জলঙ্গি কাণ্ডে মূল অভিযুক্ত কে এই ‘বাহুবলী’ তাহিরুদ্দিন?

জলঙ্গি কাণ্ডে মূল অভিযুক্ত কে এই ‘বাহুবলী’ তাহিরুদ্দিন?

বুধবার রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় জলঙ্গির সাহেবনগর। অভিযোগ, শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে গুলি চালান তৃণমূল ব্লক সভাপতি তহিরুদ্দিন মণ্ডল।

  • Share this:

#জলঙ্গি: জলঙ্গির অশান্তিতে গুলি ছোড়ায় মূল অভিযুক্ত তৃণমূল ব্লক সভাপতি তহিরুদ্দিন মণ্ডল। পাচার, তোলাবাজি, দাদাগিরির মত অভিযোগ। এককথায় তহিরুদ্দিন জলঙ্গির বাহুবলী । চব্বিশ ঘণ্টা পরেও অধরা তহিরুদ্দিন মণ্ডল। স্থানীয়দের ক্ষোভ ক্রমশ বাড়ছে।

বুধবার CAA বিরোধিতায় জলঙ্গিতে বনধ ডাকে নাগরিক মঞ্চ। সেই বনধের বিরোধিতায় হামলা। রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় জলঙ্গির সাহেবনগর। অভিযোগ, শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে গুলি চালান তৃণমূল ব্লক সভাপতি তহিরুদ্দিন মণ্ডল।

কে এই তহিরুদ্দিন মণ্ডল? জলঙ্গির কাছে এককথায়, তহিরুদ্দিন বাহুবলী।

বাম আমলে তহিরুদ্দিন ছিলেন সিপিএমের দাপুটে নেতা। ২০১১-য় ক্ষমতার বদল হতেই দল বদলান তিনি। যোগ দেন তৃণমূল কংগ্রেসে। এরপর জলঙ্গির তৃণমূল ব্লক সভাপতি হন তহিরুদ্দিন মণ্ডল। পাচার, তোলাবাজি, দাদাগিরি। বাম আমল থেকেই তহিরুদ্দিনের বিরুদ্ধে উঠে এসেছে হাজারো অভিযোগ।

জলঙ্গিতে তৃণমূলের সংগঠনের দায়িত্বে ছিেলন তহির। তৃণমূলের সংগঠন চাঙ্গা করতে সিপিএম বিধায়ককেও দলে নিয়ে আসেন তহির। বাংলাদেশ সীমান্তে পাচারকাণ্ডে তহিরের নাম জড়ায়। স্থানীয়দের দাবি, ক্ষমতা হারানোর ভয়েই মরিয়া হয়ে হামলা করেন তহির।

CAA বিরোধী আন্দোলনে বুধবার বনধের ডাক দেয় 'নাগরিক মঞ্চ'। এতে পায়ের তলার মাটি সরছিল তহিরের। মাটি হারানোর আতঙ্কেই গুলি করেন তৃণমূল ব্লক সভাপতি। তহিরুল-সহ ১০ জনের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ স্থানীয়দের। বুধবারই সমস্ত অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন তহিরুদ্দিন। প্রত্যক্ষদর্শীরা অবশ্য তহিরের বিরুদ্ধেই সরব।

First published: January 31, 2020, 10:54 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर