হোম /খবর /দক্ষিণবঙ্গ /
কাল ছিলেন বিজেপির সভায়, আজ তৃণমূল নেতৃত্বের পাশে, বীরভূমের সমরকে ঘিরে রহস্য

কাল ছিলেন বিজেপির সভায়, আজ তৃণমূল নেতৃত্বের পাশে, বীরভূমের সমরকে ঘিরে রহস্য

অনুব্রতহীন বীরভূমে পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে নিজেদের সংগঠনকে শক্তিশালী করতে সর্বশক্তি দিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েছে বিজেপি ।

  • Share this:

#সিউড়ি: বীরভূমে গতকাল এক ব্যাক্তি ছিলেন বিজেপির সভাতে , আর আজ একই জায়গায় তৃনমুলের সভাতে ওই ব্যাক্তিকে দেখা গেল তৃনমুল নেতৃত্বের পাশে।

গতকাল বীরভূমের সিউড়ি - ২ নম্বর ব্লকের গোবরা গ্রামে সভা করেছিল বিজেপি। সেখানে স্থানীয় সমর মণ্ডল নামে এক বিজেপি সমর্থককে দেখা গিয়েছিল তৃনমুলের নামে বিজেপির জেলা সভাপতি ধ্রুব সাহা ও বিজেপি নেতৃত্বের কাছে হুমকির নালিশ করতে। সেখানেই আজ পাল্টা সভা করল তৃণমূল কংগ্রেস । আজ আবার সেই সভাতে তৃনমুল নেতৃত্বের পাশে বসে থাকতে দেখা গেল ওই স্থানীয় সমর মণ্ডলকেই , জানালেন, ‘আজ থেকে তৃনমুলই করব, আর বিজেপি নয়।’ আর তা নিয়েই শুরু হয়েছে চাপানউতর।  বিজেপির দাবি, তৃণমূল ভয় দেখিয়ে গ্রামের লোকজনকে তৃণমূলের সভায় যেতে বাধ্য করেছে । যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল ।

অনুব্রতহীন বীরভূমে পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে নিজেদের সংগঠনকে শক্তিশালী করতে সর্বশক্তি দিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েছে বিজেপি । আর তারপরই তৃণমূলও এক ইঞ্চি জমি বিজেপিকে ছাড়তে রাজি নয়। তাই বিজেপি যেখানে সভা করবে  তৃণমূল সেখানেই পাল্টা সভা করবে বলে জানিয়েছে তৃণমূল। গোবরা গ্রামের বাসিন্দা সমর মণ্ডল জানান , "আমাদের গ্রামের মধ্যে আমি বিজেপি। আগে আমি বিজেপি করতাম, কিন্তু এখন আমি বিজেপি করব না, বিজেপি ছেড়ে দিলাম । আজ থেকে আমি তৃণমূল করছি।"

আরও পড়ুন, ঝালদা পুরসভা নিয়ে রাজ্য সরকারের বড় ধাক্কা! প্রশাসক বসানোর সিদ্ধান্তের উপর অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ হাইকোর্টের

আরও পড়ুন, ২১০০০ পদে নিয়োগে দুর্নীতি! আদালতে জানালেন সিবিআই SIT প্রধান অশ্বিন শেনভি

সিউড়ি - ২ নম্বর তৃণমূল ব্লক সভাপতি নুরুল ইসলাম বলেন , "আমরা বিজেপির পাল্টা সভা করিনি । আমরা শ্রমিকদের কিছু বার্তা দেওয়ার জন্য এই সভা করি । কোনও মানুষকে ভয় দেখান হয়নি । এই কেন্দুয়া অঞ্চলে ছয় বা সাত জন যদি বিজেপির কোনও নেতার সঙ্গে মিটিং করে, তাতে তৃণমূলের কী এসে-যায় । তৃণমূল কংগ্রেসের দরজা সবার জন্য খোলা আছে, কোনও সমর মণ্ডল যদি ভাবে এখানে এসে সভা শুনবে, তা আমি বাধা দিতে যাব কেন? "

বীরভূম জেলা বিজেপির সভাপতি ধ্রুব সাহা বলেন , "কাল সমর মণ্ডল অভিযোগ জানাচ্ছিলেন, তাঁকে ভয় দেখানো হচ্ছে । তাই আজ তাঁর কথা সত্য প্রমাণিত হল। তৃণমূল ভয়ের বাতাবরণ তৈরি করে সেই ব্যক্তিকে আজকে সভায় যেতে বাধ্য করেছে। যারা এই ধরণের ঘটনা ঘটাচ্ছে তাদেরকে আমরা বলতে চাই, যাঁরা ভাবছে আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি করে বিজেপিকে সিউড়ি - ২-তে শেষ করবে, তাঁরা মূর্খের স্বর্গে বাস করছে । সময় আসছে, সমস্ত উত্তর মানুষ দেবে । আর যাঁরা এই আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি করছেন, তাঁদেরকেও আইনের আওতায় আসতে হবে।"

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Birbhum, TMC