Home /News /south-bengal /
New Technology For Sleepy Drivers: গাড়ি চালাতে চালাতে চালকের চোখের পাতা পড়লে বাজবে 'বিপ' শব্দ, ভিডিও বার্তা চলে যাবে সার্ভারে

New Technology For Sleepy Drivers: গাড়ি চালাতে চালাতে চালকের চোখের পাতা পড়লে বাজবে 'বিপ' শব্দ, ভিডিও বার্তা চলে যাবে সার্ভারে

নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব চিত্র

New Technology For Sleepy Drivers: পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আগামি দিনে তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থার সঙ্গে কথা বলে ডিভাইসের সঙ্গে আরও একটি ফিচার সংযুক্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে

  • Share this:

#বর্ধমান: দেশ তথা রাজ্যের মধ্যে প্রথম পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে পুলিশের গাড়িতে পরীক্ষামূলকভাবে বসানো হয়েছে ড্রাইভার মনিটরিং ডিভাইস । গাড়ির ড্যাশ বোর্ডে ওপর বসানো এই ডিভাইস একদিকে যেমন ড্রাইভার ঘুমিয়ে পড়লে শব্দ করে ড্রাইভার ও সহযাত্রীদের সচেতন করবে ঠিক তেমনই সরাসরি ডিভাইসটি ভিডিও-সহ বার্তা পৌঁছাবে পুলিশের কন্ট্রোল রুমে। এর ফলে দুর্ঘটনা এড়ানো যেমন সম্ভব হবে, ঠিক তেমনি পরবর্তীতে দুর্ঘটনার তদন্তের ক্ষেত্রেও অনেক সুবিধা হবে বলে মনে করছে পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ।

কী ভাবে কাজ করবে এই ডিভাইস ?

গাড়ির ড্যাশ বোর্ডে চালকের দিকে মুখ করে বসানো হয়েছে একটি সেন্সর। যার পোশাকি নাম নোভাস অ্যাওয়ার ড্রাইভার স্ট্রেস মনিটারিং ডিভাইস। খালি চোখে দেখা না গেলেও ক্যামেরা সামনে নিয়ে গেলে পরিষ্কার ভাবে দেখা যাবে দুটো রেটিনার ছবি। যে রেটিনা চালকের রেটিনার উপর সর্বক্ষণ নজরদারি চালাচ্ছে। গাড়ির গতিবেগ ২০ কিমির বেশী হলেই কোনও কারনে চালকের চোখের পাতা পড়লেই গাড়ির মধ্যে থাকা ডিভাইস একদিকে যেমন বিপ সাউণ্ড দিয়ে চালক ও সহযাত্রীদের সর্তক করবে তেমনি ভিডিও বার্তা ও ছবি চলে যাবে পুলিশের কন্ট্রোল রুমে। জেলা পুলিশ সুপার কামনাশিস সেন জানান, "পরীক্ষামূলকভাবে আপাতত দুটি গাড়িতে এই ডিভাইস লাগানো হয়েছে। যার ফল অত্যন্ত কার্যকরী। আগামীদিনে পর্যায়ক্রমে তা অনান্য গাড়িগুলিতে লাগানো হবে।

আরও পড়ুন : অবিশ্বাস্য! পৃথিবী থেকে বুলেট ট্রেনে চড়ে সোজা চাঁদে? জেনে নিন কীভাবে

কী ভাবে এল চিন্তা ভাবনা?

আগে দুর্ঘটনায় অনেক পুলিশ কর্মীদের প্রান গিয়েছে। সেখান থেকেই অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কল্যান সিনহা রায়ের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে উঠে আসে প্রসঙ্গটি। তারপরই পুলিশ সুপারের উদ্যোগে গুগল ঘেঁটে এই ডিভাইসটির সন্ধান পায় পুলিশ।

আরও পড়ুন : মাত্র ১৫ মিনিটে কমবে Blood Sugar লেভেল! ডায়বেটিসে সুফল হাতেনাতে, জানুন কী বলছে গবেষণা

আগামি দিনের পরিকল্পনা ?

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আগামি দিনে তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থার সঙ্গে কথা বলে ডিভাইসের সঙ্গে আরও একটি ফিচার সংযুক্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে, চালক যদি মত্ত হয়ে চালকের আসনে বসেন গাড়ির স্টার্ট করতে যান, তা হলে গাড়ির স্টার্ট নেবে না। অপরাধীদের ধরতে প্রায়শই জেলা পুলিশকে দূরপাল্লার যাত্রা করতে হয়। এই সব যাত্রার ক্ষেত্রে সবসময়ই সময় একটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আর সময় ঠিক রাখতে গিয়ে ড্রাইভারকে দীর্ঘ সময় গাড়ি চালাতে হয়। তাই ক্লান্তি বা ঘুম আসা স্বাভাবিক। কিন্তু এর ফলে গাড়িটি যে কোনও মুহূর্তে দুর্ঘটনার সম্মুখীন হতে পারে। এর ফলে এক দিকে যেমন চালক, তেমনই সহযাত্রীদেরও প্রাণসংশয় হতে পারে। এমন অনেক দুর্ঘটনার নজিরও আছে। তবে এই ডিভাইস এই ধরনের দুর্ঘটনারোধে অনেকবেশী কার্যকরী হবে বলেই মনে করছে জেলা পুলিশ। পাশাপাশি পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে,সড়ক দুর্ঘটনার ক্ষেত্রে তদন্তে নেমে পুলিশ দেখেছে অনেকাংশে দুর্ঘটনা ঘটার ক্ষেত্রে চালকের ঘুম এসে যাওয়া এবং নেশাগ্রস্থ অবস্থায় গাড়ি চালানোর জন্য ঘটে। পুলিশের দাবি এই দুই ক্ষেত্রে দুর্ঘটনার পরিমান অনেকটাই কমবে পাশাপাশি কি কারনে দুর্ঘটনা ঘটেছে তার কারণও অনুসন্ধানের ক্ষেত্রে পুলিশই তদন্তে সাহায্য করবে। এই ডিভাইসটির পুরো নাম 'নোভাস্ অ্যাওয়ার ড্রাইভার ট্রেস মনিটরিং ডিভাইস।'

শরদিন্দু ঘোষ

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Local news

পরবর্তী খবর