corona virus btn
corona virus btn
Loading

Lockdown| লকডাউনে বাড়ি বাড়ি রসগোল্লা-রাজভোগ ফেরি করছেন রাজ্যের এই মন্ত্রী!

Lockdown| লকডাউনে বাড়ি বাড়ি রসগোল্লা-রাজভোগ ফেরি করছেন রাজ্যের এই মন্ত্রী!
রসগোল্লা

কাজ হারিয়ে মুখ শুকনো করে বসেছিলেন এক মিষ্টান্ন কারিগর। অন্য কোনও কাজ খুঁজছিলেন তিনি। তাঁকে দৈনিক তিনশো টাকা পারিশ্রমিকে মিষ্টি তৈরির কাজ দিয়েছেন অনাথ আশ্রমে।

  • Share this:

#বর্ধমান: ইনিও সেলস ম্যান। অন্তত এই লক ডাউনের সময়ে। হোম ডেলিভারি করছেন রাজভোগ, রসগোল্লার। ছোট ছোট কনটেনারে ভরা রসগোল্লা, রাজভোগ। তা নিয়ে ফেরি করছেন বাড়ি বাড়ি, সরকারি অফিসে।

লক ডাউনে কাজ হারিয়েছেন অনেকেই। কেউ কেউ বেছে নিয়েছেন নতুন পেশা। অনেকে সবজি বিক্রি করে সংসার চালাচ্ছেন। অনেকে মাছ। অনেকে টোটো চালাতেন। তাঁরা টোটোয় ডাব তুলে বিক্রি করছেন। তেমনই  তিনি এখন মিষ্টি বিক্রেতা।

মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

আপাতত তাঁর ঠিকানা এখন পূর্ব বর্ধমানের পূর্বস্থলীর দামোদরপাড়ার অনাথ আশ্রম। সেখানেই থাকছেন তিনি। খাওয়া দাওয়া রাত্রিবাস সেখানেই। সকালে উঠে হাঁটতে বেরচ্ছেন। স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে  কুশল বিনিময় করছেন।

কাজ হারিয়ে মুখ শুকনো করে বসেছিলেন এক মিষ্টান্ন কারিগর। অন্য কোনও কাজ খুঁজছিলেন তিনি।  তাঁকে দৈনিক তিনশো টাকা পারিশ্রমিকে মিষ্টি তৈরির কাজ দিয়েছেন অনাথ আশ্রমে। তাতে গো পালকের দুধ বিক্রি হবে। সেই দুধের ছানা বিক্রি করে সংসার চালাতে পারবেন ছানা বিক্রেতা। সেই ছানা থেকে তৈরি মিষ্টি খেতে পাবেন এলাকার বাসিন্দারা। এই ভাবনা থেকেই অনাথ আশ্রমে তৈরি হচ্ছিল মিষ্টি।

সেই মিষ্টি কৌটোয় ভরে বিক্রি চলছে। লাভের টাকায় অনাথ আশ্রমের উন্নয়ন অন্যতম উদ্দেশ্য। সেই লক্ষ্যেই মিষ্টির প্যাকেট নিয়ে ঘুরছেন তিনি। ইচ্ছে রয়েছে জেলাজুড়ে তা ছড়িয়ে দেওয়ার পরিকাঠামো তৈরির। আজ যেমন এই প্রবীন সেলস ম্যান মিষ্টি বিক্রি করতে গিয়েছিলেন কালনার মহকুমা শাসক সৌরভ সুমন মোহান্তির কাছে। মহকুমাশাসক কিনলেন মিষ্টি। বললেন, অনাথ আশ্রমের উন্নয়নে ভালো উদ্যোগ। কিন্তু কে এই সেলস ম্যান? তিনি রাজ্য সরকারের প্রাণী সম্পদ বিকাশ মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

উদ্দেশ্যর কথা জানিয়ে মিষ্টি ভর্তি কন্টেনার তুলে দিলেন মহকুমা শাসকের হাতে। মহকুমা শাসক বললেন, এই মিষ্টির দাম আমি অনাথ আশ্রমে পাঠিয়ে দেবো। মন্ত্রী বললেন, আমাকেই দিতে পারেন। আমিই সেলস ম্যান। তিনি বললেন, জেলা জুড়ে অনাথ আশ্রমের এই মিষ্টি বিক্রি ছড়িয়ে দেওয়াই এখন লক্ষ্য।

Published by: Arindam Gupta
First published: April 23, 2020, 10:00 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर