দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিপুল তৈলভাণ্ডারের সন্ধান আশোকনগরে, কিন্তু উদ্বোধনের আগেই জমিজটের সমস্যা

বিপুল তৈলভাণ্ডারের সন্ধান আশোকনগরে, কিন্তু উদ্বোধনের আগেই জমিজটের সমস্যা

এলাকার মানুষ স্বপ্ন দেখছে কর্ম সংস্থান ও বানিজ্যের। তবে জমিহারা মানুষের দাবি, তাঁদের কাজ ও জমির ন্যায্যমূল্যের ব্যবস্থা করুক সরকার।

  • Share this:

RAJARSHI ROY

#অশোকনগর: দেশের খনির মানচিত্রে এবার নাম উঠবে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার। তেল ও গ্যাসের খনি পাওয়া গিয়েছে অশোকনগরে। দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে ওএনজিসি অনুসন্ধান চালিয়ে এই খনির সন্ধান পেয়েছে। ওএনজিসি’র এই সাফল্যের সোনালি ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখছে অশোকনগর। এই প্রকল্পের জন্য ইতিমধ্যেই কয়েক একর কৃষি জমি নেওয়া হয়েছে। প্রকল্পের জন্য আরও কয়েক একর জমির প্রয়োজন। গঙ্গা নদীর অববাহিকায় ও সুন্দর বনের সংলগ্ন জায়গায় বিপুল পরিমান প্রাকৃতিক গ্যাস ও তেলের সন্ধান পাওয়ার পর জোর কদমে কাজ চলছে প্রকল্প এলাকায়। এলাকার মানুষ স্বপ্ন দেখছে কর্ম সংস্থান ও বানিজ্যের। তবে জমিহারা মানুষের দাবি, তাঁদের কাজ ও জমির ন্যায্যমূল্যের ব্যবস্থা করুক সরকার। জমিহারাদের পক্ষ নিয়ে সোচ্চার হয়েছেন অশোকনগর কল্যানগড় পুরসভার প্রশাসক ও প্রাক্তন চেয়ারম্যান সমীর দত্ত।

পেশায় আইনজীবী সমীর দত্তের দাবি, ওএনজিসি’র এই প্রকল্প সফল হোক তা তিনিও চান। ৫০ বছরের বেশী সময় ধরে যাঁরা চাষ করলেন, তাঁদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে ওএনজিসি’কে। তাঁর দাবি, অশোকনগর কল্যানগড় পুরসভার ২২ নং ওয়ার্ডে ওএনজিসি’র প্রকল্প এলাকা হল এডেড এরিয়া।আগে ঐ জায়গাটি ছিল পঞ্চায়েত এলাকা । সেই সময় থেকে ওই জমিতে যাঁরা চাষ করছেন, মানবিকতার খাতিরে তাঁদের পরিবারের এক জনকে কাজ দিক ওএনজিসি। আর দিক ন্যায্য ক্ষতিপূরন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জমি আন্দোলনের পর সাড়া দেশে নতুন জমি অধিগ্রহনের আইন এসেছে বলে জানান অশোকনগর কল্যানগড় পুরসভার প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য সমীর দত্ত। তিনি এ দিন জানান, ইতিমধ্যেই এই প্রকল্পে জমিহারারা বারাসাত আদালতে মামলা করেছে।করোনার কারনে সেই মামলার শুনানি হয়নি জানান তিনি। অন্যদিকে অশোকনগরের বিধায়ক ধীমান রায়ের দাবি, রাজ্য সরকার বললে ওএনজিসি প্রকল্পের জন্য জমির ব্যবস্থা করবে। আর বর্তমান প্রকল্প এলাকা খাস কৃষি জমিতে। অশোকনগরের স্বার্থে কৃষকরা সেই জমি ছেড়ে দেবেন বলে মনে করেন অশোকনগরের বিধায়ক। এই নভেম্বর মাসেই প্রকল্প উদ্বোধনের কথা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান। কিন্তু তার আগেই জমি নিয়ে দ্বিমত বিধায়ক ও প্রশাসকের।

Published by: Simli Raha
First published: November 21, 2020, 8:29 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर