রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতি বিজড়িত শান্তিনিকেতনের গৌড় প্রাঙ্গণে ঐতিহ্যবাহী ঘণ্টাতলার উপর ভেঙে পড়ল গাছ

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতি বিজড়িত শান্তিনিকেতনের গৌড় প্রাঙ্গণে ঐতিহ্যবাহী ঘণ্টাতলার উপর ভেঙে পড়ল গাছ
Photo- File

শান্তিনিকেতনের গৌড় প্রাঙ্গণে ঐতিহ্যবাহী ঘণ্টাতলার উপর ভেঙে পড়ল গাছ৷

  • Share this:

    #শান্তিনিকেতন: শান্তিনিকেতন  গৌড়প্রাঙ্গণে বড়  ঘণ্টাতলার ওপর ভেঙে পড়ল প্রাচীন বটবৃক্ষ। গাছ ভেঙে পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ঐতিহ্যবাহী ঘণ্টাতলাটি। জানা গিয়েছে, গুরুদেবের সময় থেকেই রয়েছে এই বটবৃক্ষটি৷ গাছটিকে ঘিরেই তৈরি হয়েছিল ঘন্টাতলাটি।

    বৌদ্ধ ধর্মের প্রতি ভালোবাসায় ছিল গুরুদেব রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের। বৌদ্ধধর্মের বহু কিছু তিনি শান্তিনিকেতনে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। যেমন চৈতি বাড়ি, ঘন্টা তলা প্রভৃতি। তবে এই ঘন্টা তলা প্রতিষ্ঠা নিয়ে মতান্তর রয়েছে। কেউ বলেন ১৯০১ সালে তৈরি হয়েছিল, অনেকের মত ১৯১৯ সালে। ছাত্রী লেডি রানুর কলারশিপের টাকায় প্রথম তৈরি হয়েছিল বৃহৎ ঘন্টাটি। সেই ঘন্টা চুরি হয়ে যায়। পরে আশ্রমিক, আবাসিকরা অর্থ সংগ্রহ করে ফের ঘন্টা লাগানো হয় গৌড়প্রাঙ্গণের ঘণ্টাতলায়। এই স্থানে একটি প্রাচীন বটবৃক্ষ ছিল। তাকে ঘিরেই তৈরি হয়েছিল ঘন্টাতলাটি।


    সেই সময় ঘড়ির চলছিল না। এই ঘন্টার ধ্বনিতেই শুরু হত ক্লাস, ছুটিও হত। শুধু তাই নয় কতবার ঘন্টা বাজলে কি ইঙ্গিত দেওয়া হচ্ছে তাও শেখানো হত পড়ুয়াদের। বিপদের সময়ও এই ঘন্টার ধ্বনি দিয়ে সকলকে সজাগ করা হত।কয়েক দিনের ভাড়ি বৃষ্টিতে প্রাচীন বটবৃক্ষটি গোঁড়া থেকে উপড়ে যায়। গাছের ডালপালায় ক্ষতিগ্রস্ত হয় ঐতিহ্যবাহী ঘন্টা তলাটি। ঘটনাস্থলে যান বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী সহ আধিকারিক, নিরাপত্তারক্ষীরা। গাছটিকে পুণরায় দাঁড় করানোর ও ক্ষতিগ্রস্ত ঘন্টা তলাটি সংস্কারের বিষয়ে আলোচনা হয়। তবে আশ্রম এলাকায় এই মুহুর্তে সর্বসাধারণের প্রবেশ নিষিদ্ধ।

    Indrajit Ruj

    Published by:Debalina Datta
    First published:

    লেটেস্ট খবর