corona virus btn
corona virus btn
Loading

বৌভাতের দিন সিভিক পুলিশ কর্মীর রিপোর্ট করোনা পজিটিভ, সেরে উঠতে কোভিড হাসপাতালেই হল বিয়ে

বৌভাতের দিন সিভিক পুলিশ কর্মীর রিপোর্ট করোনা পজিটিভ, সেরে উঠতে কোভিড হাসপাতালেই হল বিয়ে

দাম্পত্য জীবনের প্রথম দিনই বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল করোনা ৷ আবার সেই দাম্পত্য জীবনকে এক সূত্রে বেঁধে দিল কোভিড হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্সরা ৷

  • Share this:

#হাওড়া: দাম্পত্য জীবনের প্রথম দিনই বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল করোনা ৷ আবার সেই দাম্পত্য জীবনকে এক সূত্রে বেঁধে দিল কোভিড হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্সরা | খুশি নব দম্পতিও | মঙ্গলবার দুপুরে হাওড়ার ফুলেশ্বরের কোভিড হাসপাতাল হয়ে উঠেছিল বিয়ে বাড়ির আসর ৷ সাউন্ড বক্স না থাকলেও ছিল চিকিৎসক নার্স ও হাসপাতাল কর্মীদের গলায় গানের তাল ৷ পাত্র করোনা আক্রান্ত হাওড়া সিটি পুলিশের সিভিক পুলিশ কর্মী সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায় | পাত্রী কালনার পিয়ালি |

ঘটনার সূত্রপাত জুন মাসের ৩ তারিখ | পুলিশ কর্মীদের নিয়ম মতো করোনা পরীক্ষা হয়েছিল ২৯ মে-তে | সেদিন অন্য পুলিশ কর্মীদের সঙ্গে করোনা পরীক্ষা হয় সুপ্রিয়র-ও, এদিকে আগে থেকে ঠিক করে রাখা ছিল বিয়ের দিনক্ষণ | সেই অনুযায়ী, জুন মাসের ২ তারিখ সব রকম কোভিড নির্দেশিকা মেনেই বিয়ে সম্পন্ন হয় | নিয়ম মেনেই পরের দিন অর্থাৎ ৩ জুন নব বধূকে নিয়ে বাড়ি পৌঁছন হাওড়ার  দাসনগরের কোনার বাসিন্দা সুপ্রিয় | পরের দিন ঘরোয়া ভাবে বউভাতের অনুষ্ঠান তারই তোড়জোড় চলছিল, সবাই তখন ব্যস্ত নব বধূকে নিয়ে | এই পর্যন্ত সবই ঠিক ছিল | বাড়ি ফিরতেই মুহুর্মুহু শুভেচ্ছা ফোন আসতে থাকে সুপ্রিয়র মোবাইলে ৷ ঠিক তারই মধ্যে রাত  দশটা নাগাদ হঠাৎই একটি ফোন সব কিছু ওলোট পালট করে দিল গোটা পরিবারকে |

ফোনের অপর প্রান্ত থেকে জেলা স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিক জানান ,সুপ্রিয়র করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে, তাঁকে যেতে হবে হাসপাতালে | বাড়িতে তৈরি হতে বলা হয় তাকে, কথা মতোই বাড়িতে স্বাস্থ্য দফতর থেকে অ্যাম্বুলেন্স এসে সুপ্রিয়কে নিয়ে যায় হাসপাতালে | সঙ্গে পরিবার ও নব বধূকেও বাড়িতেই কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয় | তারপর থেকে কেটে যায় ১৪ টা দিন, সুস্থ হয়ে ওঠে সুপ্রিয় | সুপ্রিয়র মুখে তার বেদনাদায়ক দাম্পত্য জীবনের শুরুর কথা শুনে ফুলেশ্বরের সঞ্জীবন হাসপাতালের বিশিষ্ট চিকিৎসক ও হাসপাতালের চেয়ারম্যান ঠিক করেন ,সুপ্রিয় সুস্থ হলে হাসপাতালেই আবার সুপ্রিয় ও পিয়ালির চার হাত এক করা হবে ৷ সেই মতোই সুপ্রিয় সুস্থ হতেই হাসপাতালে ডেকে পাঠানো হয় সুপ্রিয়র স্ত্রী ও পরিবারকে ৷

মঙ্গলবার নব বধূ হাসপাতালে ঢুকতেই তাঁদের সাজিয়ে তোলার তোড়জোড় শুরু করেন মহিলা চিকিৎসক ও হাসপাতাল কর্মীরা | মালা পরানোর সঙ্গে করোনা রুখতে গ্লভস, মাস্ক, সার্জিকাল ক্যাপ ও ফেসশিল্ড সবই পরানো হয়  তাঁদের৷ হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়া করোনা রোগী সুপ্রিয়কেও সাজিয়ে তলা হয় বরের সাজে, পাঞ্জাবি, মালা থাকলেও টোপরের বদলে ছিল ফেসশিল্ড ৷

Debasish Chakraborty

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: June 16, 2020, 11:55 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर