হোম /খবর /দক্ষিণবঙ্গ /
মমতার নির্দেশের পর তাড়াহুড়োয় বিপত্তি, শীতবস্ত্র নিয়ে নয়ানজুলিতে ম্যাটাডোর

Mamata Banerjee: মমতার নির্দেশের পর তাড়াহুড়োয় বিপত্তি, শীতবস্ত্র নিয়ে নয়ানজুলিতে পড়ল ম্যাটাডোর

হিঙ্গলগঞ্জে দুর্ঘটনার কবলে ম্যাটাডোর৷

হিঙ্গলগঞ্জে দুর্ঘটনার কবলে ম্যাটাডোর৷

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পর এক রকম মরিয়া হয়ে প্রশাসনিক কর্তারা শীতবস্ত্র নিয়ে আসার জন্য দু'টি ম্যাটাডোরে তোলেন৷

  • Share this:

#জিয়াউল আলম, হিঙ্গলগঞ্জ: শীতবস্ত্র কেন নেই? মঞ্চে উঠেই সেই খোঁজ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তড়িঘড়ি ব্লক অফিস থেকে মুখ্যমন্ত্রীর অনুষ্ঠানস্থলে সেই শীতবস্ত্র নিয়ে আসতে গিয়েই ঘটে গেল আরও বড় বিপত্তি৷ যে ম্যাটাডোরে করে শীতবস্ত্র মুখ্যমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে নিয়ে আসা হচ্ছিল, নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সেটি গিয়ে পড়ল নয়ানজুলিতে৷ যদিও বরাতজোরে বড় কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি৷

এ দিন সুন্দরবনের হিঙ্গলগঞ্জের সামশেরনগরে সরকারি অনুষ্ঠানে যোগ দেন মুখ্যমন্ত্রী৷ সেই অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকেই কম্বল এবং শীত বস্ত্র সাধারণ মানুষের হাতে তুলে দেওয়ার কথা ছিল তাঁর৷

আরও পড়ুন: 'সরকার একটা দোষ করলে গালাগালি খাই আমি', হিঙ্গলগঞ্জের সভায় আক্ষেপ মমতার

কিন্তু অনুষ্ঠান মঞ্চে উঠে মুখ্যমন্ত্রী জানতে পারেন, সমস্ত শীত পোশাক এবং কম্বল অনুষ্ঠান স্থলে নিয়ে আসা হয়নি৷ তা রয়েছে হিঙ্গলগঞ্জের বিডিও অফিসেই৷ একথা শুনেই ক্ষুব্ধ হন মুখ্যমন্ত্রী৷ বক্তব্য থামিয়ে মঞ্চে বসে পড়েন তিনি৷ জানিয়ে দেন, যতক্ষণ না পর্যন্ত শীতবস্ত্র নিয়ে আসা হচ্ছে, ততক্ষণ মঞ্চেই বসে থাকবেন তিনি৷ গাফিলতির জন্য জেলাশাসকের উপরেও অসন্তোষ প্রকাশ করেন মমতা৷

মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষোভ প্রকাশের পরই ব্যস্ত হয়ে ওঠেন সরকারি আধিকারিকরা৷ তড়িঘড়ি বিডিও অফিস থেকে শীতবস্ত্র এবং কম্বল আনার ব্যবস্থা করা হয়৷ কিন্তু যেখানে মুখ্যমন্ত্রীর সভা হচ্ছিল, সেই সামশেরনগর থেকে হিঙ্গলগঞ্জের সভাস্থলের দূরত্ব ৩৩ কিলোমিটার৷ ফলে খুব তাড়াতাড়ি হিঙ্গলগঞ্জ থেকে শীতবস্ত্র নিয়ে আসতে গেলেও ঘণ্টাখানেক সময় লাগত৷

আরও পড়ুন: শীতবস্ত্র নেই কেন, ক্ষুব্ধ মমতা! বক্তব্য থামিয়ে মঞ্চেই বসে রইলেন মুখ্যমন্ত্রী

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পর এক রকম মরিয়া হয়ে প্রশাসনিক কর্তারা শীতবস্ত্র নিয়ে আসার জন্য দু'টি ম্যাটাডোরে তোলেন৷ কিন্তু মাঝপথেই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি ম্যাটাডোর নয়ানজুলিতে গিয়ে পড়ে ৷ সামান্য আহত হন গাড়ির চালক এবং খালাসি৷ স্থানীয়দের দাবি, দ্রুত মুখ্যমন্ত্রীর সভাস্থলে জিনিস নিয়ে পৌঁছতে গিয়েই নিয়ন্ত্রণ হারান চালক৷

প্রশাসন সূত্রে খবর, বিতরণের জন্য পাঁত হাজার শীতবস্ত্র এবং পাঁচ হাজার কম্বল হিঙ্গলগঞ্জের বিডিও অফিসে এসেছিল৷ মুখ্যমন্ত্রীর সভায় বিতরণের জন্য তার মধ্যে অল্প কিছু সংখ্যক শীতবস্ত্র সভাস্থলে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল৷ সরকারি আধিকারিকরা ভেবেছিলেন, মুখ্যমন্ত্রীর সভাস্থল থেকে কয়েক হাজার শীতবস্ত্র এবং কম্বল বিতরণ করলে বিশৃঙ্খলা হতে পারে৷ তাই পরে বিতরণের জন্য সেগুলি বিডিও অফিসে রাখা হয়৷ যদিও এ কথা জানতে পেরেই ক্ষুব্ধ হন মুখ্যমন্ত্রী৷ তার উপর অল্প সংখ্যক যে শীতবস্ত্র নিয়ে যাওয়া হয়েছিল, সেগুলিও মঞ্চের সামনে আনা হয়নি৷ যা দেখে আরও ক্ষুব্ধ হন মুখ্যমন্ত্রী৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Mamata Banerjee, Sunderban