Keshpur Murder: কেশপুরে তৃণমূল কর্মী কুপিয়ে খুন, রিপোর্ট তলব কমিশনের

Keshpur Murder: কেশপুরে তৃণমূল কর্মী কুপিয়ে খুন, রিপোর্ট তলব কমিশনের

কেশপুরে তৃণমূল কর্মী খুনের ঘটনায় রিপোর্ট চাইল নির্বাচন কমিশন। খুনের ঘটনার দায়ে গ্রেফতার করা হয়েছে ৭ জনকে।

কেশপুরে তৃণমূল কর্মী খুনের ঘটনায় রিপোর্ট চাইল নির্বাচন কমিশন। খুনের ঘটনার দায়ে গ্রেফতার করা হয়েছে ৭ জনকে।

  • Share this:

    #কেশপুর: আজ 'হাইভোল্টেজ' নন্দীগ্রাম (Nandigram)-সহ রাজ্যের চার জেলার ৩০ কেন্দ্রে ভোট। সকাল থেকে শুরু হয়ে গিয়েছে দ্বিতীয় দফার (West Bengal Assembly Election 2021 Phase 2) ভোটগ্রহণ পর্ব। ভোট চলছে কেশপুরেও। তবে ভোটের আগে রাতে আচমকাই রাজনৈতিক হিংসার ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশপুর (Keshpur)। দাদপুর গ্রামে তৃণমূল (TMC) কর্মীকে খুনের (Murder) অভিযোগ ওঠে বিজেপির (BJP) বিরুদ্ধে। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। এ দিন কেশপুরের এই ঘটনায় রিপোর্ট তলব করেছে নির্বাচন কমিশন (Election Commission)। গ্রেফতার করা হয়েছে সাত জনকে।

    জানা গিয়েছে, বুধবার রাতে উত্তম দলুই নামে ওই তৃণমূল কর্মীর পেটে একাধিকবার ছুরির কোপ মারে দুষ্কৃতীরা। গুরুতর জখম হয়ে মাটিতেই লুটিয়ে পরেন তিনি। এরপরে তাঁকে প্রথমে কেশপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। তবে শেষরক্ষা হয়নি। ভোররাতে মৃত্যু হয় ওই তৃণমূল কর্মীর।

    এ দিকে, কেশপুরে তৃণমূল কর্মী খুনের ঘটনায় রিপোর্ট তলব করেছে নির্বাচন কমিশন। পাশাপাশি, খুনের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে ৭ জনকে। কেশপুরে ভোটের আগের রাতে খুনের ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারাও। মৃতের পরিবারের অভিযোগ, গতকাল রাতে বাড়ির সামনেই তৃণমূল কর্মীকে বেধড়ক মারধর করেন বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। ছুরি দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপানো হয় বলে অভিযোগ। রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে নেতিয়ে পড়লে এলাকা ছাড়ে দুষ্কৃতীরা। এরপরই তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে কেশপুরের একটি সরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে এবং পরে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই ভোর-রাতে মৃত্যু হয় তাঁর।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: