পঞ্চায়েত হিংসার জেরে পুরুলিয়ায় বোর্ড গঠন প্রক্রিয়া স্থগিত

১৪টি ব্লকে ও ৩৩টি গ্রাম পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন হচ্ছে না

১৪টি ব্লকে ও ৩৩টি গ্রাম পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন হচ্ছে না

  • Share this:

    #পুরুলিয়া: সোমবারের গোলমালের জেরে পুরুলিয়ায় বেশ কয়েকটি পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠন আপাতত স্থগিত রাখল প্রশাসন। গতকাল জয়পুরে বোর্ড গঠন ঘিরে সংঘর্ষে পুলিশের গুলিতে দুই দলীয় কর্মীর মৃত্যুর অভিযোগ তুলেছে বিজেপি। রঘুনাথপুরে বোর্ড গঠনেও তুমুল বোমাবাজি হয় সোমবার। তার জেরেই পুরুলিয়ার ১৪টি ব্লকের ৩৩টি গ্রাম পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠন আপাতত স্থগিত রাখল জেলা প্রশাসন।

    থমথমে গ্রাম। জায়গায় জায়গায় পুলিশ পিকেট। চলছে টহলদারি। সোমবার পুরুলিয়ার জয়পুরের এই ঘাঘরা গ্রামই অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠেছিল।

    আরও পড়ুন  মোবাইলে দ্রুত টাইপ করতে পারেন? তবে রাজ্য সরকারের এই চাকরিতে আজই করুন আবেদন

    মুড়ি-মুড়কির মতো বোমা। মুর্হুর্মুহু গুলি। পুলিশের সঙ্গে বিজেপি কর্মী, সমর্থকদের খণ্ডযুদ্ধ। ১৪৪ ধারা জারি থাকলেও পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠনের আগেই রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে ঘাঘরা গ্রাম। গেরুয়া শিবিরের দাবি, পুলিশের গুলিতেই মারা যান তাঁদের কর্মী নিরঞ্জন গোপ ও দামোদর মণ্ডল। গুলিবিদ্ধ হন আরও একজন। গণ্ডগোল থামাতে গিয়ে এক পুলিশকর্মী ও এক ইএফআর জওয়ানও আহত হন। একই ছবি রঘুনাথপুরের চোরপাহাড়ি ও খাজুরাতেও।

    আরও পড়ুন

    ‘হাঁস জলে সাঁতার কাটলেই বেড়ে যায় মাছেদের অক্সিজেন’, চাঞ্চল্যকর মন্তব্য বিপ্লব দেবের

    এই পরিস্থিতিতে আইন শৃঙ্খলার কথা মাথায় রেখে আপাতত ১৪টি ব্লকের ৩৩টি গ্রাম পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠন স্থগিত রাখল পুরুলিয়া জেলা প্রশাসন। যদিও বেশ কয়েকটি পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন হয়েছে মঙ্গলবার।

    থমথমে গ্রামে এদিন সকালে শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় নিহত দুই বিজেপি কর্মীর। ঘটনাস্থল থেকে নমুনা সংগ্রহ করেন পুলিশ আধিকারিকরা। নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে গোটা এলাকা। এমনকী জেলাশাসকের কার্যালয়ের বাইরে কড়া পুলিশি নিরাপত্তা।

    First published: