'সরকারি নিয়ম, প্রোটোকল মেনে চলুন', রাজ্যপাল ধনখড়কে কড়া চিঠি মমতার

বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় বাহিনীর কপ্টারে চেপে কোচবিহার সফরে যাবেন রাজ্যপাল। তার আগে এই পত্রবোমা।

বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় বাহিনীর কপ্টারে চেপে কোচবিহার সফরে যাবেন রাজ্যপাল। তার আগে এই পত্রবোমা।

  • Share this:

 #কলকাতা: ফের রাজ্যপাল বনাম রাজ্য সরকার সংঘাত। এবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের কোচবিহার সফরের বিরোধিতায় সরব হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যেপাধ্যায়। রাজ্যপালক রীতিমতো কড়া ভাষায় চিঠিও লিখেছেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতা সেই চিঠিতে দাবি করেছেন, রাজ্যপাল ধনখড় সরকারি নীতি ও প্রোটোকল মেনে চলছেন না। ভোট পরবর্তী হিংসার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে শীতলকুচিসহ কোচবিহারের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শনে যাবেন রাজ্যপাল। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় বাহিনীর কপ্টারে চেপে কোচবিহার সফরে যাবেন তিনি। এই সফরের কথা মঙ্গলবারই জানিয়েছিলেন রাজ্যপাল। তবে সেটা তিনি জানিয়েছিলেন টুইট করে। আর এখানেই মমতার তীব্র আপত্তি।

কেন সোশ্যাল মিডিয়ায় সফরের কথা জানিয়ে একতরফা সিদ্ধান্ত নিলেন রাজ্যপাল! নিয়ম অনুযায়ী, রাজ্য সরকার ও সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসনকে সফরের ব্যাপারে জানানো উচিত ছিল রাজ্যপালের। কিন্তু তিনি সেটা করেননি। বরং তিনি যে ভোট পরবর্তী হিংসার পরিস্থিতিত খতিয়ে দেখতে একটি নির্দিষ্ট জেলা সফরে যাওয়ার পরিকল্পনা করে ফেলেছেন, তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোষণা করে প্রোটোকল ভেঙেছেন রাজ্যপাল ধনখড়। মমতা এদিন চিঠিতে এমনই দাবি করেছেন। মমতা আরও দাবি করেছেন, রাজ্যপাল জেলা সফরের সিদ্ধান্ত নিলে রাজ্য সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করে তা জানানোর নিয়ম রাজ্যপালের সচিবের। কিন্তু এক্ষেত্রে রাজ্য সরকারকে সম্পূর্ণ অন্ধকারে রেখে ১৩ মে কোচবিহার সফরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন রাজ্যপাল। যা সরকারী নিয়ম-নীতির বিরোধী।

রাজ্যপালের একতরফা সিদ্ধান্তে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতরের ১৯৯০ সালের ম্যানুয়্যাল অফ প্রোটোকল অ্যান্ড সেরিমনিয়্যালস-এর প্রোটোকল ভেঙেছে। এদিন চিঠিতে সেই কথাও উল্লেখ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। উল্লেখ্য, ভোট পরবর্তী সময়ে রাজ্যে হিংসার পরিস্থিতির খোঁজ নিতে রাজ্যের মুখ্য সচিব, পুলিশের ডিজিকেও তলব করেছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। রাজ্যপালের অভিযোগ ছিল, ভোট পরবর্তী হিংসার ব্যাপারে রাজ্যকে বারবার জানিয়েও তিনি কোনও সাড়া পাননি। তাই সশরীরে হিংস কবলিত এলাকাগুলির পরিদর্শন করতে চান তিনি। তাঁর সফরের কয়েক ঘণ্টা আগে মমতার এই পত্রবোমা! রাজ্যপাল বনাম রাজ্যের সংঘাত আরও একবার চরমে পৌঁছতে পারে।

SOMRAJ BANDOPADHYAY 

Published by:Suman Majumder
First published: