Nandigram: পাখির চোখ নন্দীগ্রাম, ইলেক্ট্রিসিটি-টেলিফোন যোগাযোগ ব্যবস্থায় বিশেষ নজর কমিশনের

Nandigram: পাখির চোখ নন্দীগ্রাম, ইলেক্ট্রিসিটি-টেলিফোন যোগাযোগ ব্যবস্থায় বিশেষ নজর কমিশনের

নন্দীগ্রামের সব বুথই স্পর্শকাতর। প্রতিটি বুথে আট'জন করে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান মোতায়েন থাকবে। ইলেক্ট্রিসিটি থেকে টেলিফোন যোগাযোগ ব্যাবস্থা সব দিকেই বিশেষ নজর দেওয়ার নির্দেশ।

নন্দীগ্রামের সব বুথই স্পর্শকাতর। প্রতিটি বুথে আট'জন করে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান মোতায়েন থাকবে। ইলেক্ট্রিসিটি থেকে টেলিফোন যোগাযোগ ব্যাবস্থা সব দিকেই বিশেষ নজর দেওয়ার নির্দেশ।

  • Share this:

    #কলকাতাঃ নন্দীগ্রামের প্রতিটি বুথই স্পর্শকাতর। মঙ্গলবার শেষ বেলার প্রচারের সময় বারে বারে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে নন্দীগ্রাম। এরপরই এলাকার পরিস্থিতি নিয়ে দফায় দফা বৈঠক করেন কমিশনের আধিকারিকরা। এরপরেই নন্দীগ্রামের সব বুথই স্পর্শকাতর হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে, নন্দীগ্রামের প্রতিটি বুথে আট'জন করে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান মোতায়েন থাকবে। পাশাপাশি, ইলেক্ট্রিসিটি থেকে টেলিফোন যোগাযোগ ব্যাবস্থা সব দিকেই বিশেষ নজর দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

    দ্বিতীয় দফা নির্বাচনে পাখির চোখ নন্দীগ্রাম। বিজেপির হেভিওয়েট প্রার্থী মেদিনীপুরের 'ভূমিপুত্র' শুভেন্দু অধিকারীর (Suvendu Adhikari) সঙ্গে 'তৃণমূল সুপ্রিমো' মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) সঙ্গে নন্দীগ্রামে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়ছেন জোটপ্রার্থী তথা বাম তরুণ ব্রিগেডের উজ্জ্বল মুখ মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায় (Minakshi Mukhopadhyay)।

    এ হেন 'হাইভোল্টেজ' কেন্দ্র স্বাভাবিকভাবেই কমিশনের কড়া নজরে। তার ওপরে ভোটের আগে বারে বারে উত্তপ্ত হয়ে উঠছে নন্দীগ্রাম (Nandigram)। সোমবার আদশতলায় বিক্ষোভের মুখে পড়েন শুভেন্দু অধিকারী। তার ২৪ ঘণ্টা পেরোনোর আগে ফের মঙ্গলবার ভূতার মোড়ে আক্রান্ত হন মীনাক্ষী। ভোটের আগে শেষদিনের প্রচারে বিমান বসু ছিলেন মীনাক্ষীর সঙ্গে। সেই সময়েই হামলার মুখে পড়েন তাঁরা। বারে বারে এমন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটায় নন্দীগ্রামে বাহিনী বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন। সব বুথেই কেন্দ্রীয় বাহিনীর কড়া নজরদারির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বেশিরভাগ বুথেই আটজন করে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান মোতায়েন থাকবে।

    নির্বাচন কমিশন (Election Commission) জানিয়েছিল, দ্বিতীয় দফার (West Bengal Assembly Election 2021 phase 2) ভোটে বাঁকুড়া, পূর্ব এবং পশ্চিম মেদিনীপুর, দক্ষিণ ২৪ পরগণায় মোট ৬৫১ কোম্পানি বাহিনী মোতায়েন থাকবে। নন্দীগ্রামে থাকবে ২১ কোম্পানি। কিন্তু বারে বারে হিংসার ঘটনা ঘতায় নন্দীগ্রামে বাহিনী বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। জানা গিয়েছে, শুধুমাত্র নন্দীগ্রামেই ২২ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী (Central Force) থাকবে। জানা গিয়েছে, নন্দীগ্রামে মোট ৩৫৫টি বুথ। সেক্ষেত্রে ৩৫৫ বুথই স্পর্শকাতর। সেই সব বুথেই আট'জন করে জওয়ান মোতায়েন থাকবে।

    কমিশন সূত্রে খবর, দ্বিতীয় দফায় মোট ১০৬২০ বুথে ভোটগ্রহণ হবে। তার মধ্যে ৫০ শতাংশ বুথে ওয়েব কাস্টিং (Web Casting) হবে। তবে সেই সংখ্যাও বাড়তে পারে। তবে, নন্দীগ্রামের ক্ষেত্রে ৭৫ শতাংশ বুথে ওয়েব কাস্টিং করতে হবে। এ দিকে, কমিশনের নির্দেশ, সিঙ্গেল বুথে চারজন এবং যে কেন্দ্রে একাধিক বুথ সেই কেন্দ্রে আটজন জওয়ান মোতায়েন থাকবে। তবে এলাকা বিশেষে কয়েকটি সিঙ্গেল বুথেও আটজন করে জওয়ান মোতায়েন করা থাকবে।

    নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী নিরাপত্তারক্ষীদের নিয়ে বুথের ভিতরে ঢুকতে পারলেও, শুভেন্দু অধিকারী নিরাপত্তারক্ষীদের নিয়ে বুথের ভেতরে প্রবেশ করতে পারবেন না। কারণ, কমিশনের নিয়ম অনুজায়ী, যাঁরা জেড প্লাস (Z+) নিরাপত্তা পান, তাঁরা সিকিউরিটি নিয়ে বুথের ভিতরে প্রবেশ করতে পারেন। তবে সেক্ষেত্রে আগ্নেয়াস্ত্র বাইরে রাখা যায় না। সেই অনুযায়ী মমতা Z+ নিরাপত্তা পান। কিন্তু শুভেন্দু অধিকারী জেড (Z) ক্যাটাগরি সিকিউরিটি পান।

    SOMRAJ BANDYOPADHYAY

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: