হোম /খবর /দক্ষিণবঙ্গ /
অ্যাপেন্ডিক্স-এর অপারেশন করতে গিয়ে ভয়ঙ্কর কাণ্ড, এ কী ঘটনা ঘটাল নার্সিং হোম!

অ্যাপেন্ডিক্স-এর অপারেশন করতে গিয়ে ভয়ঙ্কর কাণ্ড, এ কী ঘটনা ঘটাল নার্সিং হোম!

Bardhaman: অ্যাপেন্ডিক্স অপারেশন করতে গিয়েছিলেন। যা ঘটে গেল, এ জীবনে আর ক্ষতি পূরণ হবে না।

  • Share this:

বর্ধমান: নার্সিংহোম ও ডাক্তারের গাফিলতিতে রোগী মৃত্যুর অভিযোগ উঠল বর্ধমানে। বর্ধমানের খোসবাগানের নারকেল বাগান এলাকার একটি বেসরকারি নার্সিংহোমের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ উঠেছে।

গাফিলতিতে রোগী মৃত্যুর অভিযোগ তুলে ঘটনার যথাযথ তদন্ত চেয়ে বর্ধমান থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে রোগীর পরিবার। ঘটনাকে কেন্দ্র করে শহরে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

পুলিশ ও স্হানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতার নাম নাসমিন খাতুন। তাঁর বয়স আঠারো বছর। বাড়ি খণ্ডঘোষ থানার উজ্জ্বল পুকুর পাড় এলাকায়।

আরও পড়ুন- বরাদ্দ হল ৬০ কোটি, বর্ধমান মেডিকেলে দ্রুত চাইল্ড হাব গড়ার উদ্যোগ

মৃতের পরিবার জানিয়েছে, কয়েক দিন ধরে পেটে যন্ত্রণা হচ্ছিল। এর পর গত শুক্রবার বর্ধমানের ডাক্তার কৌশিক দাসকে দেখানো হয়। তিনি বিভিন্ন পরীক্ষা করাতে দেন।

রিপোর্ট হাতে এলে ওই চিকিৎসক বলেন, রোগীর পেটের অ্যাপেনডিক্স বড় হয়েছে। তা অপারেশন করতে হবে। এর পর তিনি  নিজের নার্সিংহোমে রোগীকে ভর্তি করতে বলেন। শনিবার তাঁর অপারেশন হয়।

অভিযোগ, তার পর থেকেই রোগীর অবস্থার অবনতি হতে থাকে।  তাঁকে আইসিইউ-তে ভর্তি করা হয়।  অবস্থার আরও অবনতি হলে তাঁকে বর্ধমানের আরও একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে স্থানান্তরিত করে নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ।

এরপরই ওই রোগী মারা যায়। পরিবারের লোকজন এই নিয়ে কথা বলতে গেলে নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ ব্যাপারটা বসে মিটিয়ে নিতে বলেন। এখানেই রোগী পরিবারের অভিযোগ, অ্যাপেনডিক্সের মতো সাধারণ অপারেশন করতে গিয়ে কী করে রোগী মারা যায়!

আরও পড়ুন- পরিষেবা দেওয়ার নাম করে লোক ঠকানোর কারবার, লক্ষ লক্ষ টাকা লুঠ, এবার পুলিশের হাতে

রোগীকে স্থানান্তরিত করার সময় ডাক্তার কৌশিক দাস নিজে উপস্থিত ছিলেন না বলেও অভিযোগ। ডাক্তারের সাথে কথা বলতে গেলে তিনি বলেন, আমি বাইরে আছি।

পরিবারের লোকজন বর্ধমান সদর অভিযোগ দায়ের করেছেন। মৃতদেহের ময়না তদন্ত করে ওই ডাক্তার ও নার্সিংহোমের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

রোগীর আত্মীয়দের অভিযোগ, বারবার চিকিৎসার গাফিলতিতে রোগী মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। অনেক ক্ষেত্রে মৃতের আত্মীয় পরিজনদের টাকা পয়সা দিয়ে বিষয়টি চাপা দেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ। এক্ষেত্রেও সেই চেষ্টা করা হয়েছে।

Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: Bardhaman