Home /News /south-bengal /
Ukraine crisis : প্রতি মুহুর্তে বোমা আর মিসাইলের আতঙ্ক! বাড়ি ফিরে ভয়াবহ অভিজ্ঞতা জানালেন ঋতম

Ukraine crisis : প্রতি মুহুর্তে বোমা আর মিসাইলের আতঙ্ক! বাড়ি ফিরে ভয়াবহ অভিজ্ঞতা জানালেন ঋতম

প্রতি মুহুর্তে বোমা আর মিসাইলের আতঙ্ক! বাড়ি ফিরে ভয়াবহ অভিজ্ঞতা

প্রতি মুহুর্তে বোমা আর মিসাইলের আতঙ্ক! বাড়ি ফিরে ভয়াবহ অভিজ্ঞতা

Ukraine crisis : ইউক্রেনের কিভ মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটির দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মুর্শিদাবাদের বহরমপুরের বাসিন্দা ঋতম পাল।

  • Share this:

#বহরমপুর: রবিবার ঋতম বাড়ি ফিরতেই স্বস্তিতে বাবা মা সহ গোটা পরিবার। তবে ইউক্রেনের ভয়াবহ যুদ্ধ পরিস্থিতির মধ্যে থেকে যত দ্রুত সম্ভব ভারতীয়দের দেশে ফিরে আসার বার্তা দিল ঋতম। প্রতি মুহুর্তে বোমা আর মিসাইলের আতঙ্ক কাটিয়ে অবশেষে ইউক্রেন থেকে বহরমপুরে বাড়ি ফিরল ঋতম পাল।

ইউক্রেনের কিভ মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটির দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মুর্শিদাবাদের বহরমপুরের বাসিন্দা ঋতম পাল। রাশিয়া ইউক্রেনের যুদ্ধ ঘোষনা হতেই অন্যান্য ভারতীয়দের মতো ঋতমও চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছে দেশে ফেরার। ইউক্রেনের কিভ শহরেই থাকত রিতম। দীর্ঘ লড়াই চালিয়ে অবশেষে বাড়ি ফিরে খুশি সে।

ঋতমের কথায়, "প্রতিদিন সাইরেন বাজতেই ছুটে গিয়ে আশ্রয় নিতে হতো বাঙ্কারে। আমরা একসঙ্গে অনেক ভারতীয় ওই বাঙ্কারে থাকতাম। প্রতি মুহুর্তে বোমা আর মিসাইলের আতঙ্ক। দু-তিন দিনের খাবার মজুত রাখলেও সেটাও শেষ হয়ে যায়। তবে ভারতীয় দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করেও কোনও সাহায্য পাইনি। কিন্তু দেশে ফেরার প্রাণপন চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছি। ভারতীয় দূতাবাসের কোনও সাহায্য না পেয়ে আমরা কয়েকজন বন্ধু একসঙ্গে ট্রেনে করে কিভ থেকে লাভিভ হয়ে রোমানিয়া বর্ডার পাড় করি। আমাদের কোনও খাবার পানীয় জল কিছু ছিল না। তার পর সেখানেই তিনদিন থাকার পর টিকিট পেয়ে দেশে ফিরি। মুম্বই থেকে কেন্দ্রীয় সরকার ও রাজ্য সরকারের তৎপরতায় বাড়ি ফিরতে পেরেছি।

আরও পড়ুন - জানলার বাইরেই বন্দুক হাতে সেনা! ইউক্রেনে আটকে পড়া পড়ুয়া সরাসরি জানালেন পরিস্থিতি

ঋতম আরও বলছে, "এখনও অনেক অনেক ভারতীয় পড়ুয়া ওখানে আটকে রয়েছে। তবে রাশিয়া ভারতীয়দের আক্রমণ করবে না বলে জানিয়েছে। তাই আমি চাই সরকারি তৎপরতায় যত দ্রুত সম্ভব ওদের দেশে ফিরিয়ে নিয়ে আসা হোক। ওরা খুব কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে আছে।" চরম দুশ্চিন্তা কাটিয়ে ছেলেকে কাছে পেয়ে খুশি মা তনুকা পাল। তিনি বলেন, "আমি খুব খুশি যে আমার ছেলে বাড়ি ফিরে এসেছে। এই ক'টা দিন খুব দুশ্চিন্তায় কাটিয়েছি। ঋতম খুব কষ্টের মধ্যে থেকে বাড়ি ফিরে এসেছে। এখন আমি স্বস্তিতে।"

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

Tags: Russia Ukraine Crisis, Ukraine crisis

পরবর্তী খবর