বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ঘিরে তুমুল অশান্তি, প্রেমিকাকে খুন করে বস্তাবন্দি দেহ সরিয়ে ফেলা হল

বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ঘিরে তুমুল অশান্তি, প্রেমিকাকে খুন করে বস্তাবন্দি দেহ সরিয়ে ফেলা হল
Representative Image

পরিচয়হীন মহিলাকে যে খুন করেই এগরায় রাস্তার ধারে বস্তাবন্দী অবস্থায় ফেলা হয়েছিল সে ব্যাপারে নিশ্চিত ছিল পুলিশ।

  • Share this:

#কাঁথি:এগরায় ট্রলি ব্যাগ বন্দী অবস্থাতেই গত ৯ মার্চ মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার করেছিলো। অজ্ঞাত পরিচয় মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছিলো এগরায়। পরিচয়হীন মহিলাকে যে খুন করেই এগরায় রাস্তার ধারে বস্তাবন্দী অবস্থায় ফেলা হয়েছিল সে ব্যাপারে নিশ্চিত ছিল পুলিশ।

তদন্তে নেমে সাত দিনের মাথাতেই খুনের কিনারা করল পুলিশ! মহিলার পরিচয় জানার পাশাপাশি খুনের সঙ্গে কারা কারা জড়িত তাও জেনেছে পুলিশ। জানা গিয়েছে, কলকাতার দমদমে খুন করে ট্রলি ব্যাগে ভরে  মহিলার মৃতদেহটি এগরায় এনে ফেলা হয়। খুনের ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে দমদমের বাসিন্দা স্বামী স্ত্রী সহ মোট চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধৃতদের আজ কাঁথি  আদালতে তোলা হয়। আদালতে ১০ দিনের পুলিশ হেফাজত চেয়ে আবেদন করা হয়েছে বলে পুর্ব মেদিনীপুরের পুলিশ সুপার ইন্দিরা মুখার্জি জানিয়েছেন।

বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কারণে গন্ডগোলের সুত্রপাত এবং সেকারনেই  এই খুনের ঘটনা বলে পুলিশ জানতে পেরেছে।গত সোমবারই এগরা সোলপাট্টা উড়িষ্যা রাস্তায় কুদি হোসেনপুরের কাছে একটি ব্রিজের নিচ থেকে একটি ট্রলি ব্যাগের ভেতর থেকেই বছর ২৭ বছর বয়সের অজ্ঞাত মহিলার লাশ পাওয়া গেলে তদন্তে নামে পুলিশ। হলদিয়ার ঝিকুরখালিতে  মা ও মেয়েকে পুড়িয়ে মারার ঘটনা থেকে মেছেদায় লোকাল ট্রেনের ভেতর থেকে ট্রলি ব্যাগ বন্দী মৃতদেহ উদ্ধার। সঙ্গে এগরায় ট্রলি ব্যাগ থেকে উদ্ধার মহিলার মৃতদেহ। জেলা জুড়ে একের পর এক খুনের ঘটনায় বেশ চাপে পড়ে পুলিশ। শেষমেশ পুলিশি তল্লাশি আর তদন্তে সামনে আসে খুনের আসল রহস্য! সেই রহস্যেরই কিনারা করলো পুলিশ। এগরার বড় নিহারি ও কামারডিহা গ্রাম থেকে এবং কলকাতার দমদম থেকে এই খুনের ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কাঁথিতে সাংবাদিক বৈঠক করে ঘটনার বিবরণ শুনিয়েছেন পুলিশ সুপার ইন্দিরা মুখার্জি।

SUJIT BHOWMIK

First published: March 16, 2020, 9:44 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर