corona virus btn
corona virus btn
Loading

শ্যুটিং করেছিলেন মহিষাদলে, তাই তাপস পালকে মনে করে চোখে জল গ্রামবাসীদের...

শ্যুটিং করেছিলেন মহিষাদলে, তাই তাপস পালকে মনে করে চোখে জল গ্রামবাসীদের...

রাজবাড়ির পাশাপাশি আরও একবার তাপস পাল মহিষাদলে এসেছিলেন শ্যুটিং এর কাজে

  • Share this:
#মহিষাদলে: বাংলা সিনেমার শ্যুটিং- এ এসেছেন তাপস পাল! এসেছেন মহিষাদল রাজবাড়ির অন্দরমহলে! খবরটা ছড়িয়ে পড়তে খুব বেশি সময় লাগেনি! আর খবর জানাজানি হতে ভিড় জমতেও বেশিক্ষন লাগেনি। উৎসাহী মানুষজনের ভিড় জমতে শুরু করেছিলো মহিষাদল রাজবাড়ির বাইরে।
আজ থেকে সাত বছর আগের এক অক্টোবরে বাংলা সিনেমা খোকা ৪২০ এর শ্যুটিং দেখতে মহিষাদল রাজবাড়ির আনাচে কানাচে উঁকিঝুঁকি মারতে দেখা যায় আট থেকে আশি, সব বয়সের মানুষজনকেই। সহকর্মী অভিনেতাদের সঙ্গে মহিষাদলে এসে টানা ৬ দিন ধরে শ্যুটিং করেছিলেন তাপস পাল। মঙ্গলবার সেই তাপস পালের মৃত্যুর খবরে মন ভালো নেই মহিষাদলের মানুষজনের। শ্যুটিং এ দেখা তাপস পালের কথাই আজ খুব বেশি করে চর্চা চলছে রাজবাড়ির ভেতর ও বাইরে।
মহিষাদল রাজবাড়ির বর্তমান বংশধর সৌর্য্যপ্রসাদ গর্গের কথায়, "তাপস পালের সঙ্গে আমার মায়ের পরিচিতি দীর্ঘদিন আগের। সেই পরিচিতির কারনেই শ্যুটিং এ এসে তাপস পাল আমার পরিবারের একজন হয়েই কাটিয়েছিলেন। আজ তাঁর মৃত্যু সংবাদ পেয়ে আমাদের পরিবারের সকলেরই খুব মন খারাপ।"
মন খারাপ সৌর্যপ্রসাদের মা, রাজপরিবারের বর্তমান রানীমা ইন্দ্রানীদেবীর। তিনি বলেন, এতো তাড়াতাড়ি চলে গেলো কেন? শ্যুটিং এর সময় কাছ থেকে দেখার অভিজ্ঞতা শোনাতে গিয়ে এদিন মহিষাদলের স্থানীয় বাসিন্দা অনুপম ভৌমিক, সন্তোষ গোস্বামী, মিঠুন দাস, সুজিত সিংহরা প্রয়াত অভিনেতার প্রতি শোক প্রকাশ করেছেন।
 রাজবাড়ির পাশাপাশি আরও একবার তাপস পাল মহিষাদলে এসেছিলেন শ্যুটিং এর কাজে। এসেছিলেন মহিষাদলের নদী তীরবর্তী গ্রাম হরিখালিতে। বাংলা ছবি প্রাণ সজনীর শ্যুটিং করতে অঞ্জু ঘোষ এবং ইন্দ্রাণী হালদারদের সঙ্গে হরিখালির নদী তীরে এসেছিলেন তাপস পাল। কাছ থেকে দেখা অভিনেতা তাপস পালের আজকের মৃত্যুর খবরে শোক প্রকাশ করেছেন হরিখালির গ্রামের মানুষজনও। 
হরিখালির স্থানীয় হাই স্কুলের টিচার ইন চার্জ, শিক্ষক সাহিত্যিক সৌরভ ভুঁইয়া বলেন, স্কুলে বসেই জানতে পেরেছিলাম হরিখালির নদী তীরে শ্যুটিং করছেন অভিনেতা তাপস পাল। যা জানার পর স্থানীয় মানুষজন একরকম ছোটাছুটি শুরু করেছিলেন। বাংলা সিনেমার নায়ককে দেখার জন্য গ্রামের মানুষ ভিড় জমিয়েছিলেন। কাতারে কাতারে মানুষ। ভিড় সামলাতে সেসময় পুলিশের হিমশিম অবস্থা হয়েছিলো। আজকে মৃত্যু সংবাদ পাওয়ার পর থেকে সেসব কথা চোখের সামনে ভাসছে। 
First published: February 18, 2020, 7:37 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर