West Bengal Election 2021: আজব এক কারণ, কাকদ্বীপে বুথ থেকে বের করা হল বিজেপি এজেন্টকে!

West Bengal Election 2021: আজব এক কারণ, কাকদ্বীপে বুথ থেকে বের করা হল বিজেপি এজেন্টকে!

বাংলার ভোট

ভোটপর্ব শুরু হওয়ার পরই কাকদ্বীপের একটি বুথে দীপঙ্কর জানা নামে এক বিজেপি এজেন্ট বসতে গেলেই তাঁকে বাধা দেয় তৃণমূল।

  • Share this:

    #কলকাতা: ভোট প্রচারে বেরিয়ে শুভেন্দু অধিকারী বারবার অভিযোগ করেছিলেন, 'তৃণমূল ফের ক্ষমতায় এলে গেরুয়া বসন পরতে পারবেন না'। বাংলায় দ্বিতীয় দফার ভোটে সেই গেরুয়ার গেরোতেই এক বিজেপি এজেন্টকে বের করে দেওয়া হল বুথ থেকে। কী কারণ? জানা গিয়েছে, এদিন ভোটপর্ব শুরু হওয়ার পরই কাকদ্বীপের একটি বুথে দীপঙ্কর জানা নামে এক বিজেপি এজেন্ট বসতে গেলেই তাঁকে বাধা দেয় তৃণমূল। কারণ ওই ব্যক্তি সম্পূর্ণ গেরুয়া জামা পরে বুথে এজেন্ট হিসেবে বসতে যান। সেই জামা দিয়েই ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ তোলে তৃণমূল। অভিযোগ করা হয় প্রিসাইডিং অফিসারের কাছে।

    এরপর প্রিসাইডিং অফিসারও ওই ব্যক্তিকে অন্য পোশাক পরে আসতে বলেন। তাতে ক্ষুব্ধ হন ওই ব্যক্তি। তাঁর কথায়, 'আমার তো এটাই পোশাক। আমি তো এই পোশাকই পরে থাকি। তবে, আমাকে যখন প্রিসাইডিং অফিসার বারণ করেছেন, তখন আমি অন্য পোশাক পরেই বসব।' তবে, নির্বাচনী বিধিতে কোথাও পোশাকের সুনির্দিষ্ট রং নিয়ে কিছুর উল্লেখ নেই। স্বাভাবিক কারণেই গেরুয়া পোশাকের জন্য এজেন্টকে বসতে না দেওয়ায় তৃণমূলকে কটাক্ষ করেছে বিজেপি।

    অপরদিকে, ওই কাকদ্বীপেরই ২৯ ও ৩০ নম্বর বুথে বেলা দশটার পর এসে বসেন। ওই এজেন্টের অভিযোগ, রাতভোর তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা এলাকায় সন্ত্রাস চালানোয় আতঙ্কে আসতে পারেননি তিনি। তবে, শেষ পর্যন্ত কেন্দ্রীয় বাহিনীর আশ্বাসে কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপস্থিতিতে বিজেপির এজেন্ট বসে দুই বুথে।

    অপরদিকে, মহিষাদলের সুখলালপুরে তৃণমূল কর্মী ও ভোটারদের প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। ভাঙচুর করা হয়েছে গাড়ি। ঘটনাস্থলে গিয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। আবার, খড়গপুর সদর কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী হিরণের বিরুদ্ধে দলীয় প্রতীক নিয়ে বুথের ১০০ মিটারের মধ্যে ঢোকার অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল। কেন্দ্রীয় বাহিনীর সামনে কী করে এই ঘটনা ঘটছে, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

    Published by:Suman Biswas
    First published:
    0

    লেটেস্ট খবর