গ্লাভস পরেই ভোট! করোনার জন্য ইভিএমের বোতাম টিপতে বিশেষ নিয়ম, পরতে হবে মাস্কও

গ্লাভস পরেই ভোট! করোনার জন্য ইভিএমের বোতাম টিপতে বিশেষ নিয়ম, পরতে হবে মাস্কও

উত্তর ২৪ পরগনার জেলা শাসক সুমিত গুপ্তা সাংবাদিক সম্মেলন করে জানিয়ে দেন যে, ৮০ বছরের উর্দ্ধ নাগরিক চাইলে বাড়ি বসে ভোট দিতে পারেন।

উত্তর ২৪ পরগনার জেলা শাসক সুমিত গুপ্তা সাংবাদিক সম্মেলন করে জানিয়ে দেন যে, ৮০ বছরের উর্দ্ধ নাগরিক চাইলে বাড়ি বসে ভোট দিতে পারেন।

  • Share this:

#উত্তর ২৪ পরগনা: ভোটের নয় দিন আগেই ভোট দেবেন প্রবীণ আর করোনা আক্রান্ত এবং বিশেষভাবে সক্ষম ব্যক্তিরা। শনিবার উত্তর ২৪ পরগনার জেলা শাসক সুমিত গুপ্তা সাংবাদিক সম্মেলন করে জানিয়ে দেন যে, ৮০ বছরের উর্দ্ধ নাগরিক চাইলে বাড়ি বসে ভোট দিতে পারেন। তার জন্য নির্বচান কমিশনের প্রতিনিধিরা ২ বার যাবেন এই সব প্রবীণ মানুষের দুয়ারে। উত্তর ২৪ পরগনার জেলা শাষক সুমিত গুপ্তা এইদিন জানান শুধু মাত্র প্রবীণ বা করোনা আক্রান্তরাই নন এই সুযোগ নিতে পারেন ৪০ শতাংশ বিশেষ সক্ষম ব্যক্তিও ৷ তিনি আরও জানান নির্বাচন কমিশনের প্রতিনিধিরা পৌঁছে যাবেন এই ধরনে মানুষের বাড়িতে ব্যালট পেপার নিয়ে৷ পৌঁছবেন পুলিশ ও ভিডিও গ্রাফারকে সঙ্গে নিয়ে। তবে এ ব্যবস্থা ঐচ্ছিক।

আরও পড়ুনশাসক দলের প্রার্থী করতে নেতার নামে সুপারিশ সোশ্যাল মিডিয়ায়!শোরগোল বর্ধমানে

প্রবীণরা চাইলে বুথে গিয়ে নির্দিষ্ট দিন ভোটও দিতে পারেন। আবার বাড়িতে বসেও নিজের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করতে পারেন। ফলে ভ্যানে চড়ে শতায়ু দিদিমাকে এবার আর ভোট দিতে বুথে আসছেন সেই ছবি দেখা যাবে না, তা বলা বাহুল্য। এবার প্রত্যেক বিধানসভা কেন্দ্রেই থাকবে এক বা একাধিক মহিলা পরিচালিত বুথ। সেই সঙ্গে ভোট সংক্রান্ত অভিযোগ জানানোর জন্য চালু করা হল বিশেষ টোল ফ্রি নম্বর। করোনা বিধি মেনে ভোটারদের জন্য বুথে  থাকবে মাক্স ও গ্লাভসের ব্যবস্থা। প্রত্যকে ভোটারকে দেওয়া হবে একটি করে গ্লাভস। সেটা পরেই বোতাম টিপতে হবে। চাইলে ভোটার তাঁর গ্লাভস ভোট দানের পর বাড়িও নিয়ে যেতে পারেন। আর চাইলে বুথের ওয়েস্ট বিনে সেই গ্লাভস ফেলেও দিতে পারেন। শনিবার দুপুরে উত্তর ২৪ পরগনার জেলা সদর বারাসাতের জেলা শাসকের দফতরে সাংবাদিক বৈঠক করে জানালেন জেলাশাসক তথা জেলা নির্বাচন কমিশনের মুখ্য আধিকারিক সুমিত গুপ্তা।

উত্তর ২৪ পরগনার মোট ৩৩টি বিধানসভা কেন্দ্রে পঞ্চম ও ষষ্ঠ  এই দুটি দফায় ভোট গ্রহণ করা হবে। এর মধ্যে ৭টি এসসি ও ১টি এসটি বিধানসভা। ১৭ই এপ্রিল ১৬টি ও ২২শে এপ্রিল ১৭টি বিধানসভা কেন্দ্রে নির্বাচন হবে। জেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ৭৯৭৫৪৪৪। এর মধ্যে ৪০৪০৭০৭ পুরুষ, ৩৯৩৪৫৩৭ মহিলা, উভয় লিঙ্গ ২০০ জন। এবারের নির্বাচনে নতুন  ভোটারের (১৮ থেকে ১৯) সংখ্যা ১৮৫০৫৮৷ বুথের সংখ্যাও বাড়ানো হয়েছে। সেক্ষেত্রে মোট বুথের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০৯৯৪ টি। এর মধ্যে মহিলা পরিচালিত বুথের সংখ্যা ১৪৯৭টি। প্রতিটি বিধানসভা ক্ষেত্রেই প্রয়োজন অনুসারে থাকবে এই মহিলা পরিচালিত ভোট গ্রহণ কেন্দ্র। ভোট সংক্রান্ত যে কোন অভিযোগ জানানর সি-ভোটার ছাড়াও সকলের জন্য থাকছে বিশেষ টোল ফ্রি নম্বর ১৯৫০। এই নম্বরে ডায়েল করে ভোট সংক্রান্ত সব ধরনের অভিযোগ জানানো যাবে।

Published by:Pooja Basu
First published: