Coal Scam-Gyanwant Singh : কয়লাপাচার কাণ্ডে এবার জ্ঞানবন্ত সিংকে তলব করল CBI

Coal Scam-Gyanwant Singh : কয়লাপাচার কাণ্ডে এবার জ্ঞানবন্ত সিংকে তলব করল CBI

IPS জ্ঞানবন্ত সিং-কে তলব Photo : File Photo

আগামী ৪ মে তাঁকে কলকাতার নিজাম প্যালেসে ডেকে পাঠানো হয়েছে ৷ সেখানেই জ্ঞানবন্তকে (Gyanwant Singh) জেরা করবেন সিবিআই গোয়েন্দারা ৷

  • Share this:

    #কলকাতা : কয়লাপাচার কাণ্ডে এবার তলব করা হল রাজ্যের নিরাপত্তা অধিকর্তা (ডিরেক্টর অফ সিকিউরিটি) জ্ঞানবন্ত সিংকে ৷ আগামী ৪ মে তাঁকে কলকাতার নিজাম প্যালেসে ডেকে পাঠানো হয়েছে ৷ সেখানেই জ্ঞানবন্তকে জেরা করবেন সিবিআই গোয়েন্দারা ৷ এ ব্যাপারে রাজ্য পুলিশের DG-কে চিঠি পাঠিয়েছে CBI। এর আগেও একাধিক IPS কর্তাকে তলব করেছিল CBI। তাই নতুন করে এই খবরে জোর জল্পনা তৈরি হয়েছে।

    সিবিআই সূত্রে খবর, রাজ্যে কয়লাপাচার কাণ্ডের তদন্তে নেমে একাধিক ব্যবসায়ীর সঙ্গে কথা বলেছেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা ৷ পাশাপাশি, বেশ কয়েকজনের গোপন জবানবন্দিও রেকর্ড করা হয়েছে ৷ সূত্রের খবর, এই গোপন জবানবন্দি থেকেই উঠে আসে জ্ঞানবন্ত সিংয়ের নাম৷

    রাজ্যে কয়লাপাচার কাণ্ডের তদন্তে নেমে একাধিক নথিপত্র বাজেয়াপ্ত করেছে সিবিআই। সেই সব তথ্য ও নথি বিশ্লেষণ করে গোয়েন্দাদের মনে হয়েছে, এই কয়লাপাচার চক্রে লিংকম্যানের কাজ করতেন জ্ঞানবন্ত৷ পাশাপাশি, তাঁর বিরুদ্ধে নিজের পদ ও ক্ষমতার অপপ্রয়োগের অভিযোগও রয়েছে৷

    সিবিআই সূত্রের খবর, কয়লা পাচারের টাকা অনুপ মাঝি ওরফে লালার হাত ঘুরে আসত জ্ঞানবন্ত সিংয়ের কাছে৷ পরে সেই টাকা কলকাতার বেশ কয়েকজন প্রভাবশালীর কাছে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করতেন এই আইপিএস অফিসার৷ এই প্রভাবশালীদের একাংশকে ইতিমধ্যেই চিহ্নিত করেছেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার তদন্তকারী আধিকারিকরা৷ কিন্তু, বাকিদের হদিশ এখনও মেলেনি ৷

    সিবিআইয়ের দাবি, যে প্রভাবশালীদের নাগাল সিবিআই এখনও পর্যন্ত পায়নি, তাঁদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রয়েছে জ্ঞানবন্তের৷ এই প্রভাবশালীদের নাম হাতে পেতেই জ্ঞানবন্তকে জেরা করতে চাইছেন সিবিআই গোয়েন্দারা৷ সেই কারণেই তাঁকে নিজাম প্য়ালেসে ডেকে পাঠানো হয়েছে বলে সূত্রের খবর৷

    অন্যদিকে রাজ্যের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ পুলিশ কর্তা, IPS জ্ঞানবন্ত সিং কে তলব করায় জোর জল্পনা শুরু হয়েছে রাজ্যজুড়ে। তবে শাসকদলের একটা বড় অংশের দাবি, বিষয়টি সম্পূর্ণ উদ্দেশ্য প্রণোদিত। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার পক্ষে অবশ্য প্রথম থেকেই দাবি করা হয়েছিল, কয়লা-কাণ্ডের শিকড় অনেক গভীরে। এই মামলায় ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে রাজ্য পুলিশের এক আধিকারিককে। বাঁকুড়া থানার IC অশোক মিশ্রকে গ্রেফতার করেএনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। তদন্তকারীদের অভিযোগ, কয়লা কাণ্ডে সরাসরি যুক্ত ছিলেন ওই পুলিশ আধিকারিক। তবে এখনও পর্যন্ত এই মামলার অন্যতম প্রধান অভিযুক্ত অনুপ মাঝি ওরফে লালার কোনও হদিশ পাওয়া যায়নি। তাঁর বিরুদ্ধে জারি হয়েছে লুক আউট নোটিশ।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published:

    লেটেস্ট খবর