• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • Mamata Banerjee: এবার ফুটবল নিয়েই সভায়, শিশির-শুভেন্দুকে একযোগে গদ্দার বলে আক্রমণ

Mamata Banerjee: এবার ফুটবল নিয়েই সভায়, শিশির-শুভেন্দুকে একযোগে গদ্দার বলে আক্রমণ

মঞ্চে ফুটবল হাতেই মমতার খেলা! ছবি ফেসবুক ভিডিও থেকে নেওয়া।

মঞ্চে ফুটবল হাতেই মমতার খেলা! ছবি ফেসবুক ভিডিও থেকে নেওয়া।

এদিনও শুভেন্দু শিশিরদের গদ্দার-মীরজাফর বলেন মমতা।

  • Share this:

    #নায়ায়ণগড়: অদূরেই ভোট চলছে। অগ্নিপরীক্ষাই বলা চলে। পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড়ের সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কিন্তু অনেকটাই রিল্যাক্সড দেখাল। ভোট চলাকালীন যেসব অভিযোগ আসছে চারদিক থেকে সেসব নিয়ে কোনও মন্তব্যই করলেন না। এতদিন বলে এসেছেন, খেলা হবে। আজ  মঞ্চ থেকে খেললেনও। দেখা গেল এক মহিলাকে ফুটবল ছুঁড়ে দিলেন মমতা। তিনি ক্যাচ লুফতেই  মমতার স্বতপ্রণোদিত চিৎকার, "বিজেপি বোল্ড আউট। খেলতে আমিও ভালো পারি। এক পায়ে এমন শট দেবো, কান মুলে বের করে দেবো রাজনীতির মাঠের বাইরে।"

    এ দিন নারায়ণগড়ে মমতা যখন সভা করছেন তখন পূর্ব মেদিনীপুরে তখন জোর কদমে ভোটগ্রহণ চলছে। একের পর এক ঝামেলার কথা কানে আসছে। মমতা বন্দোপাধ্যায় অবশ্য তাই নিয়ে খুব বেশি কথা বললেন না। শুধু বললেন, "বেশ কয়েকটা জায়গায় ইভিএম-এ তৃণমূলে ভোট দিলে বিজেপিতে ভোট যাচ্ছে, সেটা বন্ধ করে দিয়েছি।" সভায় নাম না করে তিনি আক্রমণ করে গেলেন শুভেন্দু অধিকারী-শিশির অধিকারীদের। এদিনও শুভেন্দু শিশিরদের গদ্দার-মীরজাফর বলেন মমতা।

    মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, "দুই গদ্দার ছিল। বাপ আর ব্যাটা ।এখন বিজেপিতে গিয়ে জ্যাঠা হয়েছে। ওদের সম্পর্কের যত বলি ততো আমার ঘৃণা হয়। কেন বলুন তো ,আসলে লজ্জাটা আমার, আমি তো এত বাড়িয়েছি। আমি এত দিয়েছি, যা চেয়েছি তাই দিয়েছে।" পশ্চিম মেদিনীপুরের মানুষকে উদ্দেশ্য করে মমতার বার্তা, "ভাগ্যিস আপনারা ওই বাপ ব্যাটার সঙ্গে নেই। দিল্লিতে গিয়েই অফিসারদের ম্যানেজ করে।"

    পরিবারতন্ত্রের অভিযোগ তুলে মমতা  অধিকারীদের উদ্দেশ্যে বলেন, "একটা পরিবার হলদিয়া ডেভলপমেন্ট অথরিটি, দিঘা ডেভলপমেন্ট অথরিটি, কন্টাই ব্যাঙ্ক, কন্টাই মিউনিসিপালিটির চেয়ারম্যান, পরিবেশ মন্ত্রক, পরিবহণ মন্ত্রক কী দিইনি! আজ নির্বাচনের আগে আমার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করে পালিয়েছে। এখন অমিত শাহকে দিয়ে আমায় ভয় পাওয়ায়।"

    প্রসঙ্গত এদিন মমতা যখন সভা করছেন, সেই সময়েই সৌমেন্দু অধিকারীর গাড়িতে ভাঙচুর হয়। মমতা সৌমেন্দুর নাম না নিয়েও বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিযোগ, "কাল রাত বারোটার সময়ে তাঁর এক ব্যাটা টাকা দিচ্ছিল। হাতেনাতে ধরা পড়েছে। মা-বোনেরা বিজেপির বহিরাগত গুন্ডাদের মোকাবিলা করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে।"

    Published by:Arka Deb
    First published: