে সেই বিষয়টি পুরোটাই ব্যক্তিগত জায়গায় রাখছেন পাপালি। কোনও প্রচার চান না পাপালি।
Published by:Akash Misra
First published:

লেটেস্ট খবর