• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • ইঞ্জিনিয়ারিং জয়েন্টে প্রথম হওয়া সৌরদীপ বড় হয়ে বিজ্ঞানী হওয়ার স্বপ্ন দেখে

ইঞ্জিনিয়ারিং জয়েন্টে প্রথম হওয়া সৌরদীপ বড় হয়ে বিজ্ঞানী হওয়ার স্বপ্ন দেখে

ভবিষ্যতে বিজ্ঞানী হওয়ার স্বপ্ন রয়েছে তাঁর।

ভবিষ্যতে বিজ্ঞানী হওয়ার স্বপ্ন রয়েছে তাঁর।

ভবিষ্যতে বিজ্ঞানী হওয়ার স্বপ্ন রয়েছে তাঁর।

  • Share this:

#রায়গঞ্জ: রাজ্য ইঞ্জিনিয়ারিং জয়েন্টের ফলাফলে প্রথম স্থান পেল উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ শহরের ছাত্র সৌরদীপ দাস। রায়গঞ্জ শহরের অশোকপল্লীর বাসিন্দা সৌরদীপ ঝাড়খন্ডের দেওঘর রামকৃষ্ণ মিশন থেকে উচ্চমাধ্যমিকে ৯৭.৮% শতাংশ নম্বর পেয়েছিল। রায়গঞ্জ শহরের সারদা বিদ্যামন্দির থেকে মাধ্যমিকে ৯৭ শতাংশ নম্বর পেয়ে পাশ করেছিল সৌরদীপ দাস। ইচ্ছে ভবিষ্যতে গবেষ‌ণা করে দেশের জন্য কিছু করার। তাঁর এই অভূতপূর্ব সাফল্যে খুশী তাঁর পরিবার। খবর শুনেই সৌরদীপকে সম্বর্ধনা দিতে তাঁর বাড়িতে ছুটে যান রায়গঞ্জ পুরসভার চেয়ারম্যান সন্দীপ বিশ্বাস। তিনি বলেন সৌরদীপের এই সাফল্য রায়গঞ্জ তথা উত্তর দিনাজপুর জেলাকে গর্বিত করেছে। রায়গঞ্জ পুরসভার পরিবার তাঁর পাশে আছে। উত্তর দিনাজপুর জেলা শস্য সুরক্ষা দপ্তরের সহ অধিকর্তা শঙ্কর চন্দ্র দাস ও মা গৃহবধূ ফুলটুসি দাসের কৃতী সন্তান সৌরদীপের এই অভাবনীয় সাফল্যে খুশী রায়গঞ্জের বাসিন্দারা।

ছোটবেলা থেকেই পড়াশুনায় মেধাবী এই ছাত্র সৌরদীপ মাধ্যমিকের পর ঝাড়খন্ডের রামকৃষ্ণ মিশন স্কুলে উচ্চমাধ্যমিকে ভর্তি হন। উচ্চমাধ্যমিকে ৯৭.৮% নম্বর পান তিনি। রাজ্য ইঞ্জিনিয়ারিং জয়েন্ট পরীক্ষায় বসেন তিনি। শুক্রবার জয়েন্টের রেজাল্টে তিনি রাজ্যে প্রথম স্থান অধিকার করেন। পড়াশোনা ছাড়া, ছবি আঁকা, তাঁর অন্যতম শখ। এছাড়াও ব্যাডমিন্টন খেলতে ভালোবাসেন সৌরদীপ। ভবিষ্যতে বিজ্ঞানী হওয়ার স্বপ্ন রয়েছে তাঁর। সৌরদীপকে অভিনন্দন জানাতে অশোকপল্লীর বাড়িতে হাজির হন রায়গঞ্জ পৌরসভার পৌরপিতা সন্দীপ বিশ্বাস। বিধায়ক মোহিত সেনগুপ্ত। বিধায়ক জানিয়েছেন রায়গঞ্জের গর্ব সৌরদীপ। আজ তাঁকে অভিনন্দন জানিয়ে গেলাম। আগামীতে জেলার সমস্ত কৃতি ছাত্রছাত্রীদের সর্ম্বধনা দেবে কংগ্রেস।

Uttam Paul

Published by:Uddalak Bhattacharya
First published: